FIFA World Cup 22: পরিবেশবান্ধব হওয়ায় মিলেছে 'ফাইভ স্টার'! একনজরে দেখুন কাতারের এই স্টেডিয়াম

বিশ্বকাপের মোট ৮টি ম্যাচ এই স্টেডিয়ামেই হবে। বিশ্বকাপ শেষে স্টেডিয়ামের উপরের অংশ খুলে ফেলা হবে। আর আসন সংখ্যা কমিয়ে ২০ হাজার করা হবে।
এডুকেশন সিটি স্টেডিয়াম
এডুকেশন সিটি স্টেডিয়ামছবি - সংগৃহীত

কাতার বিশ্বকাপের অন্যতম স্টেডিয়াম ‘এডুকেশন সিটি স্টেডিয়াম’। এই স্টেডিয়ামটি লুসালি স্টেডিয়ামের মতো ফাইভ স্টার পেয়েছে। পরিবেশ বান্ধব স্টেডিয়াম হিসেবেও বিশ্ববাসীর নজর কেড়েছে সেন্ট্রাল দোহা থেকে ৭ কিমি উত্তর-পশ্চিমে অবস্থিত এই স্টেডিয়ামটি।

বিশ্বকাপের জন্য এই স্টেডিয়াম তৈরির কাজ শুরু হয় ২০১৬ সাল থেকে। এডুকেশন সিটি স্টেডিয়াম তৈরি করেছে JPAC JV ও ব্রিটিশ সংস্থা Buro Happold। একসংস্থা স্টেডিয়ামের বাইরের হিরের ডিজাইন করেছে। বাকি অংশের ডিজাইন করেছে অন্য একটি সংস্থা। স্টেডিয়ামের নকশা প্রাচীন ইসলামিক স্থাপত্যের প্রতি বিশেষ সম্মান প্রদর্শন করে। সূর্যের আলো একবার পড়লে বাইরে থেকে মনে হবে বৃহদাকৃতির একটি হিরে। রাতের বেলা রঙিন আলো স্টেডিয়ামের সৌন্দর্য্য আরও বাড়িয়ে তোলে।

একসাথে ৪০ হাজার দর্শক বসে ফুটবল বিশ্বকাপের ম্যাচ দেখতে পারবেন। স্টেডিয়ামের ২০% জায়গা সবুজ করা হয়েছে পৃথিবীকে পরিবেশ সচেতনতার বার্তা দেওয়ার জন্য। এই উদ্যোগে Global Sustainability Assessment System (GSAS)-র তরফ থেকে ফাইভ স্টারও পেয়েছে এডুকেশন সিটি স্টেডিয়াম। দর্শক ও খেলোয়াড়দের কথা ভেবে স্টেডিয়ামের ভিতর অত্যাধুনিক কুলিং পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়েছে।

বিশ্বকাপ শেষে স্টেডিয়ামের উপরের অংশ খুলে ফেলা হবে। আর আসন সংখ্যা কমিয়ে ২০ হাজার করা হবে। অতিরিক্ত সিটগুলি তুলনামূলক কম উন্নত দেশগুলির ক্রীড়াক্ষেত্রে ব্যবহৃত হবে। স্থানীয়দের জন্য আরও খেলার সরঞ্জাম যুক্ত করা হবে স্টেডিয়ামের আশেপাশে।

২০২১ ফিফা আরব কাপ অনুষ্ঠিত হয়েছিল এই স্টেডিয়ামেই। সৌদি আরব, জর্ডান, ওমান, কাতার, প্যালেস্টাইন, লেবানন, সুদান ও তিউনিসিয়ার মোট ৫টি ম্যাচ আয়োজনের দায়িত্ব পেয়েছিল এডুকেশন সিটি।

বিশ্বকাপের মোট ৮টি ম্যাচ এই স্টেডিয়ামেই হবে। প্রথম ম্যাচ হবে ডেনমার্ক বনাম তিউনিসিয়া (২২ নভেম্বর)। দ্বিতীয় ম্যাচ হবে উরুগুয়ে ও দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যে (২৪ নভেম্বর)। পোল্যান্ড ও সৌদি আরবের মধ্যে তৃতীয় ম্যাচ হবে ২৬ নভেম্বর। এই স্টেডিয়ামে চতুর্থ ম্যাচ হবে দক্ষিণ কোরিয়া বনাম ঘানা (২৮ নভেম্বর)। পঞ্চম ম্যাচ খেলবে তিউনিসিয়া ও গতবারের চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স (৩০ নভেম্বর)। দক্ষিণ কোরিয়া ও পর্তুগাল ষষ্ঠ ম্যাচ খেলবে (২ ডিসেম্বর)। সপ্তম ম্যাচ হবে ৬ ডিসেম্বর, গ্রুপ এফ-র প্রথম ও গ্রুপ ই-র দ্বিতীয়ের মধ্যে। অষ্টম ম্যাচ হবে ৯ ডিসেম্বর (কোয়ার্টার ফাইনাল)।

এডুকেশন সিটি স্টেডিয়াম
ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড তাঁর সাথে 'বিশ্বাসঘাতকতা' করছে, ক্ষোভ উগরে দিলেন রোনাল্ডো

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in