HMC: হাওড়া থেকে বালিকে আলাদা করার বিলে সই করিনি, রাজ্যের দাবির সম্পূর্ণ উল্টো দাবি রাজ্যপালের

শনিবার সকালে রাজ‍্যপাল জানালেন এই বিলে তিনি সই করেননি। গতকাল রাজ‍্যের তরফ থেকে হাইকোর্টে বলা হয়েছিল বিলে সই করেছেন রাজ‍্যপাল।
HMC: হাওড়া থেকে বালিকে আলাদা করার বিলে সই করিনি, রাজ্যের দাবির সম্পূর্ণ উল্টো দাবি রাজ্যপালের
রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ফাইল ছবি সংগৃহীত

হাওড়া পুরসভা থেকে বালিকে আলাদা করার বিল নিয়ে রাজ‍্যের দাবির সম্পূর্ণ বিপরীত দাবি করলেন রাজ‍্যপাল জগদীপ ধনখড়। শনিবার সকালে রাজ‍্যপাল জানালেন এই বিলে তিনি সই করেননি। গতকাল রাজ‍্যের তরফ থেকে হাইকোর্টে বলা হয়েছিল বিলে সই করেছেন রাজ‍্যপাল।

গত নভেম্বর মাসে বিধানসভার শীতকালীন অধিবেশনে হাওড়া পুরসভা থেকে বালি পুরসভাকে আলাদা করার জন্য বিল পাশ হয়। এরপর বিলে সই করার জন্য তা রাজ‍্যপালের কাছে পাঠানো হলেও তিনি এখনও তাতে সই করেননি। শুক্রবার পুরসভা নির্বাচন সংক্রান্ত এক মামলার শুনানিতে বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তবের বেঞ্চে রাজ‍্যের অ‍্যাডভোকেট জেনারেল বলেন, বৃহস্পতিবার রাতেই ওই বিলে সই করেছেন রাজ‍্যপাল।

গতকাল মিডিয়াতে এই খবর প্রকাশিত হওয়ার পরই রাজ‍্যপালের সাথে সাক্ষাৎ করেন বিধানসভার বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। রাজভবন থেকে বেরিয়ে তিনি সংবাদমাধ্যমে জানান, রাজ‍্যপাল তাঁকে বলেছেন, বিলে সই তিনি করেননি। শনিবার সকালে রাজ‍্যপাল নিজেও সেই একই দাবি করেছেন।

নিজের ট‍্যুইটারে রাজ‍্যপাল লেখেন, "সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে যে পশ্চিমবঙ্গের রাজ‍্যপাল শ্রী জগদীপ ধনখড় হাওড়া মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন (সংশোধনী) বিল, ২০২১-এ অনুমোদন দিয়েছেন। এটা সঠিক নয়। সংবিধানের ২০০ অনুচ্ছেদের অধীনে বিবেচনাধীন রয়েছে এটা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছ থেকে কিছু প্রশ্নের উত্তরের অপেক্ষা করছি।"

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার রাজ‍্য নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, আগামী ২২ জানুয়ারি হাওড়া এবং ২৭ ফেব্রুয়ারি বালিতে পুরভোট করতে চায় তারা।

রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
হাওয়ালা-কাণ্ডের চার্জশিটে আমার নাম নেই, মুখ্যমন্ত্রীর অভিযোগ অসত্য: রাজ্যপাল

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in