WB BJP: 'পুরনো মানুষগুলি ধীরে ধীরে হারিয়ে যাচ্ছে' - রাজ্য নেতৃত্ব নিয়ে মুখ খুললেন অনুপম হাজরা

ফেসবুকের পোস্ট থেকেই স্পষ্ট, বঙ্গ বিজেপির কাজকর্ম মেনে নিতে পারছেন না অনুপম। দলের রাজ্য নেতৃত্বের অহংকারী মনোভাব যে অসন্তোষ বৃদ্ধির অন্যতম কারণ যে, তা স্পষ্ট তাঁর কথাতেই।
WB BJP: 'পুরনো মানুষগুলি ধীরে ধীরে হারিয়ে যাচ্ছে' - রাজ্য নেতৃত্ব নিয়ে মুখ খুললেন অনুপম হাজরা
অনুপম হাজরা ফাইল ছবি সংগৃহীত

বঙ্গ বিজেপিতে এবার সরব হলেন আরেক নেতা। ক'দিন ধরেই নানা ইস্যুতে মুখ খুলছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষ। বিজেপির বর্তমান রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারের বিরুদ্ধেও তিনি কটাক্ষ করেছেন। তারপরে এবার দলীয় নীতি, মনোভাব নিয়ে মুখ খুললেন অনুপম হাজরা

দলীয় নেতৃত্বের অহংকার সর্বনাশ ডাকছে বলে তিনি মনে করেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই মনোভাবই ব্যক্ত করেছেন তিনি। দলের অন্দরে বিদ্রোহের আগুন যে আর ছাইচাপা অবস্থায় নেই, তা যেন প্রতিনিয়তই প্রমাণিত হচ্ছে। মনে করছে রাজনৈতিক মহলও। এই নিয়ে কটাক্ষ করেছে শাসক দলও।

শুক্রবার ফেসবুকে একটি পোস্ট করেছেন বিজেপি নেতা অনুপম হাজরা। ফেসবুকে তিনি লেখেন, ‘আত্ম্‌–অহংকার ছাড়ো, আত্ম বিশ্লেষণ করো.‌.‌.‌ পুরনো মানুষগুলি ধীরে ধীরে হারিয়ে যাচ্ছে, তলিয়ে যাচ্ছে।’‌ একইসঙ্গে লিখেছেন, ‘‌মিলে মিশে করি কাজ, হারি জিতি নাহি লাজ।’‌

ফেসবুকের পোস্ট থেকেই স্পষ্ট, বঙ্গ বিজেপির কাজকর্ম মেনে নিতে পারছেন না অনুপম। দলের রাজ্য নেতৃত্বের অহংকারী মনোভাব যে অসন্তোষ বৃদ্ধির অন্যতম কারণ যে, তা স্পষ্ট তাঁর কথাতেই। সেই কারণেই দলের পুরনো কর্মীরা নিষ্ক্রিয় হয়ে গিয়েছে বলে মনে করছেন তিনি।

অনুপম অবশ্য বিদ্রোহী হয়েও নিজেকে সামলে নিয়েছেন। শেষমেষ তাঁর ফেসবুক বার্তায় সকলকে একসঙ্গে নিয়ে চলার বার্তা দিয়েছেন তিনি। গত লোকসভা নির্বাচনে যে দাপট বিজেপি দেখিয়েছিল, গত বিধানসভা নির্বাচন থেকে তার উল্টো ছবি দেখা যাচ্ছে। একের পর এক উপনির্বাচনে ভরাডুবি হয়েছে বিজেপির। কিন্তু বারবার পরাজয়ের কারণ অনুসন্ধান করতে আত্ম বিশ্লেষণ প্রয়োজন বলে মনে করেন তিনি।

অনুপমের এই টুইট প্রসঙ্গে বিজেপি মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য বলেন, ‘অনুপমের টুইট কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের চোখে পড়েছে। কেন এই পরিস্থিতি সৃষ্টি হচ্ছে, কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব তা ভেবে দেখবে।’‌

অনুপম হাজরা
WB BJP: কোনও যোগ্যতা নেই, তৃণমূলের থেকেও সুবিধা নিয়েছেন, তথাগতকে তীব্র আক্রমণ দিলীপের

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in