Covid-19: অ্যান্টার্কটিকায় বেলজিয়ামের গবেষণা কেন্দ্রে করোনার থাবা, সংক্রমিত ১৫ গবেষক

বেলজিয়ামের এক গবেষণা কেন্দ্রে গবেষকদের সম্পূর্ণ টিকা দেওয়ার পরেও তাঁরা কোভিড-১৯ সংক্রমণের শিকার। ১৪ ডিসেম্বর থেকে, প্রিন্সেস এলিজাবেথ পোলার স্টেশনের ২৫ কর্মীর মধ্যে ১৫ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।
Covid-19: অ্যান্টার্কটিকায় বেলজিয়ামের গবেষণা কেন্দ্রে করোনার থাবা, সংক্রমিত ১৫ গবেষক
অ্যান্টার্কটিকায় বেলজিয়ামের গবেষণা কেন্দ্র প্রিন্সেস এলিজাবেথ পোলার স্টেশনফাইল ছবি পোলার জার্নালের সৌজন্যে

কোভিড-১৯ পৌঁছে গেল অ্যান্টার্কটিকাতেও। বেলজিয়ামের এক গবেষণা কেন্দ্রে গবেষকদের সম্পূর্ণ টিকা দেওয়ার পরেও তাঁরা কোভিড-১৯ সংক্রমণের শিকার হয়েছেন। ১৪ ডিসেম্বর থেকে, প্রিন্সেস এলিজাবেথ পোলার স্টেশনের ২৫ কর্মীদের মধ্যে কমপক্ষে ১৫ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। একথা জানিয়েছে বিবিসি।

আধিকারিকদের মতে, বিশ্বের অন্যতম প্রত্যন্ত অঞ্চলের এই গবেষণা কেন্দ্রে কোভিড-১৯-এর প্রকোপ এখনও পর্যন্ত মৃদু। ইন্টারন্যাশনাল পোলার ফাউন্ডেশনের প্রজেক্ট ম্যানেজার জোসেফ চিক বলেন, "পরিস্থিতি নাটকীয় নয়।"

“যদিও ভাইরাসে আক্রান্ত কর্মীদের নির্দিষ্ট কিছু সদস্যকে আলাদা করে রাখতে অসুবিধা হয়েছে, তবে সামগ্রিকভাবে স্টেশনে আমাদের কাজকে উল্লেখযোগ্যভাবে প্রভাবিত করেনি।

চিক জানিয়েছেন, "স্টেশনের সমস্ত বাসিন্দাকে ১২ জানুয়ারী একটি নির্ধারিত ফ্লাইটে চলে যাওয়ার সুযোগ দেওয়া হয়েছিল। তবে, তারা সবাই থাকতে এবং তাদের কাজ চালিয়ে যাওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেন।"

বেলজিয়ামের দৈনিক লে সোয়ার জানিয়েছে, ১৪ ডিসেম্বর প্রথম পরীক্ষা করা হয়েছিল। এই দল তার সাত দিন আগেই স্টেশনে পৌঁছেছিলো। সংক্রমণে যাদের ইতিবাচক রিপোর্ট আসে তাদের কোয়ারেন্টাইনে রাখা হলেও ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়ে।

সিডনি মর্নিং হেরাল্ড জানিয়েছে, এই অভিযানের আগে ২৫ জন গবেষককে সম্পূর্ণরূপে টিকা দেওয়া হয়েছিল এবং একজনের একটি বুস্টার শটও নেওয়া ছিল। স্টেশনে রওনা হওয়ার আগে, দক্ষিণ আফ্রিকায় উড়ে যাওয়ার দুই ঘন্টা আগে তাদের বেলজিয়ামে পিসিআর পরীক্ষা করা হয়েছিল। যাত্রা শুরুর আগে কেপটাউনে তাঁদের ১০ দিনের জন্য আলাদা করে রাখা হয় এবং আরেকটি পিসিআর পরীক্ষা করা হয়। অ্যান্টার্কটিকার উদ্দেশ্যে রওনা হওয়ার সময় আরও একটি পরীক্ষা এবং তার পাঁচ দিন পরে একটি চূড়ান্ত পরীক্ষা প্রয়োজন ছিল।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অ্যান্টার্কটিকার ওই স্টেশনে দু’জন জরুরি চিকিৎসক রয়েছেন এবং ভাইরাস নির্মূল না হওয়া পর্যন্ত ওই স্টেশনে নতুন গবেষকদের যাওয়া স্থগিত করা হয়েছে।

প্রিন্সেস এলিজাবেথ স্টেশনটি ইন্টারন্যাশনাল পোলার ফাউন্ডেশন দ্বারা পরিচালিত এবং ২০০৯ সালে এই স্টেশন কাজ শুরু করে। রিপোর্ট অনুসারে, গত বছর চিলির বার্নার্ডো ও'হিগিন্স গবেষণা কেন্দ্রে বেশ কয়েকজন সামরিক কর্মী সংক্রামিত হয়েছিলেন। ওইসময় স্টেশনে জরুরি পণ্য পরিষেবা দিতে যাওয়া এক সরবরাহ জাহাজের নাবিকরা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছিলেন।

অ্যান্টার্কটিকায় বেলজিয়ামের গবেষণা কেন্দ্র প্রিন্সেস এলিজাবেথ পোলার স্টেশন
Antarctica: ৪১ তম বৈজ্ঞানিক অভিযানে অ্যান্টার্কটিকায় ৪৮ সদস্যের ভারতীয় দল

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in