পার্থকে বহিষ্কারের দাবি তুললেন কুণাল, পুরনো ভিডিও পোস্ট করে কুণালের বিরুদ্ধে সরব দলীয় কর্মীরা

কুণাল লেখেন, "পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে অবিলম্বে মন্ত্রিত্ব এবং দলের সমস্ত পদ থেকে সরানো হোক। তাঁকে বহিষ্কার করা উচিত। আমার এই বিবৃতি যদি ভুল বলে মনে হয় তাহলে আমাকে দলের সমস্ত পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হোক।"
পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং কুণাল ঘোষ
পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং কুণাল ঘোষফাইল ছবি

পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের মন্ত্রিত্ব কেড়ে নিয়ে অবিলম্বে তাঁকে দলের সমস্ত পদ থেকে বহিষ্কার করা উচিত। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই দাবি তুললেন তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ।

বৃহস্পতিবার সকালে কার্যত বিস্ফোরণ ঘটালেন তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ। এসএসসি নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগে ইডি হেফাজতে থাকা রাজ্যের শিল্প মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে বহিষ্কার না করলে তাঁকে পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হোক, টুইটারে এমনই দাবি করেছেন কুণাল ঘোষ। টুইটারে তিনি লেখেন, "পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে অবিলম্বে মন্ত্রিত্ব এবং দলের সমস্ত পদ থেকে সরানো হোক। তাঁকে বহিষ্কার করা উচিত। আমার এই বিবৃতি যদি ভুল বলে মনে হয় তাহলে আমাকে দলের সমস্ত পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হোক, দলের সেই অধিকার আছে। আমি তৃণমূলের একজন সৈনিক হিসেবে কাজ চালিয়ে যাব।"

গত ২৩ জুলাই টানা ২৮ ঘণ্টা জেরার পর পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে গ্রেফতার করে ইডি। এর আগের রাতেই পার্থ ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখার্জির ফ্ল্যাট থেকে প্রায় ২২ কোটি টাকা উদ্ধার করেন ইডি আধিকারিকরা। অর্পিতাকেও হেফাজতে নিয়েছে ইডি। এরপর বুধবার রাতে অর্পিতার অন্য একটি ফ্ল্যাট থেকে আরও ৩০ কোটি টাকা এবং ৫ কেজি সোনা উদ্ধার করেছে ইডি। বুধবার রাতেই এই ঘটনা নিয়ে পার্থর বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন কুণাল ঘোষ। এবার প্রকাশ্যে তাঁকে বহিষ্কারের দাবি তুললেন তিনি।

যদিও কুণালের এই মন্তব্য ভালোভাবে নেননি দলীয় কর্মী সমর্থকরা। ওই টুইটের কমেন্টেই এর প্রতিবাদ জানিয়েছেন তাঁরা। জনৈক এক টুইটার ব্যবহারকারী কুণালের পুরনো একটি মন্তব্যের ভিডিও পোস্ট করে লেখেন, "দলের সব থেকে বড় আপদ ধান্দাবাজ হলো কুণাল ঘোষ। বিজেপির এজেন্ট। কুণাল ঘোষকে আগে তাড়ানো উচিত। কিছু মনে পরে ঘোষ বাবু? আপনি দলনেত্রীর বিরোধী ছিলেন আছেন। আপনিই দলে লবির সৃষ্টি করছেন। মনে পরে? মুখ্যমন্ত্রীর গ্রেফতার চাই.... পার্থ চট্টোপাধ্যায় এটা বলছে না বলে খুব জ্বালা আপনার? খুব মজা পাচ্ছেন নাহ ? দিন আপনারও আসবে আবার।"

কুণালের এই টুইটের জেরে দলের অন্দরেই শোরগোল পড়ে যায়। বৃহস্পতিবার বিকেল পাঁচটায় বৈঠক ডেকেছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। বৈঠকে এই বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হবে জানিয়ে নতুন একটি টুইট করেছেন কুণাল ঘোষ। আগের টুইটটি সরিয়ে দিয়েছেন তিনি।

পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং কুণাল ঘোষ
WB CSC: কলেজে নিয়োগ দুর্নীতিতে পার্থ-ঘনিষ্ঠ মোনালিসা! সরকারকে ১২২ জনের তথ্য দিল চাকরি প্রার্থীরা

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in