“রাজনীতিকে গ্ল্যামারাইজ করে লাভ নেই, অনেক রক্ত ঝরলেও কেউ পাশে থাকে না” - এবার বেসুরো রূপা

বিজেপির অন্দরের মতে, রূপা একসময়ে রাজ্য বিজেপির সামনের সারিতে ছিলেন। কিন্তু এবারের নির্বাচনে তাঁকে সক্রিয় ভাবে দেখা যায়নি। দল কাজে লাগায়নি তাঁকে।
“রাজনীতিকে গ্ল্যামারাইজ করে লাভ নেই, অনেক রক্ত ঝরলেও কেউ পাশে থাকে না” - এবার বেসুরো রূপা
রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ফাইল চিত্র

পূর্ব বর্ধমানের সাংসদ সুনীল মণ্ডলের পর রূপা গঙ্গোপাধ্যায়। বিজেপিতে বেসুরোদের দল ক্রমশ ভারী হচ্ছে। বিজেপির প্রতি সুনীলের যে মোহভঙ্গ হয়েছে, তা তাঁর কথাতেই স্পষ্ট। এমনকী, যাঁর সঙ্গে বিজেপিতে যাওয়া, সেই শুভেন্দু অধিকারীকেও ফোন করে পাওয়া যায় না বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তিনি।

এক একদিন এক একজন বিধায়ক, সাংসদ, নেতার মুখ খোলায় অস্বস্তি ক্রমশই বাড়ছিল গেরুয়া শিবিরের। এবার সেই অস্বস্তি আরও বাড়ালেন রূপা। সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে তিনি প্রকারান্তরে বুঝিয়ে দিয়েছেন, তাঁকে দলে ঠিক ভাবে কাজে লাগানো হচ্ছে না।

রূপা গঙ্গোপাধ্যায়
‘শুভেন্দু একটাও কথা রাখেননি’ - বেসুরো সুনীল মণ্ডলের আবার তৃণমূলে ফেরা নিয়ে জল্পনা

রূপা সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছেন, 'রাজনীতিকে গ্ল্যামারাইজ করে লাভ নেই। অনেক রক্ত ঝরলেও কেউ পাশে থাকে না।' বিজেপির অন্দরের মতে, রূপা একসময়ে রাজ্য বিজেপির সামনের সারিতে ছিলেন। কিন্তু এবারের নির্বাচনে তাঁকে সক্রিয় ভাবে দেখা যায়নি। দল কাজে লাগায়নি তাঁকে।

রাজ্যসভাতেও গত কয়েক বছর রূপাকে সেভাবে বলতে দেওয়া হয়নি। এসব নিযে তাঁর ক্ষোভ ছিলই। সেই 'উপেক্ষা'র কারণেই রূপা সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন ইঙ্গিতপূর্ণ পোস্ট করেছেন। বিজেপির অন্দরের মতো রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরাও এমনই মনে করছেন।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in