UP election 2022: ভোট প্রচারে বিজেপির হাতিয়ার হিন্দুত্ব ও মেরুকরণ, অখিলেশের রুটিরুজি
গ্রাফিক্স - নিজস্ব

UP election 2022: ভোট প্রচারে বিজেপির হাতিয়ার হিন্দুত্ব ও মেরুকরণ, অখিলেশের রুটিরুজি

সপা নেতা অখিলেশ যাদব বিজেপির হিন্দুত্ববাদের প্রচারের বিপক্ষে গিয়ে রুটিরুজি নিয়ে সওয়াল করে চলেছেন। পাশাপাশি তাঁর নির্বাচনী জোটও বিচক্ষণতার পরিচয় দিচ্ছে বলে রাজনৈতিক মহল মনে করছে।

উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির হাতিয়ার হিন্দুত্ব ও মেরুকরণ, তা মোদির প্রচারেই স্পষ্ট। শনিবার ভোটের দিনক্ষণ ঘোষিত হয়েছে। পাশাপাশি নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত জমায়েত করে কোনও প্রচার চালানো যাবে না। এই সময় আরও বাড়তে পারে। কারণ করোনা সংক্রমণ সেরাজ্যে দ্রুতহারে বাড়ছে।

এদিকে বিএসপি নেত্রী মায়াবতী ময়দানে নেই। কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধী দলকে চাঙ্গা করার অনেক চেষ্টা করেছেন। বেশ কয়েকবার যোগী আদিত্যনাথ সরকারকে বেকায়দায় ফেলেছেন। তবুও রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, বিধানসভা নির্বাচনের বিজেপি এবং সমাজবাদী পার্টির মধ্যেই প্রধান লড়াই।

সপা নেতা অখিলেশ যাদব বিজেপির হিন্দুত্ববাদের প্রচারের বিপক্ষে গিয়ে রুটিরুজি নিয়ে সওয়াল করে চলেছেন। পাশাপাশি তাঁর নির্বাচনী জোটও বিচক্ষণতার পরিচয় দিচ্ছে বলে রাজনৈতিক মহল মনে করছে। বিজেপির 'ফর্ক সাফ হ্যায়' প্রচার চালাচ্ছে। মূলত আগের সরকারের থেকে তারা বেশি ভালো, এটা প্রমাণ করতে তাদের এই প্রচার।

পাল্টা প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশের জবাব, পরিবর্তন তো হয়েইছে। ১০০টা ১১২ হয়েছে। অখিলেশের আমলে পুলিশের জরুরিকালীন পরিষেবা ১০০ চালু হয়। কুইক রেসপন্স টিম গঠিত হয়। বিজেপি সরকার ক্ষমতায় আসার পর প্রথমেই বদলে দিয়ে ১১২ করে দেয়। অখিলেশ বলেন, আমরা ছাত্রদের ল্যাপটপ দিচ্ছি, আর বিজেপি ট্যাবলেট দিচ্ছে। আমি গোন্ডায় একটি জেলা হাসপাতাল বানিয়েছিলাম। বিজেপি সেটাকে মেডিকেল কলেজ বলে চালাচ্ছে। লখনৌ থেকে গোন্ডা পর্যন্ত চার লেনের সড়ক বানিয়েছিলাম। বিজেপি এখন সেখানে ষাঁড়ের বিশ্রামের জায়গা বানিয়েছে। পরিবর্তন তো ঘটেইছে।

ইতিমধ্যেই অখিলের বিজয়রথ যাত্রা শুরু করে ফেলেছে। রাজ্যে প্রচারে বিজেপির ক্ষেত্রে অনেক ভারী ভারী নাম থাকলেও তিনি একাই দায়িত্ব তুলে নিয়েছেন। রোড শো এবং সমাবেশ যথেষ্ট ভিড় লক্ষ্য করা গিয়েছে। বিজেপি সরকারের পাল্টা অখিলেশ মনে করিয়ে দিচ্ছে, করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কীভাবে ব্যর্থ হয়েছে যোগী সরকার।

পাশাপাশি পরিযায়ীদের দুর্দশার কথা মনে করাচ্ছেন অখিলেশ। কেউ চারশো, কেউ পাঁচশো, কেউ হাজার কিলোমিটার হেঁটে বাড়ি ফিরেছেন। শিলান্যাস নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়া নিয়ে কটাক্ষ করেছেন। অখিলেশের অভিযোগ, প্রশ্নপত্র ফাঁস করে দিয়েছে সরকারই। যাতে একটাও চাকরি দিতে না হয়।

কৃষকদের জন্য কেনা সার বিজেপি নেতারা চুরি করে নিচ্ছেন। সরকারি কর্মচারীরাও যথেষ্ট সমস্যায় আছেন। সেসব নিয়ে নির্দিষ্ট প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন অখিলেশ। তাঁর কথায়, গত পাঁচ বছর ধরে বিজেপি সরকার শুধু মিথ্যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। এই সরকার চাকরি নিয়ে, নিয়োগ নিয়ে শুধু বিভ্রান্তি ছড়িয়েছে। তাই সরকারকে তাড়ানো প্রয়োজন।

UP election 2022: ভোট প্রচারে বিজেপির হাতিয়ার হিন্দুত্ব ও মেরুকরণ, অখিলেশের রুটিরুজি
Uttar Pradesh: নির্বাচনের আগে দল ছাড়লেন এক মন্ত্রী, ৩ জন বিধায়ক, হঠাৎ ব্যাকফুটে যোগী সরকার

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in