Goa: বাড়ছে সংকট - মন্ত্রী লোবোর ইস্তফার ধাক্কা সামলানোর আগেই আরও এক বিজেপি বিধায়কের পদত্যাগ

রাজ্যের বিধায়ক এবং মন্ত্রী মাইকেল লোবোর পদত্যাগের কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই দ্বিতীয় বিধায়ক হারালো বিজেপি গোয়া। মাইকেল লোবোর পথ অনুসরণ করে প্রায় একই অভিযোগ তুলে এদিন পদত্যাগ করলেন প্রবীণ জান্তে।
Goa: বাড়ছে সংকট - মন্ত্রী লোবোর ইস্তফার ধাক্কা সামলানোর আগেই আরও এক বিজেপি বিধায়কের পদত্যাগ
গোয়ার বিজেপি বিধায়ক প্রবীণ জান্তেফাইল চিত্র - সংগৃহীত

রাজ্যের বিধায়ক এবং মন্ত্রী মাইকেল লোবোর পদত্যাগের কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই দ্বিতীয় বিধায়ক হারালো বিজেপি গোয়া। মাইকেল লোবোর পথ অনুসরণ করে প্রায় একই অভিযোগ তুলে এদিন পদত্যাগ করলেন প্রবীণ জান্তে। যিনি মায়েম কেন্দ্রের বিধায়ক ছিলেন। তিনি বিধায়ক পদ এবং বিজেপি থেকে এদিন ইস্তফা দিয়েছেন।

বিজেপি নেতৃত্বাধীন সরকারে বন্দর মন্ত্রী মাইকেল লোবো মন্ত্রী, বিধায়ক এবং দল থেকে পদত্যাগ করার কয়েক ঘন্টা পরেই এই পদত্যাগের ঘটনা সামনে আসে। দল থেকে পদত্যাগ করার পর জান্তে সাংবাদিকদের জানান, "প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মনোহর পারিকরের কথায় এবং আশ্বাসে আমি যে দলে যোগ দিয়েছিলাম আজ বিজেপি আর সেই দল নেই।" জান্তে জানিয়েছেন, তিনি শীঘ্রই মহারাষ্ট্রবাদী গোমান্তক পার্টিতে যোগ দেবেন।

এর আগে সোমবার, বিজেপি থেকে ইস্তফা দেবার পর লোবো বলেছিলেন যে তিনি মন্ত্রীত্ব এবং বিজেপি থেকে পদত্যাগ করছেন, কারণ দলের নেতৃত্ব বর্তমানে তৃণমূল স্তরের কর্মীদের গুরুত্ব দেন না।

লোবো বলেন, "বিজেপির সাথে বেশ ভাল, দীর্ঘ সময় কাটিয়েছি। কিন্তু এখন বিজেপি কর্মীরা দলের উপর অসন্তুষ্ট। হয়তো আমি ভুল। কিন্তু এর সবটাই আমি নিজের চোখে দেখেছি, নিজের কানে শুনেছি। পর্রিকরের মৃত্যুর পর দল ভিন্নভাবে কাজ করতে শুরু করে।

তিনি আরও বলেন, "অন্যান্য নির্বাচনী এলাকার দলীয় কর্মীরা আমাকে বলেছে দল এখন এত বড় হয়ে গেছে যে নীচুতলার কর্মীদের দিকে আর তাকায় না। নতুন নেতা নিয়ে আসে এবং তাদের আমাদের উপরে চাপিয়ে দেয়... আমরা তৃণমূল স্তরের কর্মী। আমরা অবহেলিত, আমাদের কোণঠাসা করে দেওয়া হচ্চে।"

একই দিনে পরপর দুই পদত্যাগের প্রতিক্রিয়া জানিয়ে, বিজেপি একটি আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে জানিয়েছে, যারা নির্বাচনের আগে দল ছেড়েছে তারা "নিহিত স্বার্থ" মাথায় রেখে এটি করেছে। বিজেপি ওই বিবৃতিতে আরও জানিয়েছে, তাদের সহানুভূতি অর্জনের জন্য প্রয়াত মনোহর পর্রিকরের নাম ব্যবহার করা উচিত নয়।

গোয়া বিজেপির মুখপাত্র হেমন্ত গোলাতকর ওই বিবৃতিতে জানান, "বিজেপি শ্রী পর্রিকরের উত্তরাধিকারের সাথে আপস করেছে এমন বিভ্রান্তিকর বিবৃতিগুলি ব্যবহার করে তাঁরা নিজেদের কাজ আড়াল করতে চাইছেন। এছাড়া আর কিছুই নয়। এঁরা নির্বাচনের ঠিক আগে, নিজেদের স্বার্থের জন্য বিজেপি থেকে সরে এসেছেন এবং সহানুভূতি পাওয়ার জন্য শ্রী পর্রিকরকে অজুহাত হিসাবে ব্যবহার করছেন। যা উচিৎ নয়।”

সাম্প্রতিক সময়ে গোয়া বিধানসভা থেকে লোবো, জান্তে, কার্লোস আলমেদা এবং প্রাক্তন বনমন্ত্রী আলিনা সালদানহা - চার বিজেপি বিধায়ক পদত্যাগ করেছেন।

গোয়ার বিজেপি বিধায়ক প্রবীণ জান্তে
Goa: বিজেপির সঙ্গে সম্পর্ক ছেদ - নির্বাচনের মুখে মন্ত্রিত্ব ও বিধায়ক পদ ছাড়লেন মাইকেল লোবো

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in