বামপন্থী ছাত্র সংগঠনের হাত ধরে বাংলাদেশে প্রথম ট্রান্সজেন্ডার ছাত্রনেতা শিশির বিন্দু

শিশির বিন্দু পিপলস রিপোর্টারকে বলেন, 'লিঙ্গ বৈষম্যের কারণে কেউ পিছিয়ে থাকবে এমনটা আমি চাই না। আমি বর্তমানে লিঙ্গ বৈষম্যের শিকার মানুষদের নিয়ে কাজ করতে চাই। ছাত্র ইউনিয়ন আমাকে সেই সুযোগ করে দিচ্ছে।'
শিশির বিন্দু
শিশির বিন্দুগ্রাফিক্স - আকাশ নেয়ে

বাংলাদেশের ছাত্র রাজনীতির ইতিহাসে প্রথমবার এক ট্রান্সজেন্ডার নারী শিক্ষার্থী ছাত্রনেতা নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নাম শিশির বিন্দু। তিনি বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের রাজবাড়ী জেলা সংসদের সহ-সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। বামপন্থী ছাত্র সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় কমিটির পক্ষ থেকে শিশিরকে অভিন্দন জানানো হয়েছে। 

গত ১১ জানুয়ারি (বুধবার) বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন রাজবাড়ী জেলা সংসদের দ্বাদশ সম্মেলনে ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কার্যনির্বাহী কমিটিতে শিশির বিন্দুকে সহ-সভাপতি নির্বাচিত করা হয়। শিশির বিন্দু বর্তমানে বাংলাদেশের ফরিদপুর জেলার সরকারি রাজেন্দ্র কলেজের ইসলামের ইতিহাস বিভাগে মাস্টার্স করছেন।

ছাত্র ইউনিয়ন সূত্র জানায়, বাংলাদেশের রাজবাড়ীর সদর উপজেলায় সোনাকান্দর ঘাট এলাকায় ১৯৯৪ সালে বিন্দু জন্মগ্রহণ করেন। বাবা হান্নান শেখ ও মা মিনি বেগমের প্রথম সন্তান তিনি। দরিদ্র পরিবারে লড়াই সংগ্রাম করে বড় হওয়া বিন্দু ২০২২ সালে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের সদস্য পদে কাজ শুরু করেন।

প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের সবচেয়ে প্রাচীন ও বৃহৎ বামপন্থী ছাত্র সংগঠনের একটি জেলা ইউনিটে একজন ট্রান্সজেন্ডার নারী শিক্ষার্থী কমিটিতে আসায় তাঁকে অভিনন্দন জানিয়ে ফেসবুকে পোস্ট করেছেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পর্টির (সিপিপির) প্রাক্তন সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাস সেলিম।

তিনি সেখানে লেখেছেন, 'বাংলাদেশের ছাত্র রাজনীতিতে নতুন অধ্যায়ের সূচনা হলো ছাত্র ইউনিয়নের হাত ধরে। দেশের রাজনীতির ইতিহাসে প্রথম যুক্ত হলেন কোন ট্রান্সজেন্ডার ছাত্রনেতা। বাংলাদেশের ছাত্র ইউনিয়ন রাজবাড়ী জেলার সহ-সভাপতি হয়েছেন ট্রান্সজেন্ডার শিশির বিন্দু।'

এক যৌথ বিবৃতিতে কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি মো. ফয়েজ উল্লাহ ও সাধারণ সম্পাদক দীপক শীল উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে বলেন, 'শিশির তাঁর নিজ যোগ্যতাতেই নেতৃত্বের পর্যায়ে উঠে এসেছেন। বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন তার জন্মলগ্ন থেকেই সব প্রকার লৈঙ্গিক বৈষম্যের বিরুদ্ধে সোচ্চার ছিল এবং থাকবে।'

