KMC Poll: বিক্ষুব্ধ নেতার পাশে দাঁড়ানোর বার্তা, দলে ‘কোণঠাসা’ রূপা কী তবে বিজেপি ছাড়ছেন!

দলের অন্দরেই প্রশ্ন উঠছে যে, দলীয় সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে গিয়ে বিক্ষুব্ধ নির্দল প্রার্থীকে সমর্থন করার জন্যই কি তারকা প্রচারকের তালিকা থেকে নাম বাদ পড়ল রূপার?
KMC Poll: বিক্ষুব্ধ নেতার পাশে দাঁড়ানোর বার্তা, দলে ‘কোণঠাসা’ রূপা কী তবে বিজেপি ছাড়ছেন!
রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ফাইল চিত্র

সম্প্রতি পথদুর্ঘটনায় কলকাতা পুরসভার ৮৬ নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপি কাউন্সিলর তিস্তা বিশ্বাসের মৃত্যু হয়। তারপর থেকে তাঁর স্বামী গৌরব ওই ওয়ার্ডে পুরভোটের বিজেপির প্রার্থীপদের অন্যতম দাবিদার ছিলেন। কিন্তু তাঁকে বিজেপি টিকিট দেয়নি। ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি নির্দল প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এবার তাঁর পাশে দাঁড়ানোর বার্তা দিলেন বিজেপির রাজ্যসভার সাংসদ রূপা গঙ্গোপাধ্যায়। বুধবার গৌরবের পাশে থাকার বার্তা দিয়ে চিঠি পাঠালেন তিনি। লিখলেন, গৌরব, আমার তো আর হোর্ডিং লাগানোর মতো ক্ষমতা নেই।

গৌরবের পাশে দাঁড়ানোর বার্তা রূপার পক্ষ থেকে অবশ্য এই প্রথম নয়। বরাবরই মৃত কাউন্সিলরের স্বামীর পাশে দাঁড়াতে দেখা গিয়েছে রূপাকে। তার জন্য দলীয় নেতৃত্ব তাঁকে সতর্কও করেছিলেন। কিন্তু রূপা সোশ্যাল মিডিয়ায় দলের বিরুদ্ধে সরব হন। সুকান্ত মজুমদার-দিলীপ ঘোষদের উপস্থিতিতেই দলের ভারচুয়াল বৈঠক ছেড়ে বেরিয়ে যান। বিদ্রুপাত্মক প্রশ্ন তোলেন, তাঁকে কেন এইসব ‘ভাটের’ বৈঠকে ডাকা হয়। রূপার এই বিরোধী মনোভাব ভাল চোখে নেননি রাজ্য নেতারা। কার্যত অস্বস্তিতে পড়েন নেতৃত্ব।

কলকাতা পুরভোটের নির্বাচনে বিজেপি ১৯ জন তারকা প্রচারকের নামের তালিকা প্রকাশ করেছিল। কিন্তু তাতে রূপার নাম ছিল না। ফলে দলের অন্দরেই প্রশ্ন উঠছে যে, দলীয় সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে গিয়ে বিক্ষুব্ধ নির্দল প্রার্থীকে সমর্থন করার জন্যই কী তারকা প্রচারকের তালিকা থেকে নাম বাদ পড়ল রূপার? এটা কি শীর্ষ নেতৃত্বের নির্দেশেই হয়েছে?

রূপার এই চিঠিতে রাজনৈতিক মহল মনে করছে, তাহলে কী দলে ‘কোণঠাসা’ রূপা বিজেপি ছাড়ছেন?

রূপা গঙ্গোপাধ্যায়
'এরকম বৈঠকে আমাকে আর ডাকবেন না' - ক্ষোভ প্রকাশ করে বিজেপির ভার্চুয়াল বৈঠক ছাড়লেন রূপা

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in