FIFA World Cup 22: পাওলো রসি থেকে লুকা মড্রিচ, বিশ্বকাপের 'গোল্ডেন বল' উঠেছে যাদের হাতে

খেতাব জয়ের পাশাপাশি টুর্নামেন্ট সেরার পুরস্কার 'গোল্ডেন বল' জয়ের দৌড়েও লড়াই চালাবেন মেসি, রোনাল্ডো, নেইমার থেকে শুরু করে কিলিয়ান এমবাপ্পে, করিম বেনজেমারা।
লুকা মড্রিচ , মেসি
লুকা মড্রিচ , মেসিফাইল চিত্র

আর মাত্র সাত দিনের অপেক্ষা। তারপরেই কাতারে ফুটবলের বিশ্বযুদ্ধ। বিশ্বকাপের জন্য দল ঘোষণা করছে অংশগ্রহণকারী দেশ গুলি। শিরোপা জয়ের জন্য ঝাঁপাতে প্রস্তুত ৩২ টি দেশ। খেতাব জয়ের পাশাপাশি টুর্নামেন্ট সেরার পুরস্কার 'গোল্ডেন বল' জয়ের দৌড়েও লড়াই চালাবেন মেসি, রোনাল্ডো, নেইমার থেকে শুরু করে কিলিয়ান এমবাপ্পে, করিম বেনজেমারা। ১৯৮২ সাল থেকে শুরু হয় গোল্ডেন বলের প্রচলন। ইতালির পাওলো রসি থেকে শুরু করে ক্রোয়েশিয়ার লুকা মড্রিচ, এই পুরস্কার সাজিয়েছেন নিজেদের শোকেসে। বিশ্বকাপের পর্দা ওঠার আগে দেখে নেওয়া যাক বিশ্বকাপের ইতিহাসে 'গোল্ডেন বল' জয়ী মহাতারকাদের-

পাওলো রসি
পাওলো রসিফাইল চিত্র - সংগৃহীত

(১) ১৯৮২: পাওলো রসি, ইতালি

 স্পেন বিশ্বকাপেই শুরু হয় 'গোল্ডেন বল' পুরস্কারের। ইতালির লিজেন্ড পাওলো রসি প্রথম এই পুরস্কার জেতেন। ইতালি ওই বছর নিজেদের তৃতীয় বিশ্বকাপ জেতেন। আর টুর্নামেন্টে রসি করেন মোট ছয় গোল।

দিয়েগো মারাদোনা
দিয়েগো মারাদোনাফাইল চিত্র - সংগৃহীত

(২) ১৯৮৬: দিয়েগো মারাদোনা, আর্জেন্টিনা

 'ফুটবলের ঈশ্বর' খ্যাত দিয়াগো মারাদোনা ১৯৮৬ বিশ্বকাপে গোল্ডেন বল জেতেন। আর্জেন্টিনা জেতে দ্বিতীয় বিশ্বকাপ। পুরো টুর্নামেন্টে মোট পাঁচ গোল করেন মারাদোনা।

সালভাতর শিলাচি
সালভাতর শিলাচিফাইল চিত্র - সংগৃহীত

(৩) ১৯৯০: সালভাতর শিলাচি, ইতালি

 মারাদোনা, লুথার ম্যাথাউসদের পেছনে ফেলে ইতালি বিশ্বকাপের গোল্ডেন বল হাতে তুলেছিলেন সালভাতর শিলাচি। পুরো টুর্নামেন্টে শিলাচি গোল করেছিলেন ৬ টি। মজার বিষয় হলো সালভাতর শিলাচির আন্তর্জাতিক গোলের সংখ্যা মাত্র ৭টি। যার মধ্যে ৬ টি গোল তিনি এই বিশ্বকাপেই করেন।

রোমারিও
রোমারিওফাইল চিত্র - সংগৃহীত

(৪) ১৯৯৪: রোমারিও, ব্রাজিল

যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বকাপে ব্রাজিলের খেতাব জয়ের অন্যতম প্রধান নায়ক ছিলেন রোমারিও। পুরো আসরে মোট ছয় গোল করে ব্রাজিলকে শিরোপা জেতাতে বড় ভূমিকা রাখেন তিনি। ফলস্বরূপ রবার্টো ব্যাজিওকে পেছনে ফেলে গোল্ডেন বল জিতে নেন তিনি।

