Meta: ফেসবুকের কাছে ব্যবহারকারীর তথ্য চেয়ে ভারত থেকে ৪৫,২৭৫ অনুরোধ - মেটা

ব্যবহারকারী সম্পর্কিত তথ্য চাওয়ায় ভারত আমেরিকার পরেই দ্বিতীয় স্থানে। ভারত সরকারের ইলেকট্রনিক্স এবং তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রকের (MeitY) নির্দেশের ভিত্তিতে সামাজিক মাধ্যমে ৪৪২টি ক্ষেত্রে নিয়ন্ত্রণ করা হয়।
Meta: ফেসবুকের কাছে ব্যবহারকারীর তথ্য চেয়ে ভারত থেকে ৪৫,২৭৫ অনুরোধ - মেটা
ছবি প্রতীকীগ্রাফিক্স সুমিত্রা নন্দন

২০২১ সালের প্রথমার্ধে ভারত থেকে ‘মেটা’কে (পূর্বে ফেসবুক) ৪৫,২৭৫ জন ব্যবহারকারী সম্পর্কিত তথ্য (Data) সরবরাহ করতে বলা হয়েছিলো। ব্যবহারকারী সম্পর্কিত তথ্য চাওয়ার ক্ষেত্রে ভারত আমেরিকার পরেই দ্বিতীয় স্থানে আছে। ওই সময় ভারত সরকারের ইলেকট্রনিক্স এবং তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রকের (MeitY) নির্দেশের ভিত্তিতে সামাজিক মাধ্যমে ভারতের ৪৪২টি ক্ষেত্রে অ্যাক্সেস নিয়ন্ত্রণ করা হয়।

জানা গেছে, তথ্য প্রযুক্তি আইন, ২০০০ এর ধারা 69A লঙ্ঘনের কারণে এই অ্যাক্সেস নিয়ন্ত্রণ করা হয়। যার মধ্যে রাষ্ট্রের নিরাপত্তা এবং জনশৃঙ্খলার বিরুদ্ধ বিষয়বস্তু ছিলো।

মঙ্গলবার মেটার পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয় "আমরা ভারতের নির্বাচন কমিশন থেকে প্রাপ্ত প্রতিবেদনের প্রতিক্রিয়ায় ২২টি ক্ষেত্রের অ্যাক্সেসও নিয়ন্ত্রণ করেছি। এছাড়াও, আমরা অন্যান্য আদালতের আদেশের প্রতিক্রিয়ায় ৬৫টি বিষয় এবং মানহানির ব্যক্তিগত প্রতিবেদনের প্রতিক্রিয়া হিসাবে ছ’টি ক্ষেত্রে অ্যাক্সেস নিয়ন্ত্রিত করেছি।"

জানুয়ারী-জুন ২০২১ পর্যন্ত, Facebook ভারত সরকারের কাছ থেকে মোট ৪৫,২৭৫ টি অনুরোধ (আইনি/জরুরি) পেয়েছে। এর আগের জুলাই-ডিসেম্বর ২০২০ সময়কালে, ভারত সরকারের মোট অনুরোধ ছিল ৪০,৩০০টি।

মেটা আরও জানায় - এছাড়াও ভারত সরকারের পক্ষ থেকে ফেসবুককে ৬৮,৪৮৫ জন ব্যবহারকারীর তথ্য সরবরাহ করার অনুরোধ করা হয়েছিলো, যার মধ্যে ৫১ শতাংশ অনুরোধ পূরণ করা হয়। যদিও কোম্পানির পক্ষ থেকে ভারত সরকার কী ধরণের অনুরোধ জানিয়েছিলো তা প্রকাশ করা হয়নি।

জুলাই-ডিসেম্বর ২০২০ সময়কালে, MeitY-এর নির্দেশের পর সামাজিক মাধ্যমে ভারতে ৮৭৮টি ক্ষেত্রে অ্যাক্সেস নিয়ন্ত্রণ করেছিল।

মেটা এই মাসের শুরুতে জানিয়েছে, গত সেপ্টেম্বর মাসে ভারতে ফেসবুক এবং ইন্সটাগ্রাম থেকে ৩০ মিলিয়নেরও বেশি বিষয়বস্তু সরিয়ে দিয়েছে।

মাসিক কমপ্ল্যায়েন্স রিপোর্টে মেটা জানিয়েছে, তথ্য প্রযুক্তি (ইন্টারমিডিয়ারি গাইডলাইনস অ্যান্ড ডিজিটাল মিডিয়া এথিক্স কোড) বিধি, ২০২১ মেনে ফেসবুকের জন্য ১০টি নীতি মেনে ২৬.৯ মিলিয়ন বিষয়বস্তু এবং Instagram-এর জন্য ৯টি নীতি মেনে ৩.২ মিলিয়ন বিষয়বস্তু উপর ব্যবস্থা নিয়েছে।

২০২১ সালের প্রথম ছয় মাসে, বিশ্বজুড়ে ব্যবহারকারীর ডেটার জন্য সরকারী অনুরোধ বেড়েছে ১০.৫ শতাংশ। যা ১,৯১,০১৩ থেকে পৌঁছে গেছে ২,১১,০৫৫ এ। বিশ্বব্যাপী এই আবেদনের মধ্যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সর্বাধিক সংখ্যক অনুরোধ জমা দেয়। এরপরেই স্থান ভারত, জার্মানি, ফ্রান্স, ব্রাজিল এবং যুক্তরাজ্যের।

মেটা জানিয়েছে, "মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে ২০২১-এর প্রথমার্ধে ৬৩,৬৫৭ টি অনুরোধ করা হয়েছে, যা ২০২০ সালের দ্বিতীয়ার্ধে মোট আবেদনের চেয়ে ৪ শতাংশ বেশি।"

এই সময়ের মধ্যে, স্থানীয় আইনের উপর ভিত্তি করে বিষয়বস্তুর ওপর বিধিনিষেধ আরোপের পরিমাণ বিশ্বব্যাপী ১১ শতাংশ বেড়েছে। ২০২০ সালের দ্বিতীয়ার্ধে যা ছিলো ৪২,৬০৬০ তা ২০২১-এর প্রথমার্ধে ৪৭,৩৬৫ হয়েছে। এই সময় প্রধানত মেক্সিকো, আর্জেন্টিনা, জার্মানি, ইতালি, তাইওয়ান এবং পাকিস্তান থেকে অনুরোধের মাত্রা বেড়েছে।

মেটা জানিয়েছে, "২০২১ সালের প্রথমার্ধে, ১৭টি দেশে মেটা প্রযুক্তির ৬২টি প্রযুক্তিগত সমস্যা শনাক্ত করা হয়েছে। ২০২০ সালের দ্বিতীয়ার্ধে ১৮টি দেশে ৯১টি প্রযুক্তিগত সমস্যা শনাক্ত করা হয়েছিলো।”

(Except for the headline, this story has not been edited by People's Reporter and is translated and published from a syndicated feed.)

ছবি প্রতীকী
নতুন ডিজিটাল নিয়ম অনুসারে Facebook, Instagram মুছল কয়েক মিলিয়ন পোস্ট

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in