West Bengal: তৃণমূল নেতার গ্রেপ্তারির দাবিতে পুলিশের দ্বারস্থ সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী

মন্ত্রীর অভিযোগ, সন্দেশখালিতে তাঁর ওপর হামলা চালিয়েছে শেখ শাহাজাহান ও তাঁর লোকেরা। শাহাজাহানের দ্রুত গ্রেফতারির দাবিতে মঙ্গলবার বসিরহাটের এসপি-র কাছে FIR দায়ের করেছেন সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী।
West Bengal: তৃণমূল নেতার গ্রেপ্তারির দাবিতে পুলিশের দ্বারস্থ সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী
সিদ্দিকুল্লা চৌধুরীফাইল ছবি, সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী ফ্যানস ফেসবুক পেজের সৌজন্যে

তৃণমূল নেতা শেখ শাহজাহানের গ্রেফতারির দাবিতে পুলিশের দ্বারস্থ হলেন রাজ‍্যের মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী। মন্ত্রীর অভিযোগ, সন্দেশখালিতে তাঁর ওপর হামলা চালিয়েছে শেখ শাহাজাহান ও তাঁর লোকেরা। শাহাজাহানের দ্রুত গ্রেফতারির দাবিতে মঙ্গলবার বসিরহাটের এসপি-র কাছে FIR দায়ের করেছেন সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী।

ঘটনার সূত্রপাত শুক্রবার। ওইদিন দুপুরে সন্দেশখালি এক নম্বর ব্লকের আগারহাটি গ্রাম পঞ্চায়েতের সরবেড়িয়া গ্রামে যশ-দূর্গতদের জন্য ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে গিয়েছিলেন রাজ‍্যের গ্রন্থাগার মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী।

অভিযোগ, ত্রাণসামগ্রী নিয়ে আসা মাত্র তৃণমূলের ব্লক সভাপতি শাজাহানের অনুগামীরা গাড়ি লুট করে। ত্রাণ নিতে আসা গ্রামবাসী এমনকি মহিলাদেরও মারধর করা হয়। মন্ত্রীর নিরাপত্তা রক্ষী, সচিব ও গাড়ির চালককে মারধর করা হয়। তাঁকেও গালিগালাজ করে ধাক্কা দেওয়া হয়। জানা গেছে, ত্রাণের ওপর নিজের নিয়ন্ত্রণ রাখতে এই কান্ড ঘটিয়েছেন শাহজাহান।

সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী
সন্দেশখালিতে আক্রান্ত সিদ্দিকুল্লা, ভোট পরবর্তী হিংসার কথা উল্লেখ করে খোঁচা নওশাদ সিদ্দিকীর

ওইদিনই পুলিশের কাছে শাহাজাহানের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়েছিলেন সিদ্দিকুল্লা। ঘটনার চারদিন কেটে যাওয়ার পর অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা না নেওয়া হয়নি। এই অভিযোগে গতকাল ফের এসপি-র সাথে দেখা করে শাহাজাহানের বিরুদ্ধে FIR দায়ের করেছেন তিনি।

পরে তিনি পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে বলেন, পুলিশের সামনেই আমাকে ও আমার লোকদের মেরেছে শাহাজাহানের লোকজন। পুলিশ এখনও নীরব দর্শক সেজে রয়েছে। বাধ‍্য হয়ে এসপির কাছে অভিযোগ জানাতে হয়েছে আজ।

অপরদিকে এই ঘটনা প্রসঙ্গে শাহজাহানকে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি। তিনি বলেছেন, এই প্রসঙ্গে কোনো মন্তব্য করবো না।

ঘটনার দিন মন্ত্রী জানিয়েছিলেন, 'বামফ্রন্ট সরকারের সময়েও অনেক জায়গায় ত্রাণ নিয়ে গিয়েছি। কখনও এমন ঘটনা দেখিনি। এইসব কুলাঙ্গার ও গুন্ডা তৃণমূলের সর্বনাশ করেছে। যারা মন্ত্রীকে মারতে পারে, তারা সাধারণ মানুষের ওপর কী অত্যাচার করছে বোঝাই যাচ্ছে।'

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in