উপনির্বাচনে জেতা ২ আসন হাতছাড়া, ট্যুইটে বিজেপি নেতৃত্বকে লাগামছাড়া আক্রমণ তথাগত রায়ের

দক্ষিণবঙ্গের তিনটি কেন্দ্রের প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে। দলের ভরাডুবিতে যখন দিশেহারা কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। সেই সময় ফের দলীয় নেতাদের একহাত নিলেন প্রাক্তন রাজ্য বিজেপি সভাপতি তথাগত রায়।
উপনির্বাচনে জেতা ২ আসন হাতছাড়া, ট্যুইটে বিজেপি নেতৃত্বকে লাগামছাড়া আক্রমণ তথাগত রায়ের
তথাগত রায়, দিলীপ ঘোষফাইল চিত্র

গত বিধানসভা নির্বাচনে মুখ থুবড়ে পড়েছিল বিজেপি। তারপর উপনির্বাচনগুলিতে একের পর এক হাতছাড়া হয়েছে আসন। মঙ্গলবার দিনহাটা শান্তিপুর, খড়দা, গোসাবা আসনে উপনির্বাচনের ফল প্রকাশিত হয়েছে। দক্ষিণবঙ্গের তিনটি কেন্দ্রের প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে। দলের ভরাডুবিতে যখন দিশেহারা কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। সেই সময় ফের দলীয় নেতাদের একহাত নিলেন প্রাক্তন রাজ্য বিজেপি সভাপতি তথাগত রায়।

রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় ফের তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। কয়েকদিন আগে ঘাসফুল শিবির ত্যাগীদের দালাল বলে কটাক্ষ করে প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ পোস্ট করেছিলেন, 'অনেক দালাল নির্বাচনের আগে দলে ঢুকেছিলেন। কিছুজন গিয়েছেন, কিছু এখনও রয়েছেন। তাঁরা উৎপাত করছেন।' মঙ্গলবার সেই পোস্টটি রি-টুইট করেন তথাগত রায়। দলের একের পর পরাজয়ের জন্যও দলবদলুদের দিকে আঙ্গুল তুললেন তিনি।

এদিন তথাগত টুইট করে কটাক্ষ করে বলেন, দালালদের জন্য কোল বিছিয়ে দিয়েছিল দল। গলবস্ত্র হয়ে তাঁদের আনা হয়েছিল। যারা আদর্শের জন্য বিজেপি করত তাঁদের বলা হয়, এতবছর কী করেছেন? আমরা আঠারোটা সিট এনেছি। জুলিয়াস সিজারের মতো ‘Vini Vidi Vici’। তাঁর সাফ কথা, বিজেপির এই শোচনীয় পরিণতির জন্য এসবই দায়ী। অনেকে তথাগতর মন্তব্যকে সমর্থন করলেও দলবিরোধী এই বক্তব্যে স্বাভাবিকভাবে বিতর্ক দানা বেঁধেছে।

উল্লেখ্য, বিধানসভা নির্বাচনে ৭৭ টি আসন পেয়ে বিধানসভায় বিরোধী দল হয়েছিল। কিন্তু উপনির্বাচনে একের পর এক আসন হাতছাড়া হওয়ায় দলের অস্তিত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিয়েছে রাজনৈতিক মহলে। উদ্বেগ বেড়েছে গেরুয়া শিবিরে।

তথাগত রায়, দিলীপ ঘোষ
Tathagata Roy: কৈলাস বিজয়বর্গীয়কে ঘৃণা করি - ফের বিতর্কিত মন্তব্য তথাগত রায়ের

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in