সাংবাদিকদের প্রশ্নবানে জর্জরিত পার্থ-অর্পিতা, আদালত চত্বরে 'চোর চোর' স্লোগান

পার্থ-অর্পিতাকে হাসপাতাল থেকে ব্যাঙ্কশাল আদালতে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তাঁদের দেখেই ওঠে ‘চোর চোর’ স্লোগান।
পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং অর্পিতা মুখোপাধ্যায়
পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং অর্পিতা মুখোপাধ্যায়গ্রাফিক্স - সুমিত্রা নন্দন

SSC দুর্নীতি কাণ্ডে অভিযুক্ত রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং তাঁর ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের ১০ দিনের ইডি হেফাজতের আজ শেষ দিন। তাই আজ আবার ব্যাঙ্কশাল আদালতে হাজির করা হয়েছিল তাঁদের।

ইতিপূর্বে, ধৃত প্রাক্তন মন্ত্রী ও তাঁর ঘনিষ্ঠ অর্পিতাকে জোকা ইএসআই হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তাঁদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর বেরানোর সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নবানের মুখে পড়েন তাঁরা। 'অর্পিতার দুটি ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার বিপুল টাকা কার? এত সম্পত্তি এল কথা থেকে?' সাংবাদিকদের তরফের এমন হাজারও প্রশ্নের মুখে পড়েও মুখ খোলেননি তাঁরা কেউই। এরপর পার্থ-অর্পিতাকে হাসপাতাল থেকে ব্যাঙ্কশাল আদালতে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তাঁদের দেখেই ওঠে ‘চোর চোর’ স্লোগান।

আজ (৩ আগস্ট) পার্থ-অর্পিতার সম্পত্তির হদিশ পেতে জেলায় জেলায় হানা দিয়েছে ইডি আধিকারিকদের দল। বুধবার সকালে সিজিও কমপ্লেক্স থেকে ৬টি গাড়ি রওনা দিয়েছে, বীরভূম, উত্তর ২৪ পরগনার বিভিন্ন জায়গায়। তারই মধ্যে এদিন সকালে শান্তিনিকেতনে পার্থর বাড়িতে পৌঁছে গিয়েছে একটি দল। সেখানে পার্থর বিভিন্ন বাড়িতে তল্লাশি চালানো হয়েছে।

গত মঙ্গলবার (২ আগস্ট) জোকার ইএসআই হাসপাতালে এসেছিলেন দক্ষিণ ২৪ পরগনার আমতলার বাসিন্দা শুভ্রা ঘোড়ুই। হাসপাতালে এসে পুলিশি ঘেরাটপ উপেক্ষা করে পার্থকে দেখে জুতো ছুড়ে মারেন আমতলার ওই মহিলা। সাথে সাথেই তিনি উঠে আসেন আলোচনার কেন্দ্রে।

ইডি সূত্রে খবর, পুলিশি জেরায় প্রথমে সহযোগিতা না করলেও পরে পার্থ বলেছিলেন, সময় এলেই সঠিক তথ্য সামনে আনবেন। উলেখ্য, গতকালও কলকাতা ও বরানগরে বিভিন্ন জায়গায় অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের ফ্ল্যাট ও নেল পার্লারে হানা দেন ইডি আধিকারিকরা। তল্লাশি চালিয়ে বেশ কিছু নথি বাজেয়াপ্ত করেন তাঁরা। পণ্ডিতিয়া রোডে অর্পিতার একটি ফ্ল্যাটও সিল করে দেওয়া হয়। বরানগরে নেল আর্ট পার্লারও সিল করা হয়েছে।

পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং অর্পিতা মুখোপাধ্যায়
'জুতো মেরে শান্তি পেয়েছি ...' - অকপট স্বীকারোক্তি শুভ্রা ঘোড়ুই-এর, কী ছিল তাঁর অভিসন্ধি?

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in