Durand Cup: ফ্রেমে থাকতে মরিয়া রাজ্যের ক্রীড়ামন্ত্রী ও রাজ্যপাল - সরিয়ে দেওয়া হল সুনীল, শিবাকে

একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে অরূপ বিশ্বাস বেঙ্গালুরুর আরও এক খেলোয়াড় শিবশক্তিকে শুধুমাত্র ছবি তোলার জন্য পাশে সরিয়ে দিচ্ছেন। রাজ্যের দুই বিশিষ্টজনের এহেন কাজে নেটিজনেরা তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন।
লা গণেশন, সুনীল ছেত্রী, অরুপ বিশ্বাস
লা গণেশন, সুনীল ছেত্রী, অরুপ বিশ্বাসগ্রাফিক্স - সুমিত্রা নন্দন

ডুরান্ডের কাপের ফাইনালে রাজ্যের মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস ও রাজ্যপাল লা গণেশনের ভিডিও রীতিমতো ভাইরাল হয়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে কাপ হাতে নিজেরা ছবি তোলার জন্য ফুটবলারদের হাত দিয়ে দূরে সরিয়ে দিচ্ছে। যা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে তীব্র নিন্দার ঝড় উঠেছে।

১৩১ তম ডুরান্ড কাপের ফাইনাল খেলা ছিল রবিবার অর্থাৎ গতকাল। যুবভারতীতে মুখোমুখি হয় বেঙ্গালুরু এফসি ও মুম্বাই সিটি এফসি। ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে দেখা যায় কাপ হাতে ছবি তুলছেন রাজ্যের ক্রীড়ামন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস, রাজ্যপাল লা গণেশন এবং সুনীল ছেত্রী সহ অন্যান্যরা। সেখান থেকেই শুরু হয় বিতর্ক। হঠাৎ রাজ্যপাল ছবি তোলার জন্য সুনীলকে হাত দিয়ে সরিয়ে দিচ্ছেন।

অন্য একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে অরূপ বিশ্বাস বেঙ্গালুরুর আরও এক খেলোয়াড় শিবশক্তিকে শুধুমাত্র ছবি তোলার জন্য পাশে সরিয়ে দিচ্ছেন। রাজ্যের দুই বিশিষ্টজনের এহেন কাজে নেটিজনেরা তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। যদিও ঐ দুই ভাইরাল ভিডিও-র সত্যতা যাচাই করেনি পিপলস রিপোর্টার।

কেউ কেউ বলেছেন, বাংলার রাজ্যপাল, সুনীল ছেত্রীকে অপমান করেছেন। একজন বলছেন, এনাদের লজ্জা হওয়া উচিত। দিন রাত কষ্ট করে সুনীল ছেত্রীর মতো অভিজ্ঞ খেলোয়াড়রা ট্রফি জিতবেন। আর এইসব রাজনৈতিক নেতারা ছবি তুলতে ব্যস্ত হয়ে যাবেন। আবার কেউ বলেছেন রাজ্যপাল মোদীকে অনুসরণ করেছেন।

উল্লেখ্য, যুবভারতীতে ১৩১ তম ডুরান্ড জিতল প্রবীর দাসরা। মুম্বাইকে ২-১ গোলে হারায় বেঙ্গালুরু। শুরু থেকেই দুই দল কেউ কাউকে এক ইঞ্চিও জমি ছাড়তে রাজী হয়নি। প্রথমার্ধের শুরুতেই ১১ মিনিটের মাথায় ১ গোলে এগিয়ে যায় রয় কৃষ্ণারা। গোল করেন শিবা। ৩০ মিনিটে আপুইয়ার গোলে সমতা ফেরায় মুম্বাই সিটি এফসি। দ্বিতীয়ার্ধের ৬১ মিনিটে গোল করে বেঙ্গালুরুর জয় নিশ্চিত করেন অ্যালান কোস্টা।

লা গণেশন, সুনীল ছেত্রী, অরুপ বিশ্বাস
করোনা আক্রান্ত মহম্মদ শামি, ছিটকে গেলেন অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে আসন্ন টি-টোয়েন্টি সিরিজ থেকে

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in