২০২২ সালে শ্রমিক সংকট প্রসঙ্গে উদ্বেগ প্রকাশ করা সংস্থার সংখ্যা বেড়েছে ২৮% - রিপোর্ট

সোমবার, এক রিপোর্টে জানা গেছে, বিশ্বের একাধিক সংস্থা নিজেদের ত্রৈমাসিক আয় কমার জন্য কর্মচারী ঘাটতির কথা উল্লেখ করেছে। আর ২০২১ সালের তুলনায় এই ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে ২০২২ সালে।
ছবি প্রতীকী
ছবি প্রতীকী ফাইল ছবি সংগৃহীত

একদিকে যখন বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন কোম্পানিতে কর্মী ছাঁটাই শুরু হয়েছে, লাফিয়ে লাফিয়ে বেকারি বাড়ছে এবং চলতি বছর এই ধারা (ছাঁটাই) বৃদ্ধি পেয়েছে, সেই সময়েই এক রিপোর্টে উঠে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য।

সাম্প্রতিক সময়ে প্রকাশিত একাধিক সংস্থার ত্রৈমাসিক রিপোর্টে আয় কমতে দেখা গেছে। যদিও বিশ্বের একাধিক সংস্থা আয় কমার পেছনে কর্মচারী সংকটের কথা উল্লেখ করেছে। তাৎপর্যপূর্ণভাবে ২০২১ সালের তুলনায় ২০২২ সালে প্রায় ২৮ শতাংশ বেশি সংস্থা নিজেদের রিপোর্টে আয় কমার পেছনে কর্মী সংকট-এর কথা জানিয়েছে।

সোমবার, এক রিপোর্টে জানা গেছে, বিশ্বের একাধিক সংস্থা নিজেদের ত্রৈমাসিক আয় কমার জন্য কর্মচারী ঘাটতির কথা উল্লেখ করেছে। আর ২০২১ সালের তুলনায় এই ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে ২০২২ সালে।

গ্লোবালডেটা (GlobalData) নামে এক তথ্য-বিশ্লেষণকারী সংস্থা জানিয়েছে, বিশ্বজুড়ে সবচেয়ে যে বিষয়ে বেশি আলোচনা হয়েছে, তা হল সেমিকন্ডাক্টর এবং সাপ্লাই।

যেসব শিল্পে শ্রম ঘাটতির কথা উল্লেখযোগ্যভাবে উঠে এসেছে, তার মধ্যে আছে - নির্মাণ (construction) শিল্প, প্রযুক্তি (technology) শিল্প, প্যাকেজিং (packaging) এবং উপভোক্তা (consumer) বিভাগ।

তথ্য বিশ্লেষক একতা চৌরাসিয়া (Ekta Chourasia) বলেন, 'শ্রমের এই ঘাটতির জেরে বিভিন্ন শিল্পে ব্যয়বহুল অস্থায়ী শ্রম সম্পদের উপর নির্ভরশীলতা বেড়েছে। এর ফলে কোম্পানির খরচও উল্লেখযোগ্য বৃদ্ধি পেয়েছে। একইসঙ্গে, নির্মাণ কাজেও বিলম্ব হয়েছে।'

মার্কিন প্রযুক্তি কোম্পানি জেনডেস্ক (Zendesk) জানিয়েছে, 'কর্মচারীদের মজুরি এবং বেতন বৃদ্ধির ক্ষেত্রে শ্রমের জোগানে ঘাটতি অন্যতম কারণ। এটি কোম্পানি পরিচালনার বাজেটকে নেতিবাচকভাবে প্রভাবিত করেছে।

প্যাকেজিং কোম্পানি গ্ল্যাটফেল্টার (Glatfelter) জানিয়েছে, কর্মচারী সংকটের জেরে কোম্পানির কাজের মাত্রা হ্রাস পেয়েছে। যা না হলে, কোম্পানি আরও ৯ লক্ষ মার্কিন ডলার লাভবান হওয়ার সুযোগ পেতো।

চৌরাসিয়া জানান, 'মহামারী করোনা পরবর্তীকালে উচ্চ চাহিদার সঙ্গে কর্মচারী সংখ্যা কমেছে। উপকরণ এবং সেমিকন্ডাক্টর চিপগুলির ঘাটতির পাশাপাশি সরবরাহ ক্ষেত্রে সমস্যা তৈরি হয়েছে। এর ফলে, কাঁচামালের দাম এবং মজুরি বৃদ্ধি পেয়েছে। সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে পণ্যের দামও। আর, এটি বিশ্বব্যাপী মুদ্রাস্ফীতির অন্যতম কারণ।'

ছবি প্রতীকী
Jeff Bezos: সামনে আরও বড়ো আর্থিক মন্দা? কী পরামর্শ দিলেন অ্যামাজনের প্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজোস?
ছবি প্রতীকী
পৃথিবীর বুকে জন বিস্ফোরণ! ৮০০ কোটির গ্রহে পরিণত 'নীলগ্রহ', কঠিন ভবিষ্যতের দিকে এগোচ্ছে ভারত

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in