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, 'বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন ভাষা আন্দোলনের অগ্নিগর্ভ থেকে জন্ম নিয়ে দেশের সকল ছাত্র আন্দোলনে নেতৃত্ব দেওয়ার পাশাপাশি ট্রান্সজেন্ডার অধিকারসহ গণতান্ত্রিক বিভিন্ন সংগ্রামে নতুন নতুন ইতিহাস রচনা করেছে। শিশির বিন্দুকে রাজবাড়ী জেলার সহ-সভাপতি নির্বাচিত করা প্রগতিশীল ছাত্র আন্দোলনের নতুন অধ্যায়।'

ছাত্র ইউনিয়নের সহ-সভাপতি পদে আসা প্রসঙ্গে শিশির বিন্দু পিপলস রিপোর্টারকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, 'ছাত্রদের অধিকার নিয়ে সত্যিকার অর্থেই কাজ করে ছাত্র ইউনিয়ন। আমি ছাত্র রাজনীতিতে এসেছি কয়েক বছর আগে। গত কমিটিতে ছাত্র ইউনিয়নের সদস্য ছিলাম। এবার সহ-সভাপতি হয়েছি। আমি ছাত্র রাজনীতি করব। এই পর্যায় শেষ করে মূল দলে কাজ করব। লিঙ্গ বৈষম্যের কারণে কেউ পিছিয়ে থাকবে এমনটা আমি চাই না। আমি বর্তমানে লিঙ্গ বৈষম্যের শিকার মানুষদের নিয়ে কাজ করতে চাই। ছাত্র ইউনিয়ন আমাকে সেই সুযোগ করে দিচ্ছে।'

এ প্রসঙ্গে রাজবাড়ী জেলা ছাত্র ইউনিয়নের নব নির্বাচিত সভাপতি কাওসার আহমেদ রিপন পিপলস রিপোর্টারকে বলেন, 'শিশির বিন্দু একজন অধিকার সচেতন মানুষ। মানুষ হিসেবেই তাঁর পরিচয়। ছাত্র ইউনিয়ন লিঙ্গ, গোত্র, বর্ণ, জাতি, ধর্ম পরিচয়ের বৈষম্যের বিরুদ্ধে মানুষের অধিকার আদায়ের কাজ করে। শিশির বিন্দু একজন মানুষ হিসেবে ছাত্র ইউনিয়নের সেই লড়াইয়ে শামিল হয়েছেন। তাঁকে আমরা স্থান করে দিতে পেরেছি এটাই আমাদের ভালো লাগা। তিনি ছাত্র ইউনিয়নের কর্মকান্ড সম্পর্কে জেনে বুঝে আমাদের সাথে কাজ করেন। তিনি প্রগতিশীল ছাত্র আন্দোলনের জন্য আদর্শ হয়ে থাকবেন।'

রিপন আরও বলেন, 'বাংলাদেশের রাজনীতির ইতিহাসের প্রথম কোনও ট্রান্সজেন্ডার ছাত্র রাজনীতিতে এসেছেন। আমরা রাজবাড়ী জেলা ছাত্র ইউনিয়নের পক্ষ থেকে তাঁকে স্বাগত জানায়। যেকোনো অধিকার, সংগ্রামে তিনি আমাদের পাশে ছিলেন, এখনো পাশে থাকবে্ন। তাঁকে সঙ্গে নিয়ে আমরা সমাজের ট্রান্সজেন্ডারদের অধিকার ও দাবি আদায় নিয়ে কাজ করব। আমাদের কেন্দ্রীয় কমিটি থেকেও নির্দেশনা রয়েছে শিশির বিন্দুর প্রতি বিশেষ ভাবে নজর রাখতে। আগামীতে শিশুর বিন্দু ছাত্র ইউনিয়নের ব্যানার থেকে যেকোনো লড়াই সংগ্রামে নেতৃত্ব দেবেন।'

শিশির বিন্দু
'একটা চাকরির খুব প্রয়োজন', দেশের হয়ে ফুটবল খেলা পৌলমী এখন ডেলিভারি এজেন্ট

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in