La Liga: এলচের বিরুদ্ধে স্বস্তির জয় বার্সেলোনার
বার্সেলোনা বনাম এলচেছবি বার্সেলোনা এফসির ট্যুইটার হ্যান্ডেলের সৌজন্যে

La Liga: এলচের বিরুদ্ধে স্বস্তির জয় বার্সেলোনার

এদিন ম্যাচের ২০ মিনিটেই ২-০ গোলে এগিয়ে গেলেও দ্বিতীয়ার্ধে এলচে সমতা ফিরে পাওয়ার চাপে পড়ে বার্সেলোনা। অবশেষে নিকোলাস গঞ্জালেজের গোলে তিন পয়েন্ট অর্জন করতে সক্ষম হয় কাতালান ক্লাবটি।

টান টান উত্তেজনার ম্যাচে এলচেকে হারিয়ে স্বস্তির জয় পেয়েছে জাভি হার্নান্দেজের বার্সেলোনা। এদিন ম্যাচের ২০ মিনিটেই ২-০ গোলে এগিয়ে গেলেও দ্বিতীয়ার্ধে এলচে সমতা ফিরে পাওয়ার চাপে পড়ে বার্সেলোনা। অবশেষে নিকোলাস গঞ্জালেজের গোলে তিন পয়েন্ট অর্জন করতে সক্ষম হয় কাতালান ক্লাবটি। তবে জয় এলেও লীগ টেবিলের সপ্তম স্থানেই রইলো তারা। অন্যদিকে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদকে ২-১ গোলে হারিয়ে লীগ টেবিলের দ্বিতীয় স্থান মজবুত করেছে সেভিয়া। ম্যাচ হেরে শীর্ষ চার থেকে ছিটকে পঞ্চম স্থানে নেমে এসেছেন দিয়েগো সিমিওনেরা।

ক্যাম্প ন্যূতে এদিন প্রথমার্ধের ১৬ মিনিটে এবং ১৯ মিনিটে গোল করে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। প্রথম গোলটি করেন ফেরান জুগলা এবং দ্বিতীয়টি করেন গাভি। প্রথমার্ধে এই লীড বজায় রাখলেও দ্বিতীয়ার্ধে খেই হারিয়ে বসে কাতালান জায়ান্টরা। ৬২ মিনিটে জোসে মোরেন্তে এবং ৬৩ মিনিটে পেরে মিল্লার ঝড়ে সমতা ফিরে পায় এলচে। আবারও পয়েন্ট খোয়ানোর ভয়ে ধুঁকতে থাকা বার্সেলোনার হয়ে ম্যাচের ৮৫ মিনিটে ত্রাতা হয়ে ওঠেন নিকোলাস গঞ্জালেজ। গাভির বাড়ানো পাস থেকে গোল করে দলকে স্বস্তির জয় এনে দেন তিনি।

অন্যদিকে লা লিগায় দুরন্ত ছন্দে থাকা সেভিয়া নিজেদের ঘরের মাঠে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদকে হারালো ২-১ গোলে। এই ম্যাচের শুরুতেই ইভান রাকিটিচের গোলে এগিয়ে যায় সেভিয়া। ৩৩ মিনিটে ফিলেপের গোলে অ্যাটলেটিকো সমতা ফিরে পেলেও ৮৮ মিনিটে লুকাস ওকোম্পাসের গোলে জয় নিশ্চিত করে সেভিয়া।

বর্তমানে লা লিগার লীগ টেবিলের শীর্ষে রয়েছে রিয়েল মাদ্রিদ। ১৭ ম্যাচে ৪২ পয়েন্ট তাদের। দ্বিতীয় স্থানে থাকা সেভিয়ার পয়েন্ট ১৭ ম্যাচে ৩৭। অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ রয়েছে পঞ্চম স্থানে। ১৭ ম্যাচে ২৯ পয়েন্ট দিয়েগো সিমিওনেদের। ১৭ ম্যাচে ২৭ পয়েন্ট নিয়ে সপ্তম স্থানে বার্সেলোনা।

বার্সেলোনা বনাম এলচে
P T Usha: ফ্ল্যাট নিয়ে প্রতারণার অভিযোগে পি টি ঊষা সহ ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in