কংগ্রেস প্রার্থীকে বিবস্ত্র করে মার, থানায় অভিযোগের পরেও নিষ্ক্রিয় পুলিশ, হাইকোর্টে কংগ্রেস
গ্রাফিক্স - নিজস্ব

কংগ্রেস প্রার্থীকে বিবস্ত্র করে মার, থানায় অভিযোগের পরেও নিষ্ক্রিয় পুলিশ, হাইকোর্টে কংগ্রেস

অভিযোগ, রবি সাহা রবিবার রাত সওয়া ১১টা নাগাদ লোহাপট্টি এলাকার একটি দোকানে গেলে একদল লোক তাঁকে ঘিরে গালিগালাজ করে, মাটিতে ফেলে বিবস্ত্র করে মারধর করে।

পুরভোটে ভোট-পরবর্তী সন্ত্রাসের যে ভিডিও ভাইরাল হয়েছে, তাতে দেখা যাচ্ছে ওইদিন রাতে ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের কংগ্রেস প্রার্থীকে মারধর করেছে একদল দুষ্কৃতী। শুধু তাই নয়, রবি সাহা নামে ওই প্রার্থীকে বিবস্ত্র করে মারধর করা হয়েছে বলে অভিযোগ ওঠে। আক্রান্তের নাম রবি সাহা। এই ঘটনায় অভিযোগের তির উঠেছে তৃণমূলের দিকেই।

পাশাপাশি তাঁর স্ত্রী ও মেয়ে থানায় অভিযোগ করলেও পুলিশ সাহায্য করেনি বলে বলে অভিযোগ। পরে সাহায্য করলেও কোনও পদক্ষেপ করেনি। একজন দুষ্কৃতীও ধরা পড়েনি। তাই শেষপর্যন্ত ভোট পরবর্তী সন্ত্রাস ও কংগ্রেস প্রার্থীর আক্রান্ত হওয়ার ঘটনায় হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়ে কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি রাজশেখর মান্থার এজলাসে মামলা দায়ের করে দ্রুত শুনানির আবেদন করেন আইনজীবী কৌস্তভ বাগচী। শুনানি আগামিকাল হতে পারে বলে সূত্রের খবর। তৃণমূল যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

অভিযোগ, রবি সাহা রবিবার রাত সওয়া ১১টা নাগাদ লোহাপট্টি এলাকার একটি দোকানে গেলে একদল লোক তাঁকে ঘিরে গালিগালাজ করে, মাটিতে ফেলে বিবস্ত্র করে মারধর করে। তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আইনজীবী কৌস্তভ বাগচী একটি সংবাদ মাধ্যমকে জানান, এই ঘটনার পরও পুলিশ চুপ।

প্রবল অপমানের পরও নিস্তার নেই। এখন কংগ্রেস প্রার্থী ও তাঁর পরিবারের বাড়িতে থাকাই দুষ্কর হয়ে উঠেছে। পুলিশ শাসক দলের দলদাস হয়ে কাজ করছে। আদালতের হস্তক্ষেপের আবেদন করেছেন।এই হামলার নিন্দা করে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী টুইটে করেছেন, বাংলায় ‘দিদিক্রেসি’-র অকথ্য চেহারা প্রকাশ্যে এল। পুরভোটে দাঁড়ানোয় এই ঘটনা ঘটানো হয়েছে।

কংগ্রেস প্রার্থীকে বিবস্ত্র করে মার, থানায় অভিযোগের পরেও নিষ্ক্রিয় পুলিশ, হাইকোর্টে কংগ্রেস
CPIM: পালে হাওয়া বামেদের, ২য় স্থানে লাল ব্রিগেড, অল্পের জন্য হাতছাড়া বেশকিছু ওয়ার্ড

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in