K'taka: বাড়িতে বড়দিন পালনে বজরঙ দলের বাধা, রুখে দাঁড়িয়ে বিক্ষোভকারীদের হটালেন মহিলারা, ভাইরাল ভিডিও

উগ্র হিন্দুত্ববাদীদের আক্রমণকে কড়া হাতে প্রতিরোধ করে তাদের ঘর থেকে বের করে দিলেন দলিত পরিবারের মহিলারা। 'এটা আমাদের ব‍্যাপার। বেরিয়ে যান এখান থেকে', পরিষ্কার বলে দিলেন মহিলারা।
K'taka: বাড়িতে বড়দিন পালনে বজরঙ দলের বাধা, রুখে দাঁড়িয়ে বিক্ষোভকারীদের হটালেন মহিলারা, ভাইরাল ভিডিও
প্রতিবাদী মহিলাছবি সৌজন্যে দ্য নিউজ মিনিট

উগ্র হিন্দুত্ববাদীদের আক্রমণকে কড়া হাতে প্রতিরোধ করে তাদের ঘর থেকে বের করে দিলেন দলিত পরিবারের মহিলারা। কর্ণাটকের তুমাকুরুর ঘটনা। সোশ্যাল মিডিয়ায় ব‍্যাপক ভাইরাল হয়েছে এই ভিডিও।‌ এই ঘটনায় উভয় পক্ষই থানায় মামলা দায়ের করলেও কোনো এফাআইআর দায়ের করেনি পুলিশ।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তুমাকুরুর কুনিগাল তালুকের বিলিদেবালয় গ্রামের রামচন্দ্রের বাড়িতে জোর করে ঢুকে পড়েন বজরঙ দলের কিছু সদস্য। রামচন্দ্রের পরিবারের 'অপরাধ' তাঁরা বড়দিন উদযাপন করেছিলেন। স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্য বজরং দলের কর্মীদের বিষয়টি জানিয়েছিলেন।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, বজরং দলের এক কর্মী বাড়ির সদস্যদের জিজ্ঞেস করছেন, "কেন আপনারা বড়দিন উদযাপন করেছেন?" এর উত্তরে বাড়ির লোকেরা জানান, তাঁরা খ্রিস্ট ধর্মে বিশ্বাসী, তাই বড়দিন উদযাপন করেছেন। এরপর হিন্দুত্ববাদীরা বাড়ির মহিলাদের জিজ্ঞাসা করেন তাঁরা সিঁদুর পরেন নি কেন? এর উত্তরে এক মহিলা বলেন, "আপনি কে আমাদের এইধরণের প্রশ্ন করার? আমি চাইলে আমার মঙ্গলসূত্রও খুলে দিতে পারি। এটা আমাদের ব‍্যাপার। বেরিয়ে যান এখান থেকে।"

এরপরও বেশ কিছুক্ষণ তুমুল তর্কবিতর্ক হয় বজরং দলের কর্মী এবং রামচন্দ্রের পরিবারের সাথে।‌ অবশেষে পুলিশ এসে বজরং দলের কর্মীদের সেখান থেকে বের করে। কোনো লিখিত অভিযোগ দায়ের করেনি পুলিশ। কুনিগাল থানার পুলিশ ইন্সপেক্টর রাজু পি জানিয়েছেন, "এটা কেবল তর্কবিতর্ক ছিল। কোনো ভায়োলেন্স হয়নি। তাই আমরা কোনো মামলা রেজিস্ট্রার্ড করিনি।"

প্রতিবাদী মহিলা
Indo China: অরুণাচলে ১৫ জায়গার নাম বদল চীনের - 'সরকার নিষ্ক্রিয়' - অভিযোগ কংগ্রেসের, ক্ষুব্ধ স্বামী

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in