WHO: বৈষম্যের অবসান ঘটাতে পারলে ২০২২-এই মহামারী পরাস্ত হবে - হু প্রধান

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) প্রধান টেড্রোস আধানম ঘেব্রেইসাস বলেছেন, যদি সমস্ত দেশ এর সংক্রমণ রোধে একসাথে কাজ করে তাহলে ২০২২ সালে কোভিড-১৯ মহামারী পরাজিত হবে। এই বিষয়ে তিনি আশাবাদী।
WHO: বৈষম্যের অবসান ঘটাতে পারলে ২০২২-এই মহামারী পরাস্ত হবে - হু প্রধান
ডঃ টেড্রোস আধানম ঘেব্রেইসাসফাইল ছবি, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সৌজন্যে

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) প্রধান টেড্রোস আধানম ঘেব্রেইসাস বলেছেন, যদি সমস্ত দেশ এর সংক্রমণ রোধে একসাথে কাজ করে তাহলে ২০২২ সালে কোভিড-১৯ মহামারী পরাজিত হবে। এই বিষয়ে তিনি আশাবাদী।

বিবিসিতে প্রকাশিত এক প্রতিবেদন অনুসারে নতুন বছরের বিবৃতিতে হু প্রধান "সংকীর্ণ জাতীয়তাবাদ এবং ভ্যাকসিন মজুদ" এর বিরুদ্ধে সতর্ক করেছেন।

আজ থেকে দুবছর আগে অপরিচিত নিউমোনিয়া স্ট্রেন সম্পর্কে প্রথম সতর্ক করেছিলো WHO। এদিন ঘেব্রেইসাস জানিয়েছেন, ভ্যাকসিন বিতরণে অব্যাহত বৈষম্য ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি বাড়িয়ে তুলছে।

তিনি বলেন, "কিছু দেশের সংকীর্ণ জাতীয়তাবাদ এবং ভ্যাকসিনের মজুদ সাম্যাবস্থাকে ক্ষুণ্ন করেছে এবং ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের উত্থানের জন্য আদর্শ পরিস্থিতি তৈরি করেছে। যত দীর্ঘদিন এই বৈষম্য অব্যাহত থাকবে ততদিন এই ভাইরাসের বিকাশের ঝুঁকি তত বেশি এবং ততদিন আমরা একে প্রতিরোধ বা এই বিষয়ে কোনো ভবিষ্যদ্বাণী করতে পারবো না।

তাঁর মতে, "আমরা যদি বৈষম্যের অবসান ঘটাতে পারি তবেই আমরা এই মহামারীকে শেষ করতে পারবো।"

প্রসঙ্গত, ভারতে গত ২৪ ঘন্টায় ২২,৭৭৫ জন কোভিড সংক্রমিত হয়েছেন। যা দৈনিক কোভিড সংক্রমণ সংখ্যায় উল্লেখযোগ্য বৃদ্ধি। এছাড়াও, শেষ ২৪ ঘণ্টায় ৪০৬ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। যার ফলে মোট মৃত্যু সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪,৮১,৪৮৬-তে।

এছাড়াও, সক্রিয় সংক্রমণ এক লাফে ১,০৪,৭৮১ তে পৌঁছেছে, যা দেশের মোট ইতিবাচক সংক্রমণের ০,৩০ শতাংশ।

ইতিমধ্যে, ওমিক্রন সংক্রমণের সংখ্যা সারা দেশে বেড়ে ১,৪৩১ হয়েছে। তবে, মোট সংক্রমিতদের মধ্যে ৪৮৮ জনকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। এখনও অবধি, ২৩ টি রাজ্য থেকে ওমিক্রন সংক্রমণের খবর পাওয়া গেছে।

ডঃ টেড্রোস আধানম ঘেব্রেইসাস
করোনা টিকা নিয়ে বৈষম্যের বিস্ফোরক অভিযোগ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (WHO) প্রধানের

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in