TMC: মিথ্যা বয়ানে সই করাতে চাপ দিচ্ছেন মন্ত্রী হুমায়ুন কবীরের স্ত্রী, অভিযোগ আদিবাসী তরুণীর

আগেও পুলিশের কাছে সবিতা অভিযোগ এনেছিলেন রাজ্যের মন্ত্রীর বিরুদ্ধে। কারিগরি শিক্ষা দফতরে অস্থায়ী চাকরি দেওয়া হবে আশ্বাস দিয়ে বাড়িতে রেখে জোর করে পরিচারিকার কাজ করিয়েছেন মন্ত্রী।
TMC: মিথ্যা বয়ানে সই করাতে চাপ দিচ্ছেন মন্ত্রী হুমায়ুন কবীরের স্ত্রী, অভিযোগ আদিবাসী তরুণীর
হুমায়ুন কবীরফাইল চিত্র

বেশকিছু মাস আগে ডেবরার আদিবাসী কন্যা সবিতা লায়েক রাজ্যের কারিগরি শিক্ষামন্ত্রী হুমায়ুন কবীরের বিরুদ্ধে লিখিত মামলা দায়ের করেছিলেন। সম্প্রতি, সেই মামলা প্রত্যাহার করার জন্য হুমায়ুন কবীর -এর স্ত্রী ঐ মেয়েটিকে চাপ দিচ্ছেন বলে পুলিশে অভিযোগ জানান সবিতা।

পুলিশ সুপারের কাছে সবিতা ই-মেলে অভিযোগ করেন, প্রাক্তন আইপিএস হুমায়ুন কবীরের স্ত্রী অনিন্দিতা দাস কবীর ও অন্যান্য তৃণমূল নেতারা তাঁকে ও তার পরিবারের ওপর চাপ সৃষ্টি করছে। গত ৬ মে পুলিশ নিয়োগপত্র দেওয়ার অছিলায় সবিতাকে থানায় তুলে নিয়ে যায়। সেখান থেকেই কোলাঘাটের একটি হোটেলে মা-বাবা সহ তাঁকেও নিয়ে যাওয়া হয়। সেইখানেই মন্ত্রীর স্ত্রী ও অন্যান্য দলীয় নেতারা তাকে মিথ্যা বয়ানে স্বাক্ষর করতে বাধ্য করছেন বলে এমনটাই অভিযোগ তাঁর। তরুণী পুলিশের কাছে পরিবারের নিরাপত্তাও দাবি করেছে বলে সূত্রের খবর।

এর আগেও একবার পুলিশের কাছে সবিতা প্রতারণার অভিযোগ এনেছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী বিরুদ্ধে। তাঁর অভিযোগ, কারিগরি শিক্ষা দফতরে অস্থায়ী চাকরি দেওয়া হবে এমনই আশ্বাস দিয়ে হুমায়ুন তাঁকে নিজের কসবা রাজডাঙার বাড়িতে রেখে জোর করে পরিচারিকার কাজ করিয়েছেন। তাঁর কথায় , ‘ঘর ঝাঁট-মোছা, কাপড় কাচা, বাসন মাজা, তিন-চারটে কুকুরের মল পরিষ্কার—সব কিছুই করতে হত। কাজে সামান্য ভুল হলেই মন্ত্রী ও তাঁর স্ত্রী ‘নিচু জাত’ বলে গালিগালাজ করতেন।’

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, পুলিশকে এই ব্যাপারে জানতে চাইলে তারা বিষয়টি খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছে। তবে রাজ্যের মন্ত্রী সবিতার সব অভিযোগ কার্যত উড়িয়ে দিয়েছেন।অন্যদিকে, দলীয় নেতাদের মধ্যে কেউ কেউ হুমায়ুন কবীরকে নিশানা করেছেন। মন্ত্রীর দাবি তাঁকে কলুষিত করতেই দলের অন্দরে এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

হুমায়ুন কবীর
TMC: চাকরি দেওয়ার নাম করে আদিবাসী তরুণীকে পরিচারিকার কাজ করানোর অভিযোগ মন্ত্রীর বিরুদ্ধে

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.