গোরু পাচারকাণ্ডে নয়া তথ্য - অনুব্রত ও তাঁর ঘনিষ্ঠদের অ্যাকাউন্টে ৪ বছরে সাড়ে ১৬ কোটি!

সিবিআই সূত্রে খবর, কয়েকটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খতিয়ে দেখে কোটি কোটি টাকার লেনদেন সম্পর্কে জানা গেছে। তিনটি ব্যাঙ্কের আটটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে গত ৪ বছরে জমা পড়ে ১৬ কোটি ৪৫ লক্ষ টাকা।
অনুব্রত মন্ডল
অনুব্রত মন্ডলফাইল চিত্র

গোরু পাচারকাণ্ডের তদন্তে নেমে অনুব্রত মণ্ডল ও তাঁর ঘনিষ্ঠদের বিপুল পরিমাণ টাকার হদিশ পেল সিবিআই। প্রায় সাড়ে ১৬ কোটি টাকার লেনদেনের তথ্য হাতে পেয়েছেন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার আধিকারিকেরা। যার জেরে বীরভূমের দোর্দণ্ডপ্রতাপ তৃণমূল নেতার অস্বস্তি ফের বাড়ল।

গোরু পাচারকাণ্ডের তদন্তে নেমে প্রথমেই অনুব্রত মণ্ডল ও তাঁর মেয়ের নামে প্রচুর সম্পত্তির খোঁজ পেয়েছিল সিবিআই। তদন্ত যত এগোয় একের পর এক বিপলু টাকার সন্ধান পায় তারা। সিবিআই সূত্রে খবর, কয়েকটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খতিয়ে দেখে কোটি কোটি টাকার লেনদেন সম্পর্কে জানা গেছে। তিনটি ব্যাঙ্কের আটটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে গত ৪ বছরে জমা পড়ে ১৬ কোটি ৪৫ লক্ষ টাকা।

আটটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট রয়েছে অনুব্রত মণ্ডল, তাঁর কন্যা সুকন্যা মণ্ডল, বিদ্যুৎ বরণ গায়েন, প্রয়াত স্ত্রী ও দুই সংস্থার নামে। তাতে ২০১৭ সালে মাঝামাঝি সময় থেকে ২০২১ সালের প্রথম দিক পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে বিপুল পরিমাণ টাকা জমা পড়ে। সবটাই নগদে জমা করা হয়।

সিবিআই সূত্রে এও জানা যাচ্ছে, ওই ব্যাঙ্কের আধিকারিকদের তলব করা হয়েছে। কী কারণে এত টাকা জমা করা হয়েছে? ব্যাঙ্কের কী কোনো কর্মী এর সাথে যুক্ত আছেন? লেনদেনের সঠিক নিয়ম মানা হয়েছিল কিনা? সবই খতিয়ে দেখা হবে। আধিকারিকরা অনুমান করছেন গোরু পাচারের টাকাই হয়তো ব্যাঙ্কগুলিতে জমা করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ১১ নভেম্বর আসানসোল আদালতে তোলা হয় অনুব্রত মণ্ডলকে। তৃণমূল নেতার জামিনের বিরোধিতা করেন সিবিআই-র আইনজীবী। আদালত সূত্রের খবর প্রভাবশালী তত্ত্বেই খারিজ হয়ে যায় অনুব্রত মণ্ডলের জামিনের আবেদন।

অনুব্রত মন্ডল
রাষ্ট্রপতির শারীরিক গঠন নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্য - তৃণমূল বিধায়কের পাশে নেই দল
অনুব্রত মন্ডল
WB: পঞ্চায়েত ভোটে জিততে মরিয়া BJP, নিয়োগ দুর্নীতির বিরুদ্ধে আন্দোলনকারীদের প্রার্থী করার চেষ্টা

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in