Assembly Poll 2022: ৫ রাজ্যের ভোটের আগেই প্রার্থীদের খরচের ঊর্ধ্বসীমা কয়েক লাখ বাড়ালো কমিশন

লোকসভা নির্বাচনে এবার থেকে প্রার্থীরা সর্বোচ্চ ৯৫ লাখ টাকা খরচ করতে পারবে। আগে যা ছিল ৭০ লাখ টাকা। বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থীদের ব‍্যয়ের ঊর্ধ্বসীমা ২৮ লাখ থেকে বেড়ে হয়েছে ৪০ লাখ।
Assembly Poll 2022: ৫ রাজ্যের ভোটের আগেই প্রার্থীদের খরচের ঊর্ধ্বসীমা কয়েক লাখ বাড়ালো কমিশন
অমিত শাহফাইল চিত্র - সংগৃহীত

পাঁচ রাজ‍্যে বিধানসভা নির্বাচনের আগেই প্রার্থীদের জন্য খরচের ঊর্ধ্বসীমা কয়েক লক্ষ টাকা বাড়ালো নির্বাচন কমিশন। পোল প‍্যানেলের সুপারিশের ভিত্তিতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

কমিশনের নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, লোকসভা নির্বাচনে এবার থেকে প্রার্থীরা সর্বোচ্চ ৯৫ লক্ষ টাকা খরচ করতে পারবে। আগে যা ছিল ৭০ লক্ষ টাকা। বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থীদের ব‍্যয়ের ঊর্ধ্বসীমা ২৮ লক্ষ থেকে বেড়ে হয়েছে ৪০ লক্ষ।

দীর্ঘদিন ধরেই রাজনৈতিক দলগুলো নির্বাচনী খরচ বাড়ানোর দাবি জানিয়ে আসছে কমিশনের কাছে। তাদের দাবিগুলো স্টাডি করার জন্য একটি কমিটি গঠন করে ইলেকশন কমিশন। কমিটির সদস্যরা দেশের রাজনৈতিক দল, নির্বাচনী কর্তাদের সাথে ব‍্যয় নিয়ে আলোচনা করেন। এরপরই বাজার দরের প্রেক্ষিতে কমিশনের কাছে প্রার্থীদের ব‍্যয়ের ঊর্ধ্বসীমা বাড়ানোর সুপারিশ করে কমিটিটি। সেই সুপারিশের ভিত্তিতেই বাড়ানো হয়েছে ব‍্যয়ের ঊর্ধ্বসীমা।

কমিশনের তরফ থেকে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, রাজনৈতিক দলগুলোর দাবির পরিপ্রেক্ষিতে প্রার্থীদের জন্য বিদ‍্যমান নির্বাচনী ব‍্যয়ের সীমা বাড়ানো হলো। ২০১৪ সাল থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত ভোটারদের সংখ্যা ৮৩৪ মিলিয়ন থেকে ৯৩৬ মিলিয়ন (১২.২৩ শতাংশ) বেড়েছে। ব‍্যয় বেড়েছে ৩২.০৮ শতাংশ। তাই প্রার্থীদের জন‍্য নির্বাচনী ব‍্যয় বাড়ানোর সুপারিশ করেছিল কমিটি। কমিশন সেই সুপারিশ গ্রহণ করেছে।

চলতি বছরে যে পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন (গোয়া, উত্তরাখণ্ড, উত্তরপ্রদেশ, মণিপুর, পাঞ্জাব) অনুষ্ঠিত হবে, সেখানেও কমিশনের এই নতুন ঘোষণা কার্যকর হবে। ছোট রাজ‍্যগুলির বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থীরা সর্বোচ্চ ২৮ লক্ষ টাকা ব‍্যয় করতে পারবেন, আগে যা ছিল ২০ লক্ষ টাকা।

অমিত শাহ
পাঞ্জাবের স্টেট আইকন হিসেবে সোনু সুদের নিয়োগ বাতিল নির্বাচন কমিশনের, চান্নি ঘনিষ্ঠতাই কারণ?
অমিত শাহ
Survey: পাঁচ ভোটমুখী রাজ্যের ৩১.৮% কেন্দ্রীয় সরকারের কাজে সন্তুষ্ট নন - সমীক্ষা

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in