আইনমন্ত্রী মলয় ঘটকের ৭টি বাড়িতে CBI হানা নিয়ে মমতা ব্যানার্জীকে তীব্র কটাক্ষ সুজনের

সুজন চক্রবর্তী বলেন, "মলয় ঘটকের নামে ৭টা বাড়ি! বেনামে কতগুলো? চর্চা হচ্ছে, ছিঃ! পশ্চিমবাংলার আইনমন্ত্রী বেআইনি কাজে যুক্ত। খুবই দুর্ভাগ্যজনক।"
মমতা ব্যানার্জী এবং সুজন চক্রবর্তী
মমতা ব্যানার্জী এবং সুজন চক্রবর্তীগ্রাফিক্স - নিজস্ব

রাজ্য জুড়ে চলা একের পর দুর্নীতি মামলায় বহুবার কাঠগড়ায় উঠেছে শাসকদল। জেল হেফাজতে রয়েছেন তৃণমূলের দুই হেভিওয়েট মন্ত্রী ও নেতা পার্থ চ্যাটার্জি এবং অনুব্রত মণ্ডল। এরই মাঝে আইনমন্ত্রী মলয় ঘটকের বাড়িতে সিবিআই হানা দিল। এই নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী ও তাঁর দলকে তোপ দাগলেন সিপিআই(এম) নেতা সুজন চক্রবর্তী।

কয়লা পাচারকাণ্ডে বুধবার সকালেই রাজ্যের আইনমন্ত্রী মলয় ঘটকের ৭টি বাড়িতে হঠাৎ তল্লাশি অভিযান চালিয়েছে সিবিআই। মন্ত্রী আবাসনে গিয়ে তাঁকে টানা জিজ্ঞাসাবাদও করা হয়েছে বলে সূত্রের খবর। এমনকি আলিপুরে মন্ত্রীর চার্টার্ড অ্যাকাউন্টেন্টের বাড়িতেও চালানো হয়েছে তল্লাশি।

এ প্রসঙ্গে সাংবাদিক বৈঠকে সুজন চক্রবর্তী বলেন, "চর্চা হচ্ছে, ছিঃ! পশ্চিমবাংলার আইনমন্ত্রী বেআইনি কাজে যুক্ত। খুবই দুর্ভাগ্যজনক। পার্থ, অনুব্রতর তালিকায় 'ভাইপো' (অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়) সহ আরও অনেকে আছেন। ৫ দিন আগে ভাইপোকে ইডি তলব করেছিল। তাঁর কাছ থেকে তথ্য জেনে এখন কি মলয় ঘটক? ভাইপোকে ছেড়ে মলয়কে ধরা হল?"

সাংবাদিকদের সামনে বিস্ময় প্রকাশ করে তিনি আরও বলেন, "মলয় ঘটকের নামে ৭টা বাড়ি! বেনামে কতগুলো? পার্থ বাবু, অনুব্রত বাবু, হালিশহরের চেয়ারম্যান এদের সকলেরই বেনামে সম্পত্তি রয়েছে। গত ১০-১১ বছরে মন্ত্রিসভার প্রাক্তন এবং বর্তমান মন্ত্রী মিলিয়ে বাড়ির সংখ্যা কি হাজার খানেক? মুখ্যমন্ত্রী বরং তাঁর মন্ত্রীদের সম্পত্তির একটা তালিকা প্রকাশ করুক।"

অন্যদিকে, বাগুইআটির দুই মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীকে অপহরণ করে হত্যার ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পর চাঞ্চল্য তৈরী হয়েছে এলাকা জুড়ে। বারংবার বাগুইআটি থানার পুলিশের ভূমিকা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। পুলিশ সূত্রের খবর, গত ২২ আগস্ট রাত ৯টা থেকে ১০টার মধ্যে বাসন্তি হাইওয়ের উপর চলন্ত গাড়িতে খুন করা হয় ২ কিশোরকে বলে জানা গেছে। এরপর থেকে মর্গেই ছিল মৃতদেহ দুটি। মঙ্গলবার তা শনাক্ত করে বাড়ির লোক।

এ প্রসঙ্গে মমতা ব্যানার্জী ও রাজ্য প্রশাসনকে এক হাত নিয়ে সুজন বলেন, "এর উত্তর কে দেবে? যেদিন থেকে ছেলে দুটি নিখোঁজ হল, সেদিন থেকে পুলিশকে বলা হচ্ছে। পুলিশ বলছে দেখছি, ৭০ ভাগ তদন্ত করেছি। অন্যদিকে এসএমএস আসছে, হয় টাকা দিন নাহলে লাশ পাবেন। মুখ্যমন্ত্রী ক্ষোভ জানাবেন, না ক্ষোভের উত্তর দেবেন? থানাগুলির মধ্যে সমন্বয়ের দায়িত্ব তো পুলিশমন্ত্রীর। মুখ্যমন্ত্রী নিজের দায়িত্ব অস্বীকার করে, ব্যর্থ হয়ে এঁকে-ওঁকে-তাঁকে হিসাব দিচ্ছেন?"

মমতা ব্যানার্জী এবং সুজন চক্রবর্তী
কয়লা পাচার কাণ্ডে বাড়িতে CBI হানার দিনই মলয় ঘটককে নোটিশ ইডির, দিল্লিতে তলব মন্ত্রীকে

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in