Uttar Pradesh: ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের কারণে পিছিয়ে দেওয়া হোক রাজ্যের আসন্ন নির্বাচন - দাবি বিচারপতির

এলাহাবাদ হাইকোর্টে এক ব্যক্তির জামিন প্রসঙ্গিত মামলার শুনানি চলাকালীন বিচারপতি এই মন্তব্য করেন। আদালত কক্ষে বহু মানুষের ভিড় দেখে, কোভিড-১৯ এবং নির্বাচন সংক্রান্ত বিষয়ে তিনি স্বতঃপ্রণোদিত মন্তব্য করেন।
Uttar Pradesh: ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের কারণে পিছিয়ে দেওয়া হোক রাজ্যের আসন্ন নির্বাচন - দাবি বিচারপতির
এলাহাবাদ হাইকোর্টফাইল ছবি সংগৃহীত

দেশের নির্বাচন কমিশন এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাছে উত্তরপ্রদেশের আসন্ন বিধানসভা নির্বাচন পিছিয়ে দেবার দাবি জানালেন এলাহাবাদ হাইকোর্ট-এর বিচারপতি শেখর কুমার যাদব। তাঁর মতে কোভিড-১৯-এর ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের কারণে উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচন এক অথবা দুই মাস পিছিয়ে দেওয়া উচিৎ। বিচারপতি শেখর কুমার যাদব এই প্রসঙ্গে বলেন, ‘জান হ্যায় তো জাহান হ্যায়’।

গতকাল এলাহাবাদ হাইকোর্টে এক ব্যক্তির জামিন প্রসঙ্গিত এক মামলার শুনানি চলাকালীন বিচারপতি এই মন্তব্য করেন। আদালত কক্ষে বহু মানুষের ভিড় দেখার পর তিনি কোভিড-১৯ এবং নির্বাচন সংক্রান্ত বিষয়ে স্বতঃপ্রণোদিত মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, ‘যদি সম্ভব হয় তাহলে নির্বাচন পিছিয়ে দেওয়া হোক। কারণ জনসভা, মিছিল মিটিং তখনই হতে পারবে যখন আমরা বেঁচে থাকবো।’

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রশংসা করে বিচারপতি বলেন, আদালত প্রধানমন্ত্রীকে শ্রদ্ধা করে এবং তাঁকে অনুরোধ জানাচ্ছে যে এই ভয়ংকর মহামারীর রোধে কড়া পদক্ষেপ নেওয়া হোক। এছাড়াও সমস্ত রকম জনসভা, মিছিল এবং আসন্ন বিধানসভা নির্বাচন বন্ধ করার কথা ভাবা হোক।

তিনি আরও জানিয়েছেন, ক্রমশ বেড়ে চলা ওমিক্রনের কারণে ইতিমধ্যেই চীন, নেদারল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড, জার্মানি এবং স্কটল্যান্ডে আংশিক অথবা পুরো লকডাউন জারি করা হয়েছে। তিনি বলেন, ভারতের সংবিধানের ধারা ২১ অনুসারে প্রতিটি মানুষকে জীবনের অধিকার দেওয়া হয়েছে। তিনি এই সংক্রান্ত একটি কপি এলাহাবাদ হাইকোর্টের রেজিস্ট্রার, নির্বাচন কমিশন এবং কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে পাঠিয়েছেন বলেও জানান।

বিচারপতির বক্তব্য অনুসারে, থার্ড ওয়েভ আমাদের দরজায় কড়া নাড়ছে। আমরা সেকেন্ড ওয়েভের ভয়াবহতা দেখেছি। রাজ্যে পঞ্চায়েত নির্বাচন এবং পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচনের সময় বহু মানুষ সংক্রমিত হয়েছেন। এখন উত্তরপ্রদেশের নির্বাচন আসন্ন। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের জনসভায় লাখো লাখো মানুষ জড়ো হচ্ছে, যেখানে কোভিড প্রোটোকল মানা অসম্ভব। এই ঘটনা যদি এখনই থামানো না যায় সেক্ষেত্রে পরিস্থিতি সেকেন্ড ওয়েভের থেকেও ভয়াবহ হয়ে উঠবে। অবিলম্বে সমস্ত রাজনৈতিক দলের জনসভা, মিছিলের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা উচিৎ। যাতে মানুষকে করোনার তৃতীয় ঢেউ থেকে রক্ষা করা যায়। রাজনৈতিক দলগুলির উচিৎ দূরদর্শন এবং খবরের কাগজের মাধ্যমে নির্বাচনী প্রচার করা।

- with inputs from IANS

এলাহাবাদ হাইকোর্ট
Uttar Pradesh: আমার এবং সমাজবাদী পার্টির নেতাদের ফোন ট্যাপ হচ্ছে - অখিলেশ যাদব

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in