'দিদির সুরক্ষা কবচ' কর্মসূচিতে বিক্ষোভের মুখে শতাব্দী! ছবি তুলেই উঠে গেলেন মাংস ভাত ফেলে

অনেকেই প্রশ্ন তুলছেন তাহলে কি গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরে খেতে বসলেন না তিনি? নাকি শুধুমাত্র ছবি তোলার জন্য খেতে বসেছিলেন? এই বিষয়ে অবশ্য সাংসদ মুখ খোলেননি।
শতাব্দী রায়
শতাব্দী রায়গ্রাফিক্স - সুমিত্রা নন্দন

'দিদির সুরক্ষা কবচ' কর্মসূচিতে গিয়ে গ্রামবাসীদের ক্ষোভের মুখে পড়লেন তৃণমূল সাংসদ শতাব্দী রায়। এমনকি খেতে বসেও কেবল ছবি তুলেই উঠে গেলেন তিনি। সেই ভিডিও ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

শুক্রবার বীরভূমের রামপুরহাটের মাড়গ্রামে যান শতাব্দী রায়। সেখানেই তাঁকে ঘিরে ক্ষোভ উগরে দেন স্থানীয় বাসিন্দারা। তাঁদের মধ্যে বেশিরভাগের অভিযোগ, যোগ্য হওয়া সত্বেও আবাস যোজনার ঘর থেকে শুরু করে বার্ধক্য ভাতা সহ অনেক সরকারি সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হয়েছেন তাঁরা। এমনকি শতাব্দী রায় প্রতিশ্রুতি দেওয়া সত্বেও প্রায় ৬ কিমি রাস্তা সারাইয়ের কাজ এখনও হয়নি। বিক্ষোভকারীদের আরও অভিযোগ, গ্রামের কলগুলি খারাপ হয়ে রয়েছে সেদিকে কেউ নজর দেয় না। দাবি পূরণ না হলে ভোট বয়কট করা হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন গ্রামবাসীরা।

সাংসদ বলেন, সমস্ত অভিযোগ শুনেছি। যাঁরা পাননি সুবিধা, তাঁরা শীঘ্রই পেয়ে যাবেন। কিছু কিছু জায়গায় একটু ভুল হয়েছে। তা দ্রুত সংশোধন করা হবে।

তবে বিতর্ক এখানেই শেষ নয়। স্থানীয় এক তৃণমূল কর্মীর বাড়িতে দুপুরে ভোজনের ব্যবস্থা করা হয়েছিল। সেখানে দেখা যায় শাল পাতায় করে মাটিতে সকলকে খেতে দেওয়া হয়েছে। সেখানে বসে থালা নিয়ে ছবি তুলেই উঠে পড়েন তৃণমূল সাংসদ। অনেকেই প্রশ্ন তুলছেন তাহলে কি গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরে খেতে বসলেন না তিনি? নাকি শুধুমাত্র ছবি তোলার জন্য খেতে বসেছিলেন? এই বিষয়ে অবশ্য সাংসদ মুখ খোলেননি।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার 'দিদির সুরক্ষা কবচ' কর্মসূচিতে গিয়ে বিক্ষোভের মুখে পড়তে হয়েছিল রাজ্যের মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকে। তাঁকে দেখেই ক্ষোভ উগরে দেন গ্রামবাসীদের একাংশ। গ্রামবাসীরা অভিযোগ করেন, বিভিন্ন কাজে পঞ্চায়েতে গেলে বেশিরভাগ সময়ই খালি হাতে ফিরতে হয়। এমনকি পঞ্চায়েতের উপপ্রধান সবার সাথে দুর্ব্যবহার করেন। কারুর কথাই তিনি শুনতে চান না। সূত্রের খবর, যাঁরা বিক্ষোভ দেখিয়েছেন সকলেই তৃণমূল সমর্থক বলেই পরিচিত। পরিস্থিতি সামাল দিতে বিক্ষোভকারীদের সামনে হাতজোড় করে ক্ষমা চাইতে হয় জ্যোতিপ্রিয় মল্লিককে।

শতাব্দী রায়
TET Scam: প্রাথমিকে চাকরি দেওয়ার নামে ১৯.৫ কোটি টাকা তুলেছেন যুব তৃণমূলের রাজ্য সম্পাদক!

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in