আরও বিপাকে সুবীরেশ! ৬৭৭ জন অযোগ্য প্রার্থীর নিয়োগ হয়েছে তাঁরই নির্দেশে, তথ্য পেশ CBI-র

দুর্নীতির ঘটনায় নাম প্রকাশ্যে আসায় সুবীরেশ দাবি করেছিলেন, তাঁকে ফাঁসানো হয়েছে। তাঁর আমলে নিয়োগে কোনও দুর্নীতি হয়নি।
সুবীরেশ ভট্টাচার্য
সুবীরেশ ভট্টাচার্যগ্রাফিক্স - সুমিত্রা নন্দন

নিয়োগ দুর্নীতিকাণ্ডে ফের বিপাকে এসএসসি-র প্রাক্তন চেয়ারম্যান সুবীরেশ ভট্টাচার্য। মূলত তাঁর নির্দেশেই ৬৭৭ জন অযোগ্য প্রার্থীর OMR শিটের নম্বর বদলে তাঁদের বেআইনিভাবে চাকরি দেওয়া হয়েছে। আদালতে এমনই বিষ্ফোরক অভিযোগ এনেছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই। এই সংক্রান্ত বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ নথি তাঁরা আদালতে পেশ করেছেন বলে জানা গেছে।

সোমবার স্কুল সার্ভিস কমিশনের নবম-দশম শ্রেণীর শিক্ষক নিয়োগ সংক্রান্ত মামলার শুনানি ছিল আলিপুর আদালতে। আদালত সূত্রের খবর, তদন্তের অগ্রগতি প্রসঙ্গে বিচারক প্রশ্ন করলে উত্তরে সিবিআই জানায় - ৬৭৭ জনের তালিকা তৈরি করা হয়েছে, যাদের নম্বর বাড়ানো হয়েছিল। তাঁদের মধ্যে এখনও পর্যন্ত ৪ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।

সিবিআই-র দাবি, একজন অভিযুক্তের বাড়ি থেকে তাঁরা এই তালিকা উদ্ধার করেছে। শুধু তাই নয়, ৬৬৭ জনের পরীক্ষার OMR শিট (উত্তরপত্র) বদলানো হয়েছে এসএসসির প্রাক্তন চেয়ারম্যান সুবীরেশের নির্দেশে এবং তাঁরই তত্ত্বাবধানে। আদালতের নির্দেশনামায় সুবীরেশের বিরুদ্ধে সিবিআই-র দায়ের করা এই অভিযোগের উল্লেখ রয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ১৯ সেপ্টেম্বর স্কুল শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় সিবিআই-র হাতে গ্রেফতার হন সুবীরেশ। দুর্নীতির ঘটনায় নাম প্রকাশ্যে আসায় তিনি দাবি করেছিলেন, তাঁকে ফাঁসানো হয়েছে। তাঁর আমলে নিয়োগে কোনও দুর্নীতি হয়নি। সেই সময় আদালতে সিবিআই জানায়, ৩৮১টি ভুয়ো নিয়োগপত্র দেওয়ার ঘটনায় সুবীরেশকে হেফাজতে নিয়ে জেরা করা আবশ্যক।

উল্লেখ্য, এর আগেও সুবীরেশকে যথেষ্ট প্রভাবশালী বলে দাবি করেছিলেন গোয়েন্দা আধিকারিকরা। এসএসসি-র চেয়ারম্যান পদ থেকে অপসারণের পরেও উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় এবং দার্জিলিং হিলস বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ছিলেন তিনি। এমনকি, কলকাতার শ্যামাপ্রসাদ কলেজের অধ্যক্ষ, নিখিল বঙ্গ অধ্যক্ষ পরিষদের সভাপতি, এবং রাজ্যের উপাচার্য পরিষদের সম্পাদকের পদেও থেকেছেন সুবীরেশ। তাঁকে জেরা করেই এই সংক্রান্ত তথ্য উঠে এসেছে সিবিআই-র হাতে।

সুবীরেশ ভট্টাচার্য
টাকার বিনিময়ে যাঁরা চাকরি পেলেন, তাঁরা গ্রেফতার কবে হবেন? - আদালতের প্রশ্নের মুখে CBI

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in