রোনাল্ডো
রোনাল্ডোফাইল চিত্র - সংগৃহীত

(৫) ১৯৯৮: রোনাল্ডো, ব্রাজিল

 ফাইনালে ৩-০ গোলে ফ্রান্সের কাছে হেরে যাওয়ার পরেও ব্রাজিলিয়ান মহাতারকা রোনাল্ডো ফ্রান্স বিশ্বকাপে টুর্নামেন্ট সেরার পুরস্কার জেতেন। রোনাল্ডো টুর্নামেন্টে মোট চার গোল করেন।

অলিভার কান
অলিভার কানফাইল চিত্র - সংগৃহীত

(৬) ২০০২: অলিভার কান, জার্মানি

 ভাঙাচোরা জার্মান দলকে টেনে তুলেছিলেন ফাইনালে। গোলবারের নীচে অলিভার কান হয়ে উঠেছিলেন দুর্ভেদ্য প্রাচীর। যদিও রোনাল্ডোর গোলে ফাইনালে শিরোপা জয়ের স্বপ্ন ভঙ্গ হয় কানের। ব্রাজিল জেতে নিজেদের পঞ্চম বিশ্বকাপ। টুর্নামেন্টে আট গোল করেও জাপান-কোরিয়া বিশ্বকাপে গোল্ডেন বল জেতা হয়নি রোনাল্ডোর। টুর্নামেন্ট সেরার পুরস্কার ওঠে অলিভার কানের হাতে।

জিনেদিন জিদান
জিনেদিন জিদানফাইল চিত্র - সংগৃহীত

(৭) ২০০৬: জিনেদিন জিদান, ফ্রান্স

 ২০০৬ বিশ্বকাপে গোল্ডেন বল জয়ের লড়াইয়ে জিদানের ধারা কাছে কেউই ছিলেন না। ইতালির কাছে ফাইনাল হারলেও টুর্নামেন্ট জুড়ে আলো জড়িয়েছেন তিনি। মার্কো মাতোরেজ্জির বুকে সেই আঘাতটি না করলে জিদান দেশকে খেতাব জিতিয়েই হয়তো মাঠ ছাড়তেন।

দিয়েগো ফোরল্যান
দিয়েগো ফোরল্যানফাইল চিত্র - সংগৃহীত

(৮) ২০১০: দিয়েগো ফোরল্যান, উরুগুয়ে

 উরুগুয়ের তারকা স্ট্রাইকার দিয়েগো ফোরল্যান ২০১০ বিশ্বকাপে গোল্ডেন বল খেতাব জেতেন। ফোরল্যানের সমান সংখ্যক গোল করেছিলেন জার্মানির টমাস মূলার, নেদারল্যান্ডের ওইয়েসলি স্নাইডার, স্পেনের ডেভিড ভিয়া। মূলার জেতেন গোল্ডেন বুট।

লিওনেল মেসি
লিওনেল মেসিফাইল চিত্র - সংগৃহীত

(৯) ২০১৪: লিওনেল মেসি, আর্জেন্টিনা

 মারিও গোটজে স্বপ্ন ভঙ্গ করেছিলেন লিওনেল মেসির। জয়ের দোরগোড়ায় এসেও রিও ডি জেনেরিও থেকে খালি হাতেই ফিরতে হয় লিওনেল মেসিকে। চতুর্থ বারের মতো ফুটবল বিশ্বকাপ জেতে জার্মানি। এই আসরে ফাইনাল খেলা লিওনেল মেসির হাতে ওঠে গোল্ডেন বল।

লুকা মড্রিচ
লুকা মড্রিচফাইল চিত্র - সংগৃহীত

(১০) ২০১৮: লুকা মড্রিচ, ক্রোয়েশিয়া

 শেষবার রাশিয়া বিশ্বকাপ স্মরণীয় হয়ে থাকবে লুকা মড্রিচ ও তাঁর নেতৃত্বাধীন ক্রোয়েশিয়ার জন্য। ফাইনালে পৌঁছানোটাই ছিল তাঁদের কাছে রূপকথার মতো। ফাইনালে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে হারলেও মড্রিচকে দেওয়া হয় টুর্নামেন্ট সেরার পুরস্কার।

লুকা মড্রিচ , মেসি
FIFA World Cup 22: কাতারের সর্ববৃহৎ স্টেডিয়াম - একসাথে বসে খেলা দেখতে পারবেন ৮০ হাজার দর্শক

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in