FIFA World Cup 22: স্বপ্নভঙ্গ ব্রাজিলের, ক্রোয়েশিয়ার কাছে হেরে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নেইমারদের

ক্রোয়েশিয়ান গোলরক্ষক ডমিনিক লিভাকোভিচ দুর্ভেদ্য প্রাচীর হয়ে দাঁড়ায় নেইমারদের সামনে। যার ফল স্বরূপ খেলা গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। টাইব্রেকারেও সেই লিভাকোভিচের সেভেই সেমির দরজা খুলে গেল ক্রোয়েশিয়ার কাছে।
জয়ের পর উল্লাস ডমিনিক লিভাকোভচের
জয়ের পর উল্লাস ডমিনিক লিভাকোভচেরছবি - ফিফা ওয়ার্ল্ড কাপের ট্যুইটার হ্যান্ডেল

স্বপ্নভঙ্গ হল ব্রাজিলের। কোয়ার্টার ফাইনালে ক্রোয়েশিয়ার কাছে হেরে ষষ্ঠ বিশ্বকাপ জয় অধরাই থেকে গেল। অন্যদিকে পিছিয়ে পড়েও যে বিশ্বকাপ জয়ের আশা বাঁচিয়ে রাখবে লুকা মড্রিচরা তা কেউ কল্পনা করতে পারেনি।

শুক্রবার বিশ্বকাপের প্রথম কোয়ার্টার ফাইনালে ক্রোয়েশিয়ার বিরুদ্ধে নামে নেইমাররা। শুরু থেকেই ভিনিসিয়াস, রিচার্লিসনদের একের পর এক আক্রমণ ধেয়ে আসে ক্রোয়েশিয়ার রক্ষণভাগে। কিন্তু ক্রোয়েশিয়ান গোলরক্ষক ডমিনিক লিভাকোভিচ দুর্ভেদ্য প্রাচীর হয়ে দাঁড়ায় নেইমারদের সামনে। যার ফল স্বরূপ খেলা গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে।

অতিরিক্ত সময়ে কার্যত একক দক্ষতায় ক্রোয়েশিয়ার জালে বল জড়ায় নেইমার। গোল হজমের পরই আহত বাঘের মতো ব্রাজিল ডিফেন্সে বার বার হানা দেয় লুকা মদ্রিচরা। ১১৭ মিনিটের মাথায় ব্রুনো পেটকোভিচের গোলে সমতা ফেরায় ক্রোয়েশিয়া। ১২০ মিনিট পর্যন্ত আর গোলের দেখা মেলেনি।

খেলা গড়ায় টাইব্রেকারে। ব্রাজিলের হয়ে প্রথম শট নেন রদ্রিগো গোজ। আটকে দেন ক্রোয়েশিয়ার গোলরক্ষক। বিশেষজ্ঞদের মতে ব্রাজিলের প্রথম গোলটা মিস হওয়াতেই মানসিক চাপে পড়ে গিয়েছিল গোটা দল। লুকা মড্রিচরা পর পর চারটে শট থেকেই গোল পায়। ৪-২ গোলে জিতে সেমিফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করে জে দালিচের ছেলেরা।

এই নিয়ে পরপর দুটি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে উঠল ক্রোয়েশিয়া। পাশাপাশি বিশ্বকাপের ইতিহাসে এই প্রথমবার ব্রাজিলকে হারাল ক্রোয়েশিয়া। এর আগে ২০০৬ বিশ্বকাপে ব্রাজিলের কাছে তারা ১-০ গোলে হেরেছিল। ২০১৪ বিশ্বকাপেও নেইমারদের কাছেই ৩-১ গোলে হারতে হয় লুকা মড্রিচদের।

ক্রোয়েশিয়ার পরবর্তী খেলা আরেক লাতিন আমেরিকান জায়ান্ট আর্জেন্টিনার সাথে। ভারতীয় সময় ১৪ ডিসেম্বর রাত সাড়ে ১২টায় মুখোমুখি হবে দুই দেশ।

জয়ের পর উল্লাস ডমিনিক লিভাকোভচের
রোনাল্ডোর পাশে দাঁড়িয়ে সংবাদমাধ্যমকে এক হাত নিলেন বিশ্বকাপজয়ী জার্মান তারকা মেসুট ওজিল

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in