বিজেপি একদিকে অখন্ড ভারতের কথা বলে, আবার বঙ্গ বিজেপির নেতারা রাজ্য ভাগ করতে চায় - মহঃ সেলিম

তাঁকে বলতে শোনা যায়, আরএসএস-বিজেপি দেশের শ্রমজীবী মেহনতী মানুষের সংগ্রামকে ভুলিয়ে দেওয়ার প্রচেষ্টা করে চলেছে। ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি এই ইতিহাস বিকৃতির বিরুদ্ধে লড়াই জারি রাখবে।
বিজেপি একদিকে অখন্ড ভারতের কথা বলে, আবার বঙ্গ বিজেপির নেতারা রাজ্য ভাগ করতে চায় - মহঃ সেলিম
মহঃ সেলিমছবি - মহঃ সেলিম অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ

মালবাজারের সভা থেকে বিজেপিকে একহাত নিলেন সিপিআইএম রাজ্য সম্পাদক মহম্মদ সেলিম। বিজেপির রাজ্যভাগের ইস্যুকে কটাক্ষের পাশাপাশি রাজ্য সরকারকেও তীব্র আক্রমণ করেন তিনি।

সেলিম এদিন মালবাজারের একসভা থেকে বিজেপিকে আক্রমণ করে বলেন, বিজেপি একদিকে অখন্ড ভারতের কথা বলে আবার অপরদিকে বঙ্গ-বিজেপির নেতারা বারবার রাজ্যভাগের ডাক দেন। যা ভারতীয় সংস্কৃতির বিরুদ্ধে। আরএসএস-বিজেপি চক্রান্ত করে মানুষকে ফাঁদে ফেলার চেষ্টা করছে।

তাঁর বক্তব্য থেকে উঠে আসে ভারতবাসীকে দেওয়া নরেন্দ্র মোদীর ১৫ লক্ষ টাকার মিথ্যা প্রতিশ্রুতির প্রসঙ্গ। দিন দিন দেশে মূল্যবৃদ্ধিতে জর্জরিত সাধারণ মানুষ। এদিকে কেন্দ্র সরকারের কোনও পদক্ষেপ নিতে দেখা যাচ্ছে না। রান্নার গ্যাস থেকে শুরু করে দেশে বেকারত্ব বৃদ্ধি সহ একাধিক বিষয় নিয়ে রাজ্য ও কেন্দ্র দুই সরকারকেই আক্রমন করেন সেলিম।

তাঁকে বলতে শোনা যায়, আরএসএস-বিজেপি দেশের শ্রমজীবী মেহনতী মানুষের সংগ্রামকে ভুলিয়ে দেওয়ার প্রচেষ্টা করে চলেছে। ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি এই ইতিহাস বিকৃতির বিরুদ্ধে লড়াই জারি রাখবে। পাশাপাশি তিনি রাজ্যের শাসক দলকেও আক্রমণ করতে ছাড়েননি। সেলিমকে বলতে শোনা যায়, রাজ্যে লুঠেরাদের রাজত্ব চলছে। মানুষকে বেশী দিন ভয় দেখিয়ে মুখ বন্ধ করে রাখা যাবে না।

সম্প্রতি, মহম্মদ সেলিম সাংবাদিক সম্মেলনে বলতে শোনা গেছে, কেন্দ্রীয় সরকারের নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (CAA) সারা দেশজুড়ে কার্যকর করার ক্ষেত্রে আরএসএস যে পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে তা সর্বতোভাবে সফল করার জন্য বিজেপির পাশাপাশি তৃণমূলেরও সমান ভূমিকা আছে। রাজ্যবাসীর প্রতি সতর্কবার্তা দিয়ে তিনি জানান, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সাথে পরামর্শ করেই সিএএ চালু করার প্রচেষ্টা করছে এ রাজ্যের সরকার। সেলিম আরও বলেন, রাজ্যবাসীকে এই বিপদের হাত থেকে বাঁচাতে হলে জনগণের ঐক্যবদ্ধ লড়াই হল একমাত্র পথ। "

প্রসঙ্গত, বিজেপি নেতারা বারবার সরব হয়েছেন উত্তরবঙ্গকে আলাদা রাজ্যের স্বীকৃতি দেওয়ার জন্য। আবার কিছুদিন আগেই বিষ্ণুপুরের বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ জঙ্গলমহলকে পশ্চিমবঙ্গ থেকে আলাদা করার ডাক দেন। বীরভূম, বাঁকুড়া সহ মূলত জঙ্গলমহল এলাকা নিয়ে নতুন রাজ্যের দাবি তুলেছিলেন সৌমিত্র খাঁ।

মহঃ সেলিম
আদালত মন্ত্রীকে স্বস্তি দিলেও আমরা দেব না, এই লড়াই জিতেই ছাড়বো - SSC-প্রার্থীদের মঞ্চে সেলিম

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in