মন্তব্যে বিদ্বেষের বিষ! BJP সাংসদ প্রজ্ঞা ঠাকুরের শাস্তির দাবিতে খোলা চিঠি প্রাক্তন আমলাদের

২৫ ডিসেম্বর উগ্র হিন্দুত্ববাদী সংগঠন 'হিন্দু জাগরণ ভেদিক'-এর দক্ষিণ শাখার বার্ষিক সম্মেলনে বক্তৃতা দেওয়ার সময় সমস্ত হিন্দুদের বাড়িতে ধারালো ছুরি রাখার পরামর্শ দেন বিজেপি সাংসদ প্রজ্ঞা ঠাকুর।
প্রজ্ঞা ঠাকুর
প্রজ্ঞা ঠাকুর

বিদ্বেষমূলক মন্তব্যের জন্য বিজেপি সাংসদ প্রজ্ঞা সিং ঠাকুরের (BJP MP Pragya Singh Thakur) বিরুদ্ধে সরব হলেন শতাধিক প্রাক্তন আমলা। লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লার কাছে অনুরোধ করে খোলা চিঠিতে তাঁরা জানিয়েছেন, কর্ণাটকের শিবমোগ্গায় বিদ্বেষমূলক বক্তব্যের জন্য প্রজ্ঞার বিরুদ্ধে অবিলম্বে ব্যবস্থা নেওয়া হোক।

গত ২৫ ডিসেম্বর, রবিবার শিবমোগ্গাতে উগ্র হিন্দুত্ববাদী সংগঠন 'হিন্দু জাগরণ ভেদিক'-এর দক্ষিণ শাখার বার্ষিক সম্মেলন ছিল। সেই অনুষ্ঠানে বক্তৃতা দেওয়ার সময় সমস্ত হিন্দুদের বাড়িতে ধারালো ছুরি রাখার পরামর্শ দেন বিজেপি সাংসদ প্রজ্ঞা ঠাকুর।

সমাবেশে নাম না করে একটি বিশেষ সম্প্রদায়ের মানুষদের আক্রমণ করে প্রজ্ঞা ঠাকুর বলেন, 'তাদের জিহাদ ছাড়া আর কোনও ঐতিহ্যই নেই। কিছু না হলেই তারা লাভ জিহাদ করে। প্রেম করলেও তারা সেটার মধ্যে জিহাদ নিয়ে আসে।'

মালেগাঁও বিস্ফোরণ মামলার মূল অভিযুক্ত প্রজ্ঞা ঠাকুর হিন্দুদের উদ্দেশ্যে বলেন, 'আপনারা বাড়িতে অস্ত্র রাখুন। কিছু না পেলে, অন্তত শাকসবজি কাটার জন্য ব্যবহৃত ছুরি সবসময় ধার দিয়ে রাখবেন। জানি না কখন কী পরিস্থিতি তৈরি হবে। প্রত্যেকেরই আত্মরক্ষার অধিকার আছে। যদি কেউ আমাদের বাড়িতে অনুপ্রবেশ করে এবং আমাদের আক্রমণ করে, তাদের উপযুক্ত জবাব দেওয়ার অধিকার আমাদের আছে।'

বিজেপি সাংসদের এই বিতর্কিত মন্তব্যের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই দেশজুড়ে ক্ষোভ তৈরি হয়। গ্রেফতারির দাবি ওঠে। সেই সূত্র ধরেই লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লার কাছে চিঠি লিখেছেন দেশের ১০৩ জন প্রক্তন আমলা। চিঠিতে তাঁরা প্রজ্ঞার বক্তব্যকে 'বিতর্কিত', 'ঘৃণাত্মক' এবং 'বিদ্বেষমূলক' বলে অভিহিত করেছেন।

খোলা চিঠিতে তাঁরা বলছেন, 'প্রজ্ঞার এই মন্তব্য অহিন্দু জাতির মানুষের বিরুদ্ধে ঘৃণা ছড়ানোর উদ্দেশ্যে করা। সংসদ দেশের আইন প্রণয়ণ করে। সুতরাং, সংসদের একটা নৈতিক দায়িত্ব থেকে যায়। আইনসভার কোনও সদস্য এভাবে সংবিধান ভঙ্গ করতে পারেন না।'

জানা যাচ্ছে, যাঁরা এই চিঠিতে স্বাক্ষর করেছেন (IANS-এর কাছে উপলব্ধ), তাঁদের মধ্যে রয়েছেন - দিল্লির প্রাক্তন লেফটেন্যান্ট গভর্নর নজীব জঙ্গ, মধ্যপ্রদেশ সরকারের প্রাক্তন মুখ্য সচিব শারদ বাইহার, প্রাক্তন বিদেশ সচিব শিবশঙ্কর মেনন, প্রাক্তন আইপিএস (IPS) এ এস দুলাত-সহ মোট ১০৩ জন প্রাক্তন আমলা।

প্রজ্ঞা ঠাকুর
জনগণের ক্ষোভের মুখে পড়ে BJP সাংসদ প্রজ্ঞা ঠাকুরের বিরুদ্ধে FIR দায়ের কর্ণাটক পুলিশের
প্রজ্ঞা ঠাকুর
Pragya Thakur: অবশেষে আদালতে হাজিরা, 'এখুনি হাসপাতালে ভর্তি হতে হবে' বলেই চলে গেলেন প্রজ্ঞা ঠাকুর

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in