WB Assembly Vote 21: বিধানসভা ভোটে তৃণমূল খরচ করেছে ১৫৪.২৮ কোটি টাকা

রাজ‍্যে সদ‍্য সমাপ্ত বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি যেখানে ১৫১ কোটি টাকা খরচ করেছে, তৃণমূলের সেখানে ব‍্যয় ১৫৪ কোটিরও বেশি টাকা। প্রচারের বহর দেখেই বোঝা যাচ্ছে দুই দলই ভোটে জিততে মরিয়া ছিল।
WB Assembly Vote 21: বিধানসভা ভোটে তৃণমূল খরচ করেছে ১৫৪.২৮ কোটি টাকা
ফাইল ছবি

বাংলায় ভোটের ফলের মতোই নির্বাচনী প্রচারেও বিজেপিকে টেক্কা দিয়েছে তৃণমূল। রাজ‍্যে সদ‍্য সমাপ্ত বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি যেখানে ১৫১ কোটি টাকা খরচ করেছে, তৃণমূলের সেখানে ব‍্যয় ১৫৪ কোটিরও বেশি টাকা। প্রচারের বহর দেখেই বোঝা যাচ্ছে দুই দলই ভোটে জিততে মরিয়া ছিল।

মে মাসে বাংলা সহ ৫ রাজ‍্যে হওয়া বিধানসভা নির্বাচনে কোন রাজনৈতিক দল কত ব‍্যয় করেছে, কমিশনের কাছে তার হিসেব জমা দিয়েছে। সেই হিসেব অনুযায়ী, পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূল এবার খরচ করেছে ১৫৪ কোটি ২৮ লক্ষ ৮৯ হাজার ৯১৪ টাকা। বিজেপি খরচ করেছে ১৫১ কোটি ১৮ লক্ষ ৬৬ হাজার ৫২১ টাকা‌।

কমিশনের হিসেব অনুযায়ী, পাঁচ রাজ‍্যের নির্বাচনে বিজেপি মোট খরচ করেছে ২৫২ কোটি ২ লক্ষ ৭১ হাজার ৭৫৩ টাকা। এরমধ্যে দখলে থাকা আসাম ও পুদুচেরিতে বিজেপি খরচ করেছে যথাক্রমে ৪৩.৮১ কোটি টাকা এবং ৪.৭৯ কোটি টাকা।তামিলনাড়ুতে কে স্ট্যালিনের নেতৃত্বাধীন DMK তার চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী AIADMK-কে পরাজিত করেছে, সেখানে বিজেপি পেয়েছে মাত্র ২.৬ শতাংশ ভোট। অথচ নির্বাচনী প্রচারের জন্য খরচ করেছে ২২.৯৭ কোটি টাকা। কেরালাতে দ্বিতীয় বারের জন্য আবারও সিপিআইএম নেতৃত্বাধীন এলডিএফ (LDF) ক্ষমতায় এসেছে। সেখানে বিজেপি কোনো আসনই পায়নি। বরং দখলে থাকা একটি আসনও হারিয়েছে। সেখানে বিজেপি নির্বাচনী প্রচারের জন্য খরচ করেছে ২৯.২৪ কোটি টাকা।

পাঁচ রাজ্যের নির্বাচনে দেশের প্রধান বিরোধী কংগ্রেস খরচ করেছে মাত্র ৮৪ কোটি ৯৩ লক্ষ ৬৯ হাজার ৯৮৬ টাকা। দেশের বাকি চার জাতীয় দলের মধ্যে সিপিআইএম খরচ করেছে ৩২ কোটি ৬৪ লক্ষ ৭৯ হাজার ১১২ টাকা, সিপিআইয়ের খরচ হয়েছে ১৩ কোটি ১৯ লক্ষ ৪৭ হাজার ৭৯৭ টাকা। বিএসপি এবং এনসিপি ব‍্যয় করেছে যথাক্রমে ৪.৭০ কোটি টাকা এবং ৭৫ লক্ষ টাকা।

WB Assembly Vote 21: বিধানসভা ভোটে তৃণমূল খরচ করেছে ১৫৪.২৮ কোটি টাকা
'বিজেপির আয় ৫০% বেড়েছে, আপনার কত বাড়লো?': রেকর্ড আয় বৃদ্ধি নিয়ে কটাক্ষ রাহুল গান্ধীর

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in