TMC: অভিজিৎ সরকার মৃত্যু মামলায় দাপুটে তৃণমূল নেতা পরেশ পালকে CBI তলব

অভিজিৎ সরকার হত্যাকান্ডে পরিবারের লোক বারবার দাবি করেছিল তৃণমূলের নেতারা এই ষড়যন্ত্রের সাথে জড়িত আছে। মৃতের দাদাকে বিধায়ক পরেশ পাল ও কাউন্সিলর স্বপন সমাদ্দারের নাম নিতেও শোনা যায়।
TMC: অভিজিৎ সরকার মৃত্যু মামলায় দাপুটে তৃণমূল নেতা পরেশ পালকে CBI তলব
পরেশ পালফাইল চিত্র

কলকাতার কাঁকুড়গাছিতে বিজেপি কর্মী অভিজিৎ সরকারের হত্যাকান্ডে নাম জড়ালো শাসক দলের দাপুটে নেতা পরেশ পাল ও স্বপন সমাদ্দারের। তাঁদের দুজনকে সিজিও কমপ্লেক্সে ডেকে পাঠালো সিবিআই

অভিজিৎ সরকার হত্যাকান্ডে পরিবারের লোক বারবার দাবি করেছিল তৃণমূলের নেতারা এই ষড়যন্ত্রের সাথে জড়িত আছে। মৃতের দাদাকে বিধায়ক পরেশ পাল ও কাউন্সিলর স্বপন সমাদ্দারের নাম নিতেও শোনা যায়।

পরিবার সূত্রে জানা যায় যেসব প্রভাবশালী নেতাদের নাম নেওয়া হচ্ছে তাদের কাউকেই সিবিআই তলব করছে না। তাই গত ১৩ মে সিজিও কমপ্লেক্সের সামনে মৃতের দাদা অভিজিৎ সরকার অনশনে বসেন। তাঁর দাবি ছিল, সিবিআইকে দ্রুত তদন্ত শেষ করে অভিজিৎ সরকারের খুনিদের গ্রেপ্তার করতে হবে। সোমবার তাঁদের সিবিআই দফতরে যাওয়ার নির্দেশ দেন সিবিআই আধিকারিকেরা। তাদের কাছে কাউন্সিলর ও বিধায়কের বিরুদ্ধে বিভিন্ন নথি চাওয়া হয়। সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই পরেশ পাল ও স্বপন সমাদ্দারকে ১৭ মার্চ তলব করল সিবিআই।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ২১ এর বিধানসভা ভোটের ফলপ্রকাশের দিন খুন হতে হয় বিজেপির শ্রমিক সংগঠনের সদস্য অভিজিৎ সরকারকে। ভোট পরবর্তী হিংসা মামলায় তদন্তে এসে এই ঘটনায় ২০ জনের নামে চার্জশীট পেশ করে সিবিআই।

সিবিআই সূত্রে খবর ঐ ২০ জনের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ, প্রমাণ লোপাটের অভিযোগ সহ আরও নানান অভিযোগ আনা হয়। পরিবার সূত্রে জানা যায়, খুনের আগে অভিজিৎ একটি ফেসবুক লাইভও করে। যাতে মৃত্যুর আশঙ্কা প্রকাশ করে ঐ বিজেপি কর্মী।

পরেশ পাল
TMC: মিথ্যা বয়ানে সই করাতে চাপ দিচ্ছেন মন্ত্রী হুমায়ুন কবীরের স্ত্রী, অভিযোগ আদিবাসী তরুণীর

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in