Chopra Case: চোপড়াকাণ্ডে শাসক দলকে একযোগে আক্রমণে CPIM-BJP, বিরোধীদের পাল্টা জবাব তৃণমূলের

People's Reporter: রবিবার দুপুরে চোপড়ার একটি ভিডিও প্রকাশ্যে আসে। যেখানে দেখা যায় চোপড়ার তৃণমূল নেতা তাজমূল ওরফে জেসিবি এক ছড়া কঞ্চি দিয়ে এক তরুণীকে বেধড়ক মারধর করছে।
শান্তনু সেন
শান্তনু সেনছবি - শান্তনু সেনের এক্স হ্যান্ডেল

চোপড়ার ঘটনায় এবার বিরোধীদের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন তৃণমূলের মুখপাত্র তথা প্রাক্তন রাজ্যসভার সাংসদ শান্তনু সেন। বললেন, “চোপড়ায় যা হয়েছে, সেটা আমাদের সরকার সমর্থন করে না। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার এই ধরনের ঘটনায় ‘জ়িরো টলারেন্স’ নীতি রেখেছেন।"

রবিবার দুপুরে চোপড়ার একটি ভিডিও প্রকাশ্যে আসে। যেখানে দেখা যায় চোপড়ার স্থানীয় তৃণমূল নেতা তাজমূল ওরফে 'জেসিবি' এক ছড়া কঞ্চি দিয়ে এক তরুণীকে বেধড়ক মারধর করছে। মেয়েটিকে চুলের মুঠি ধরে ধাক্কা দিয়ে মাটিতে ফেলে দিয়ে ফের মারধর করা হচ্ছে। মেয়েটির সঙ্গে এক তরুণকেও মারধর করতে দেখা যাচ্ছে। (যদিও সেই ভিডিওর সত্যতা যাচাই করেনি পিপলস রিপোর্টার)

এই ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই শুরু হয় বিতর্ক। সিপিআইএম এবং বিজেপি একযোগে তৃণমূলকে আক্রমণ করতে শুরু করে। অভিযোগ করা হয়, জেসিবি চোপড়ার তৃণমূল বিধায়ক হামিদুর রহমানের ঘনিষ্ঠ। রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা নিয়েও প্রশ্ন তোলে বিরোধীরা। অবশ্য ভিডিও প্রকাশ্যে আসার পরেই পুলিশ স্বতঃপ্রণোদিত মামলা দায়ের করে। এবং এই ঘটনায় মূল অভিযুক্ত তাজমূল ওরফে জেসিবিকে গ্রেফতার করা হয়।

সোমবার এর উত্তরে তৃণমূল মুখপাত্র শান্তনু সেন বলেন, “চোপড়ায় যা ঘটেছে, আমাদের সরকার কোনোভাবেই সেটাকে সমর্থন করে না। ইতিমধ্যেই পুলিশ স্বতঃপ্রণোদিত মামলা দায়ের করেছে এবং মূল অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। নির্যাতিতাকে পুলিশি নিরাপত্তা দেওয়া হয়েছে। এই ঘটনার অন্য কেউ জড়িত থাকলে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে।“

এরপরেই সিপিআইএম এবং বিজেপিকে আক্রমণ করে শান্তনু সেন বলেন, “৩৪ বছরের বাম শাসনে বাংলায় এ রকম অনেক ঘটনা ঘটেছে। কিন্তু কোনও বাম নেতাকে প্রকাশ্যে এসে নিন্দা করতে শুনিনি বা পুলিশ গ্রেফতার করেছে দেখিনি। দেশে বিজেপি শাসিত বহু রাজ্যেও এই ধরনের ঘটনা হামেশাই ঘটে। কিন্তু তা নিয়ে পুলিশ কোনও পদক্ষেপ করছে বা বিজেপি নেতা বিরোধিতা করছেন, তেমনটা ওই রাজ্যগুলিতে দেখা যায় না। এটা একমাত্র বাংলাতেই সম্ভব। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার এই ধরনের ঘটনায় ‘জ়িরো টলারেন্স’ নীতি রেখেছেন। শুধু মুখে বলা হয় না, কাজেও করে দেখানো হয়।’’

উল্লেখ্য, রবিবার ভিডিও প্রকাশ্যে আসার পরেই রাজ্যের শাসক দলকে আক্রমণ করতে শুরু করে বিরোধীরা। সিপিআইএমের রাজ্য সম্পাদক নিজের এক্স হ্যান্ডেলে (পূর্বতন টুইটার) লেখেন, ‘‘সালিশি সভাও নয়। অপরাধের বিচার এবং শাস্তি দিচ্ছে তৃণমূলের পোষা গুন্ডা। যার ডাকনাম জেসিবি। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের শাসনে এ ভাবেই বিচার ব্যবস্থাকে দুরমুশ করা হচ্ছে চোপড়ায়।’’ সিপিআইএম নেতার অভিযোগ, তাজমুল একজন বাম নেতার খুনেও অভিযুক্ত।

শান্তনু সেন
Petrol-Diesel Price: মাসের শুরুতেই কলকাতায় বাড়ল পেট্রোল-ডিজেলের দাম, কত হল লিটার প্রতি মূল্য?
শান্তনু সেন
Mamata Banerjee: উত্তরবঙ্গে সব বাড়ির ছাদ কেন লাল, গেরুয়া? –বৈঠকে প্রশ্ন মুখ্যমন্ত্রীর

GOOGLE NEWS-এ Telegram-এ আমাদের ফলো করুন। YouTube -এ আমাদের চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন।

Related Stories

No stories found.
logo
People's Reporter
www.peoplesreporter.in