'তৃণমূলের বি-টিম হয়ে উঠছে বঙ্গ BJP', ক্ষোভে দল ছাড়লেন মহিলা মোর্চার প্রাক্তন রাজ্য সভানেত্রী

তনুশ্রী লেখেন, 'বেশ কিছুদিন ধরেই দলের কার্জকলাপে বিরক্ত হচ্ছিলাম। আজ চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিলাম। বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি আরও ভালো ফল করতে পারত। কিন্তু রাজ্য সংগঠনের কাজকর্ম সদর্থক নয়।'
'তৃণমূলের বি-টিম হয়ে উঠছে বঙ্গ BJP', ক্ষোভে দল ছাড়লেন মহিলা মোর্চার প্রাক্তন রাজ্য সভানেত্রী
দিলীপ ঘোষের সাথে তনুশ্রী রায়

এবার দলীয় কাজকর্ম নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে বিজেপি ছাড়লেন আরও এক নেত্রী। মহিলা মোর্চার প্রাক্তন রাজ্য সভানেত্রী তনুশ্রী রায় বঙ্গ বিজেপি নেতৃত্বকে রাজ্য সরকারের বি-টিম বলে উল্লেখ করে দল ছাড়লেন। প্রসঙ্গত, তনুশ্রীর স্বামী নবারুণ নায়েককে সম্প্রতি বিজেপির তমলুক জেলা সভাপতির পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

বুধবার দল ছাড়েন পূর্ব মেদিনীপুরের ওই নেত্রী। দলের রাজ্য নেতৃত্বের কাছে পদত্যাগপত্র পাঠিয়েছেন তিনি। এক কপি সংবাদমাধ্যমকে পাঠানোর পাশাপাশি নিজের ফেসবুক পেজেও পোস্ট করেছেন। তনুশ্রী লেখেন, 'বেশ কিছুদিন ধরেই দলের কার্জকলাপে বিরক্ত হচ্ছিলাম। আজ চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিলাম। আমি চিঠিতেও লিখেছি, কেন আমি দলত্যাগের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি আরও ভালো ফল করতে পারত। কিন্তু রাজ্য সংগঠনের কাজকর্ম সদর্থক নয়।'

তিনি দলের বর্তমান পরিস্থিতির ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে উদাহরণ হিসেবে বলেন, 'ধরুন, আমি নিজের পায়ে দাঁড়িয়ে আছি। এখন আমার পা ডান্ডা মেরে ভেঙে দেওয়ার পরে বলা হল, আগের মতোই হাঁটতে হবে। এ ভাবে আমি পারব না।’

তনুশ্রী আরও বলেন, ‘বাইরে থেকে যাঁরা দলে এসেছেন, এখন তাঁদের নিয়েই বেশি মাতামাতি চলছে।’ তবে ‘বহিরাগত’ হিসেবে শুভেন্দুকে তালিকাভুক্ত না করে বলেন, শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে খারাপ বলব না। তিনি জেলায় দারুণ কাজ করেছেন। পূর্ব মেদিনীপুরে বিজেপির ফলাফল শুভেন্দুর হাত ধরেই সম্ভব হয়েছে।'

তনুশ্রী রায়ের পদত্যাগপত্র
তনুশ্রী রায়ের পদত্যাগপত্র

স্বামী নবারুণ প্রসঙ্গে তনুশ্রী বলেন, ‘আমার স্বামীর মতামতকে আমি শ্রদ্ধা করি। উনি বিজেপিকেই রাজ্যে অপরিহার্য ভাবছেন বলে দলে আছেন। আমি ভাবছি না, তাই দল ছাড়ছি।’

জেলা সদর তমলুকের আসন্ন পুরভোটে তনুশ্রী তৃণমূলের প্রার্থী হতে পারেন বলে জল্পনা শুরু হয়েছে। কিন্তু সেসব পাত্তা না দিয়ে তিনি বলেন, 'আমি বিজেপি ছেড়েছি, তবে রাজনীতি ছাড়িনি। আমার পরবর্তী রাজনীতির পথ কী হবে, ঠিক সময়ে জানিয়ে দেব। তবে আমি কোনও দিন বর্তমান সরকার পক্ষের সঙ্গে যাব না।'

এই মুহূর্তে একের পর এক রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব দলের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করে দল ছাড়েছেন। একের পর এক সাংসদ-বিধায়ক-নেতা হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছাড়ছেন। মঙ্গলবার সেই তালিকায় নাম লিখিয়েছেন খড়্গপুরের বিধায়ক হিরণ চট্টোপাধ্যায়। তার একদিন পর তনুশ্রীর দলত্যাগে শুরু হয়েছে জল্পনা।

দিলীপ ঘোষের সাথে তনুশ্রী রায়
বিজেপির হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ থেকে 'লেফট' শান্তনু-সুব্রত তৃণমূলে! মমতাবালার মন্তব্যে জল্পনা শুরু

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in