শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে বিপ্লব দেব এবং মানিক সাহা
শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে বিপ্লব দেব এবং মানিক সাহাছবি সংগৃহীত

বিপ্লব দেবের আমলে রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে, শপথ নিয়েই স্বীকার নতুন মুখ্যমন্ত্রীর

মানিক সাহাকে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে বেছে নেওয়ার বিজেপি নেতৃত্বের সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ দলীয় বিধায়কদের একাংশ। একাধিক দলীয় বিধায়ক আজকের শপথ অনুষ্ঠানে গরহাজির ছিলেন।

বিপ্লব দেবের আমলে রাজ্যে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছিল। শপথ নিয়েই একথা কার্যত স্বীকার করে নিলেন ত্রিপুরার নতুন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সাহা। উন্নয়ন এবং রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি জোরদার করাই এখন তাঁর মূল লক্ষ্য বলে জানিয়েছেন তিনি।

রবিবার ত্রিপুরা রাজভবনে রাজ্যপাল সত্যদেও নারায়ন আর্যের উপস্থিতিতে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন ৬৯ বছর বয়সী মানিক সাহা। শনিবার বিপ্লব দেবের মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার কয়েকঘণ্টার মধ্যেই রাজ্যের জন্য নতুন মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে মানিক সাহাকে বেছে নেয় বিজেপি। নেতৃত্বের এই সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ হন একাধিক দলীয় বিধায়ক। এই নিয়ে তুমুল বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। হাতাহাতি, চেয়ার ভাঙচুর পর্যন্ত হয়। আজকের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানেও এর প্রভাব পড়ে। একাধিক দলীয় বিধায়ক এই শপথ অনুষ্ঠানে গরহাজির ছিলেন।

এদিন শপথ গ্রহণের পর মানিক সাহা বলেন, "প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে মানুষের জন্য কাজ করবো। উন্নয়নমূলক কাজ করবো। উন্নয়ন, উন্নয়ন উন্নয়ন... আমি কেবল উন্নয়নমূলক কাজ করে যাবো এবং রাজ্যে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি যাতে ঠিক থাকে, তা নিশ্চিত করার জন্য কাজ করবো।"

রাজ্যে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি জোরদার করার প্রয়োজনীয়তা কেনো অনুভব করছেন তিনি, এই সংক্রান্ত প্রশ্ন করা হলে তা এড়িয়ে যান পেশায় ডেন্টিস্ট মানিক সাহা। যদিও পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য তিনি বলেন, বিপ্লব দেবের নেতৃত্বে ত্রিপুরা অনেক উন্নতি করেছে।

শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে বিপ্লব দেব এবং মানিক সাহা
রাজনীতিতে আসার ৬ বছরের মধ্যেই মুখ্যমন্ত্রী, কে এই মানিক সাহা যাঁকে নিয়ে ক্ষুব্ধ BJP বিধায়কদের একাংশ

GOOGLE NEWS-এ Telegram-এ আমাদের ফলো করুন। YouTube -এ আমাদের চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন।

logo
People's Reporter
www.peoplesreporter.in