'চাকর বলে ডাক পাই না' - বিজয়া সম্মিলনিতে ব্রাত্য় হয়ে ক্ষুব্ধ তৃণমূল বিধায়ক তাপস চ্যাটার্জী

হয়তো নাচতে বা গাইতে পারি না বলে নিজের বিধানসভা কেন্দ্রেই ব্রাত্য থাকি। তাছাড়া অন্যদের মতো নেত্রীকে কটূক্তিও করতে পারি না। এসব যারা করে তারাই অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত হচ্ছে। নিজেকে অপমানিত বোধ করছি।
তাপস চ্যাটার্জী
তাপস চ্যাটার্জীগ্রাফিক্স - আকাশ নেয়ে

বিজয়া সম্মিলনিতে ডাক না পেয়ে দলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন রাজারাহাট নিউটাউনের তৃণমূল বিধায়ক তাপস চট্টোপাধ্যায়। তিনি বলেন - 'চাকর বলে ডাক পাই না'। তাঁর অভিযোগ - যাঁরা মমতা ব্যানার্জীকে ‘বেগম’ বলেছিলেন তাঁরা আমন্ত্রিত ছিলেন। তাহলে কি আবার সব্যসাচী দত্ত ও তাপস চ্যাটার্জীর গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব প্রকট হচ্ছে? প্রশ্ন উঠছে রাজনৈতিক মহলে।

রাজ্যে পালাবদলের কিছু বছর পর সিপিআইএম ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করেন তাপস চ্যাটার্জী। ২০২১-র নির্বাচনে তৃণমূলের টিকিটে ভোটে জিতে বিধায়কও হন তিনি। কিন্তু নিজের বিধানসভা এলাকাতেই বিজয়ার অনুষ্ঠানে ব্রাত্য থাকলেন তাপসবাবু। ইকো পার্কে মমতা ব্যানার্জীর ডাকে বিজয়া সম্মিলনি অনুষ্ঠান হয়। আশ্চর্যের বিষয় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন না রাজারহাট নিউটাউনের বিধায়ক।

এক সংবাদমাধ্যকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, আমি এই অনুষ্ঠান সম্পর্কে কিছুই জানি না। আমি নিজে আমন্ত্রিত ছিলাম না। গত বছরেও আমকে ডাকা হয়নি। তৎকালীন শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে বিষয়টি জানিয়েও লাভ হয়নি। আমার স্ট্যাটাসের সাথে হয়তো এনাদের (তৃণমূল) মিল হয় না। তাই হয়তো আমাকে ডাকা হয় না।

এছাড়াও তিনি বলেন, "অনুষ্ঠানে এমন কিছু ব্যক্তি গেছেন দেখে মনে হয় আমি তাঁদের মধ্যেও পড়ি না। বিধানসভা ভোটের পরে আমি এখন শুধুই দুষ্টু হয়ে গেছি। রাজারহাট নিউটাউনবাসীর কাছে এটা লজ্জা। সমাজে বাবু আর চাকর শ্রেণী আছে। আমরা চাকর তাই ডাক পাই না। হয়তো নাচতে বা গাইতে পারি না বলে নিজের বিধানসভা কেন্দ্রেই ব্রাত্য থাকি। তাছাড়া অন্যদের মতো নেত্রীকে কটূক্তিও করতে পারি না। এসব যারা করে তারাই অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত হচ্ছে। নিজেকে অপমানিত বোধ করছি।"

উল্লেখ্য, রাজারহাট নিউটাউনেরই প্রাক্তন বিধায়ক সব্যসাচী দত্তের সাথে বর্তমান বিধায়কের সম্পর্ক ‘আদায়-কাঁচকলায়’। একাধিকবার দুই নেতার অনুগামীদের মধ্যে সিন্ডিকেট নিয়ে সংঘর্ষও বাধে। ২০২১-এ সব্যসাচী দত্ত বিধাননগর থেকে বিজেপির টিকিটে ভোটে দাঁড়ান। যদিও পরাজিত হন। ভোটে হারার কিছু মাস পরেই বিধানসভায় গিয়ে ফিরহাদ হাকিমের হাত ধরে ফের তৃণমূলে ফিরে যান। যা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই ক্ষোভ ছিল তাপস চ্যাটার্জীর। বিজয়া সম্মিলনীর অনুষ্ঠান হয়তো সেই ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশের কারণ। আগামীদিনে এই দ্বন্দ্ব ঠিক কোথায় গিয়ে দাঁড়ায় সেটাই দেখার।

তাপস চ্যাটার্জী
Cattle Smuggling: গোরু পাচার কাণ্ডে এবার অনুব্রত মণ্ডলের ভাগ্নের সম্পত্তির দিকেও নজর CBI-র

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in