টুইটার, ফেসবুকের পর এবার গণছাঁটাই আমাজনে, চলতি সপ্তাহেই কোম্পানির ইতিহাসে সবথেকে বড় ছাঁটাই

মানব সম্পদ (Human Resources), খুচরা বিভাগ (Retail Division) এবং অ্যালেক্সা ভয়েস অ্যাসিস্ট্যান্ট বিভাগের কর্মচারীদের মূলত ছাঁটাই করা হবে।
চলতি সপ্তাহেই  ১০ হাজার কর্মী ছাঁটাই করছে আমাজন
চলতি সপ্তাহেই ১০ হাজার কর্মী ছাঁটাই করছে আমাজনছবি - প্রতীকী

টুইটার, মেটার পর এবার কর্মী ছাঁটাইয়ের পথে আমাজন। চলতি সপ্তাহেই প্রায় ১০ হাজার কর্মচারীকে বরখাস্ত করতে পারে এই বহুজাতিক সংস্থাটি। নিউইয়র্ক টাইমসের এক প্রতিবেদনে এই দাবি করা হয়েছে।

প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, গত কয়েক মাস ধরে লাগাতার ক্ষতির মুখে পড়ছে ই-কমার্স কোম্পানি আমাজন। তাই কর্মী ছাঁটাই ও অন্যান্য ভাবে খরচ কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে কোম্পানিটি। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক উচ্চ আধিকারিক সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, মানব সম্পদ (Human Resources), খুচরা বিভাগ (Retail Division) এবং অ্যালেক্সা ভয়েস অ্যাসিস্ট্যান্ট বিভাগের কর্মচারীদের মূলত ছাঁটাই করা হবে।

এই রিপোর্ট অনুযায়ী সত্যি যদি ১০ হাজার কর্মী ছাঁটাই করে আমাজন, তাহলে তা এই কোম্পানির ইতিহাসে সবথেকে বড় ছাঁটাই। এই মুহূর্তে এই কোম্পানিতে বিশ্বব্যাপী কর্মচারীর সংখ্যা ১.৬ মিলিয়নেরও বেশি। সেদিক থেকে ছাঁটাইয়ের পরিমাণ ১ শতাংশেরও কম।

ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল তাদের প্রতিবেদনে দাবি করেছে, গণ ছাঁটাই নিয়ে গত এক মাস ধরেই একাধিক বৈঠক করেছেন আমাজনের শীর্ষ আধিকারিকরা। ইতিমধ্যেই বেশকিছু অলাভজনক ইউনিটের কর্মচারীদের কোম্পানির মধ্যেই অন্য বিভাগে কাজ খুঁজে নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

কোম্পানি সূত্রে জানা গেছে, সদ্য শেষ হওয়া উৎসবের মরশুমে কোম্পানির গ্রোথ অনেকটাই কমেছে, যেখানে অন্যান্য বছরে এই সময় সর্বোচ্চ বিক্রি হতো। আমাজন জানিয়েছে, ক্রমবর্ধমান দামের কারণে গ্রাহকের সংখ্যা কমছে।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি টুইটার, মেটা, ইনটেল, ফিলিপসের মতো একাধিক বহুজাতিক কোম্পানি ব্যয় সংকোচনের জন্য গণ ছাঁটাইয়ের পথে হেঁটেছে। সেই তালিকায় নতুন সংযোজন আমাজন।

চলতি সপ্তাহেই  ১০ হাজার কর্মী ছাঁটাই করছে আমাজন
Google Doodle প্রতিযোগিতা ২০২২-র বিজয়ী কলকাতার ছাত্র শ্লোক মুখার্জী
চলতি সপ্তাহেই  ১০ হাজার কর্মী ছাঁটাই করছে আমাজন
বাজারে ২০০০ টাকা নোটের সংকট, আসলে কারণ কী? জানুন বিস্তারিত

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in