VHP-র রামনবমীর মিছিলে যেন কোনও বাধা সৃষ্টি না হয়, সহযোগিতা করার নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর

প্রশাসনিক সহযোগিতার কথা স্বীকার করে ভিএইচপির সর্বভারতীয় সভাপতি সচ্চিদানন্দ সিনহা জানান, আগে মিছিল করা নিয়ে প্রশাসনের অনুমতি একটা সমস্যা থেকে যেত। কিন্তু এবার সেধরনের কোনও পরিস্থিতি আসেনি।
VHP-র রামনবমীর মিছিলে যেন কোনও বাধা সৃষ্টি না হয়, সহযোগিতা করার নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর
ফাইল চিত্র -

রামনবমীর মিছিল যাতে নির্বিঘ্নে করতে পারে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ, এবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সেই ব্যবস্থায় করে দিচ্ছেন। আগামীকাল রবিবার রাজ্যজুড়ে ভিএইচপি রামনবমী উপলক্ষে মিছিল করবে। গত বুধবার রাজ্য মন্ত্রীসভার বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন, সেই মিছিলে যেন কোনও বাধা সৃষ্টি না হয়।

বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, রমজান মাস চলছে। এরই মধ্যে পড়ে গিয়েছে রামনবমী। এই উপলক্ষে যে মিছিল করতে চায়, সে করতে পারে। কোনও রকম যেন বাধা না পড়ে, তা প্রশাসনকে দেখার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

প্রশাসনিক সহযোগিতার কথা স্বীকার করে ভিএইচপির সর্বভারতীয় সভাপতি সচ্চিদানন্দ সিনহা জানান, আগে মিছিল করা নিয়ে প্রশাসনের অনুমতি একটা সমস্যা থেকে যেত। কিন্তু এবার সেধরনের কোনও পরিস্থিতি আসেনি। পুলিশকে জানিয়েই বেশিরভাগ জায়গায় শোভাযাত্রার আয়োজন করা হচ্ছে।

এদিকে পুলিশ বালিগঞ্জের সিপিআইএম প্রার্থীর সভা বাতিল করে দিয়েছে সাতবার। পুলিশের অনুমতি নিয়েও গত ১এপ্রিল পাক সার্কাস সেভেন পয়েন্টে নির্ধারিত কর্মসূচি পালন করতে পারেনি এনআরসিসি, সিএএ বিরোধী মঞ্চের সদস্যরা। পুলিশ ২৬ জনকে গ্রেফতার করেছিল। তারা গত সেপ্টেম্বরে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করা বাবুল সুপ্রিয়র বিরোধিতা করে মিছিল করে। বাম প্রার্থীর প্রচারে বাধা দিচ্ছে পুলিশ। অথচ মুখ্যমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন রামনবমীর মিছিল যাতে নির্বিঘ্নে হয়, সেই ব্যবস্থা করতে। দ্বিচারিতার অভিযোগ তুলছে সিপিআই(এম) নেতৃত্ব।

রবিবার কলকাতার বিভিন্ন এলাকায় রামনবমীর মিছিল করবে ভিএইচপি। টালিগঞ্জ মেট্রো স্টেশন থেকে হিন্দুত্ববাদীদের মিছিল শুরু হয়ে শেষ হবে যাদবপুর এইটবি বাসস্ট্যান্ডে। একইভাবে গড়িয়া, রানিকুঠি থেকে রামনবমীর মিছিল আসবে ওই বাসস্ট্যান্ডেই। উত্তর কলকাতার মোহনবাগান লেন থেকে মিছিল করবে তারা। মিছিল যাতে সঠিকভাবে সম্পন্ন হয়, তার জন্য তৎপর থাকবে পুলিশ।

অতীতে এই রামনবমীর মিছিল ঘিরেই আসানসোলে অশান্তি হয়। প্রকাশ্যে অস্ত্র হাতে দেখা গিয়েছিল মিছিলকারীদের। গত দু'বছর কোভিড পরিস্থিতির জন্য ভিএইচপি মিছিল করতে পারেনি। এবার প্রায় হাজারেরও বেশি মিছিল করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।ভিএইচপি নেতার কথায়, ভারত সেবাশ্রম সংঘ, রামকৃষ্ণ মিশনের মতো প্রতিষ্ঠান সরাসরি যোগ দেবে না। কিন্তু তাদের প্রতিনিধিরা অবশ্যই মিছিলে থাকবেন।

VHP-র রামনবমীর মিছিলে যেন কোনও বাধা সৃষ্টি না হয়, সহযোগিতা করার নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর
'রাম মন্দির' আন্দোলন আমাদের স্বাধীনতা সংগ্রামের চেয়ে বড় আন্দোলন, VHP নেতার মন্তব্য

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in