ভারতীয় ফুটবলে শোকের ছায়া, প্রয়াত তিন প্রধানের হয়ে দাপিয়ে খেলা নরিন্দর থাপা

পাঞ্জাবের বাসিন্দা হলেও কলকাতায় এসে ফুটবল ময়দান কাঁপাতে থাকেন নরিন্দর। তিন প্রধান মোহনবাগান, ইস্টবেঙ্গল এবং মহামেডানের হয়ে খেলেছেন। দেশের জার্সিতেও তিনি ছিলেন উজ্জ্বল মুখ।
নরিন্দর থাপা
নরিন্দর থাপাগ্রাফিক্স - সুমিত্রা নন্দন

ময়দানে ফের শোকের ছায়া। প্রয়াত হলেন তিন প্রধানের হয়ে দাপিয়ে বেড়ানো নরিন্দর থাপা। ৬০-এর গণ্ডি পেরানোর আগেই বৃহস্পতিবার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হলেন তিনি। নরিন্দরের মৃত্যুতে ভারতীয় ফুটবল জগতে নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

পাঞ্জাবের বাসিন্দা হলেও কলকাতায় এসে ফুটবল ময়দান কাঁপাতে থাকেন নরিন্দর। তিন প্রধান মোহনবাগান, ইস্টবেঙ্গল এবং মহামেডানের হয়ে খেলেছেন। দেশের জার্সিতেও তিনি ছিলেন উজ্জ্বল মুখ। ১৯৮৬ সালে বাংলাকে সন্তোষ ট্রফি জেতানোর পাশাপাশি তাঁর ঝুলিতে রয়েছে আইএফএ শিল্ড, রোভার্স কাপ, ফেডারেশন কাপের মতো শিরোপা।

১৯৮৩ সালে দেশের জার্সিতে অভিষেক ঘটে নরিন্দরের। জাতীয় দলের হয়ে খেলেছেন ২৯ টি ম্যাচ। গোল করেছেন তিনটি। দেশের জার্সিতে তাঁর কেরিয়ারের অন্যতম সেরা মুহূর্ত গ্রেট ওয়াল কাপে আলজিরিয়ার বিরুদ্ধে একমাত্র গোল। ফুটবল মাঠে লড়াকু মানসিকতার নরিন্দর জীবনযুদ্ধে হার মানলেন ৬০-পেরোনোর আগেই।

তারকা ফুটবলারের মৃত্যুতে শোকজ্ঞাপন করেছে সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশন। ফেডারেশনের সচিব সুনন্দ ধর বলেন, "উনি আমাদের মধ্যে নেই এটা জানতে পেরে ভীষণ খারাপ লাগছে। উনি নিজের সময়ে জাতীয় দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ছিলেন। একাধিক প্রজন্মকে উদ্বুদ্ধ করা এই তারকার ভারতীয় ফুটবলে অবদান ভোলার নয়। ওনার আত্মার শান্তি কামনা করি।"

নরিন্দর থাপা
থাইল্যান্ডের মাটিতে স্বপ্নপূরণ বঙ্গতনয়ার, এশিয়ান যোগা চ্যাম্পিয়নশিপে ৪ পদক জয় সিঙ্গুরের নেহার

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in