Gold Theft Case : গুজরাটে প্রায় দু'কেজি সোনা চুরির ঘটনায় নাম জড়াল সাংসদ দেবের প্রতিনিধির

পুলিশি জেরায় ধৃত জানায়, ঘাটালেরই রামপদ মান্নার হাতে ৫০ লক্ষ টাকা এবং ৯৭০ গ্রাম সোনা তুলে দিয়েছিল। এই বামপদ মান্নাই সাংসদ দেবের প্রতিনিধি।
Gold Theft Case : গুজরাটে প্রায় দু'কেজি সোনা চুরির ঘটনায় নাম জড়াল সাংসদ দেবের প্রতিনিধির
ফাইল চিত্র


এবার বিতর্কে জড়িয়ে পড়লেন ঘাটালের তৃণমূল সাংসদ দেবের (Deepak Adhikari) প্রতিনিধি। তাঁর নাম রামপদ মান্না। গুজরাতে বিপুল পরিমাণ সোনা চুরির ঘটনায় নাম জড়িয়েছে তাঁর। স্বাভাবিকভাবেই অস্বস্তিতে তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্ব। সূত্রের খবর, বেশ কয়েক মাস আগে গুজরাত থেকে সোনা চুরি করে পালিয়ে আসে ঘাটালের এক ব্যক্তি। প্রায় দু'কেজি সোনা চুরি করে বলে অভিযোগ। তদন্তে নেমে গুজরাত পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। তদন্তের মুখে পড়ে ধৃত সেই ব্যক্তি রামপদ মান্নার নাম করে।

গুজরাত থেকে সোনা চুরি করা ব্যক্তির নাম তাপস মণ্ডল। যে দোকান থেকে সোনা চুরি গিয়েছে, সেই দোকান মালিক বানেশ্বর জানার অভিযোগের ভিত্তিতে আমেদাবাদ পুলিশ ঘাটালের আড়গোড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে। তারপর তাকে নিয়ে যাওয়া হয় গুজরাতে। পুলিশি জেরায় ধৃত জানায়, ঘাটালেরই রামপদ মান্নার হাতে ৫০ লক্ষ টাকা এবং ৯৭০ গ্রাম সোনা তুলে দিয়েছিল।

তারপরেই ঘাটাল পুলিশের সাহায্য নিয়ে পুলিশ পৌঁছে যায় কুশপাতা এলাকায় রামপদ মান্নার বাড়িতে। সেই সময় বাড়ি ছিলেন না রামপদ। বাড়ি ছিলেন তাঁর স্ত্রী রূপা মান্না। তাঁর সঙ্গে দীর্ঘক্ষণের কথাবার্তা হয় পুলিশের। রূপাদেবী তৃণমূল পরিচালিত ঘাটাল পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি। তিনি জানিয়েছেন যে, রামবাবু দলীয় কাজে বাইরে আছেন।

Gold Theft Case : গুজরাটে প্রায় দু'কেজি সোনা চুরির ঘটনায় নাম জড়াল সাংসদ দেবের প্রতিনিধির
খেজুরিতে বোমা বাঁধতে গিয়ে বিস্ফোরণে মৃত্যু ২ তৃণমূল কর্মীর, আশঙ্কাজনক আরও ২

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in