WB: রাজ্যে এখনই কোনো লকডাউন নয় - মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

এদিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন, কোভিডের সময় সবকিছু বন্ধ হয়ে গিয়েছিল এবং এটি এমন পরিস্থিতির দিকে নিয়ে গিয়েছিল যেখানে সাধারণ মানুষ সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল। সরকার আবার একই পথে চলতে চায় না।”
WB: রাজ্যে এখনই কোনো লকডাউন নয় - মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ফাইল ছবি এআইটিসি ফেসবুক পেজের সৌজন্যে

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বৃহস্পতিবার জানিয়েছেন রাজ্যে আপাতত লকডাউনের মতো পরিস্থিতি নেই। এদিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন, "এই মুহূর্তে রাজ্যে কোনও লকডাউন হচ্ছে না। কোভিডের সময় সবকিছু বন্ধ হয়ে গিয়েছিল এবং এটি এমন পরিস্থিতির দিকে নিয়ে গিয়েছিল যেখানে সাধারণ মানুষ সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল। সরকার আবার একই পথে চলতে চায় না।”

যদিও এদিন তিনি জানিয়েছেন, সরকার প্রতিটি সম্ভাব্য পরিস্থিতি সাবধানতার সাথে বিবেচনা করছে এবং পরিস্থিতির ওপর নজর রাখছে।

মুখ্যমন্ত্রী আরও জানিয়েছেন, "গত ছয়-আট মাস ধরে ভাইরাসের কোনও ভয় ছিল না এবং তাই সমস্ত হাসপাতাল এবং সেফ হাউসগুলি অনেক জায়গায় বন্ধ ছিল। আমরা প্রতিটি সম্ভাব্য সমস্ত পরিস্থিতি সাবধানে বিবেচনা করে সিদ্ধান্ত নেব।"

ব্রিটেন থেকে আসা যাত্রীদের বিষয়ে তাঁর উদ্বেগ প্রকাশ করে তিনি বলেন: "ব্রিটেন থেকে যাঁরা আসছেন তাদের ওমিক্রন পজিটিভ ধরা পড়েছে। তারা পরীক্ষার প্রক্রিয়ায় বিরক্ত হচ্ছেন তবে তাঁদের সরকার এবং স্বাস্থ্য বিভাগকে সহযোগিতা করা উচিত।"

নববর্ষ উদযাপন প্রসঙ্গে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের উদ্বেগের মধ্যে জমায়েত ভাইরাসের সংক্রমণে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখতে পারে এই আশঙ্কায়, মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন: "আমি কীভাবে নববর্ষ উদযাপনের কর্মসূচি বন্ধ করতে পারি? আমরা নজর রাখছি পরিস্থিতি সম্পর্কে। আমি সবাইকে পরিস্থিতি সম্পর্কে সচেতন হতে এবং যুক্তিযুক্ত আচরণ করতে অনুরোধ করছি।"

তিনি আসন্ন গঙ্গাসাগর মেলাতেও সবাইকে দায়িত্বশীল আচরণ করতে বলেন। তিনি আরও বলেন, আমি মেলা বন্ধ করতে পারব না, তবে জনগণকে সচেতন হতে হবে। বুধবার, মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন, রাজ্য সরকার আবার সম্পূর্ণ বিধিনিষেধ আরোপ করার কথা ভাবছে।

দক্ষিণ ২৪ পরগণায় এক প্রশাসনিক সভায় বক্তৃতা করে, মুখ্যমন্ত্রী ইঙ্গিত দিয়েছিলেন যে রাজ্য সরকার ভাইরাসের বিস্তার রোধে স্কুল কলেজ এবং লোকাল ট্রেনে বিধিনিষেধ আরোপ করতে পারে। বুধবার বৈঠকের সময় তিনি আরও জানিয়েছিলেন, সংক্রমণ বাড়ছে এবং তাই রাজ্য সরকার কিছু দিনের জন্য স্কুল ছুটি ঘোষণা করতে পারে এবং প্রয়োজনে সরকার এমনকি স্কুল ও কলেজগুলি বন্ধ করে দিতে পারে।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
WB: শীতকালীন বৃষ্টির জেরে আলু ও ধানের ব্যাপক ক্ষতি, মিলছে না বিমার টাকা, অভিযোগ কৃষক সভার

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in