Visva Bharati: ‘মান পড়েনি, বাকিরা এগিয়েছে’ - বিশ্বভারতীর অবনমন প্রসঙ্গে উপাচার্যের সাফাই

দেশের ১০০ টি সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় ৯৮ নম্বরে স্থান পেয়েছে বিশ্বভারতী। কবিগুরুর স্মৃতিবিজড়িত বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬৪ নম্বর থেকে সোজা ৯৮ নম্বরে নেমে যাওয়া কার্যত মেনে নিতে পারেনি শিক্ষামহল।
বিদ্যুৎ চক্রবর্তী
বিদ্যুৎ চক্রবর্তীগ্রাফিক্স - সুমিত্রা নন্দন

বিশ্বভারতীর মান কমেনি, অন্যরা এগিয়ে গিয়েছে। ন্যাশনাল ইনস্টিটিউশন র‍্যাঙ্কিং ফ্রেমওয়ার্কের তালিকায় অনেকটাই পিছিয়ে ৯৮ নম্বরে আছে বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়। সেই প্রসঙ্গে এমনটাই জানালেন বিশ্বভারতীর উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী

সম্প্রতি, এনআইআরএফ প্রকাশিত দেশের ১০০ টি সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় ৯৮ নম্বরে স্থান পেয়েছে বিশ্বভারতী। কবিগুরুর স্মৃতিবিজড়িত দেশের একমাত্র এই কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬৪ নম্বর থেকে সোজা ৯৮ নম্বরে নেমে যাওয়া কার্যত মেনে নিতে পারেনি শিক্ষামহল। এমনকি জাতীয় স্তরেও তার যথেষ্ট আলোড়ন পড়েছে। শিক্ষার মানের অবনতি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তনীরাও।

এ প্রসঙ্গেই সোমবার লিপিকা প্রেক্ষাগৃহে এক জরুরি বৈঠক ডেকেছিলেন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। সূত্রের খবর, এই বৈঠকেই বিশ্বভারতীর উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী বলেছেন, "বিশ্বভারতীতে সঙ্গীত ভবন, কলা ভবনের মতো বিভাগে প্রথা মেনে পড়াশোনার চেয়ে সংস্কৃতি চর্চাই বেশি গুরুত্ব পায়। যার জন্য কোনও পয়েন্ট পাওয়া যায় না। ফলে তা র‍্যাঙ্কিং-এ প্রতিফলিত হয় না।"

সূত্র মারফত আরও জানা গেছে, সোমবারের বৈঠকে উপস্থিত বিভিন্ন বিভাগের অধ্যক্ষ এবং আধিকারিকদের প্রশ্নের মুখেও পড়তে হয়েছে উপাচার্যকে। এ প্রসঙ্গে বিশ্বভারতীর অধ্যাপক সংগঠন ভিবিইউএফ-এর সম্পাদক কৌশিক ভট্টাচার্য বলেন, "কাজে বাধা দেওয়া, অপমান করা, সাসপেন্ড করা নিয়ে এ দিন উপাচার্যকে প্রশ্ন করেন অধ্যাপকেরা।"

প্রসঙ্গত, কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান দেশের ১১ টি বিভাগের সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রম তালিকা প্রকাশ করেছেন। এনআইআরএফ-র তালিকা অনুসারে, শিক্ষাক্ষেত্রে দেশের সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে ৪ নম্বরে আছে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়। সেই তালিকাতেই কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থান রয়েছে ৮-এ। প্রথম স্থান অর্জন করেছে ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ সায়েন্স, বেঙ্গালুরু।

তালিকা অনুসারে দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে আছে দিল্লির জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়, জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়। চতুর্থ - যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়, পঞ্চম - অমৃত বিশ্ব বিদ্যাপীঠম, কোয়েম্বাটুর। ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে, বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়, সপ্তম - মণিপাল অ্যাকাডেমি অফ হাইয়ার এডুকেশন, মণিপাল। অষ্টম - কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়, ভেল্লোরের ভেল্লোর ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি অর্জন করেছে নবম স্থান। দশম স্থানে আছে হায়দ্রাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়।

বিদ্যুৎ চক্রবর্তী
NIRF Ranking 2022: ৯৮ নম্বরে বিশ্বভারতী, অবনতি শিক্ষার মানে! নিন্দার ঝড় সোশ্যাল মিডিয়ায়

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in