'প্রতিশ্রুতি শুনে শুনে তরুণ সমাজ ক্লান্ত' - ৪ বছরে রেলে ৯২ হাজার শূন্যপদ বিলোপ প্রসঙ্গে ইয়েচুরি

গত ৪ বছরে ৯২ হাজার ৯০টি পদ বিলোপ করেছে কেন্দ্র। এর সাথে আরও ১৫ হাজার ৪২৩টি পদ অপ্রয়োজনীয় বলে চিহ্নিত করা হয়েছে। দ্রুত সেইসব পদগুলি বিলোপ করবে বলেছে জানিয়েছে কেন্দ্র।
'প্রতিশ্রুতি শুনে শুনে তরুণ সমাজ ক্লান্ত' - ৪ বছরে রেলে ৯২ হাজার শূন্যপদ বিলোপ প্রসঙ্গে ইয়েচুরি
গ্রাফিক্স - সুমিত্রা নন্দন

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কেন্দ্রীয় সরকারি পদে যে ১০ লক্ষ নিয়োগের কথা বলেছেন তা সবটাই শূন্যপদে। এতদিন ধরে এই শূন্যপদগুলি পূরণ হয়নি কেন তা নিয়ে ইতিমধ্যেই প্রশ্ন তুলেছে বিরোধীরা। এমনকি গণহারে পদ অবলুপ্তির বিষয়ে কেন্দ্রের তরফে কোনও রকম ব্যাখ্যা পাওয়া যায়নি।

কেন্দ্রীয় সরকারের বেতন ও ভাতা সংক্রান্ত ব্যয়ের দপ্তরের বার্ষিক রিপোর্ট বলছে, ২০২০ সালের ১ মার্চে কেন্দ্রের নিয়মিত অসামরিক কর্মীর সংখ্যা ছিল ৩১.৯১ লক্ষ। অথচ অনুমোদিত পদ হল ৪০.৭৮ লক্ষ। যার মধ্যে কেন্দ্রশাসিত পদও আছে। অর্থাৎ ৮.৮৭ লক্ষ শূন্যপদ রয়েছে এবং মোট অনুমোদিত পদের ২১.৭৫ শতাংশ ফাঁকা পড়ে রয়েছে। যার মধ্যে শুধু রেলেই শূন্যপদ রয়েছে ২.৩৭ লক্ষ।

রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণোর সংসদে পেশ করা একটি হিসেবে দেখা গেছে, দেশের মধ্যে সবথেকে বড় কর্মসংস্থান সৃষ্টিকারী সরকারি সংস্থা ভারতীয় রেলে কর্মসংস্থান বিলোপের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। গত ৪ বছরে ৯২ হাজার ৯০টি পদ বিলোপ করেছে কেন্দ্র। এর সাথে আরও ১৫ হাজার ৪২৩টি পদ অপ্রয়োজনীয় বলে চিহ্নিত করা হয়েছে। দ্রুত সেইসব পদগুলি বিলোপ করবে বলেছে জানিয়েছে কেন্দ্র।

বর্তমানে রেলে অনুমোদিত কর্মীপদের সংখ্যা ১২.৫৪ লক্ষ। এর মধ্যে গত ৪ বছরে প্রায় অর্ধেক শুন্যপদ বিলুপ্ত হয়েছে। পাশাপাশি বিপুল হারে কমেছে তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণীর পদ। সরকারের পক্ষ থেকে সংসদে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে, ২০১৮-১৯ সালে ২৩,৩৬৬টি, ২০১৯-২০ সালে ৩১,২৭৫টি, ২০২০-২১ সালে ২৭,৪৭৭টি এবং ২০২১-২২ সালে ৯,৯৭২টি পদ বিলুপ্ত হয়েছে। এর পাশাপাশি আরও ১৫,৪২৩টি পদ চিহ্নিত করা হয়েছে। দ্রুত তা বিলুপ্ত হবে।

আরও জানা গেছে, সবচেয়ে বেশি বিলুপ্তিকরণ হয়েছে উত্তর রেল জোনে। মোট ৯ হাজার। দক্ষিণ-পূর্ব রেলে বিলুপ্ত পদের সংখ্যা ৭,৫২৬। পূর্ব রেলে এই সংখ্যা ৫,৭০০। তথ্য অনুযায়ী, সবচেয়ে বেশি শূন্যপদ রয়েছে গ্রুপ সি স্তরে, প্রায় ৭.৫৬ লক্ষ। এবং গ্রুপ বি স্তরে শুন্যপদ রয়েছে ৯৪,৮৪২টি। গ্রুপ এ স্তরে শুন্যপদের সংখ্যা ২১,২৫৫টি।

দেশে যখন বেকারত্ব প্রায় আকাশ ছোঁয়ার মত জায়গায় সেখানে রেলে একের পর এক কর্মসংস্থান বিলুপ্তিকরণ নিয়ে কার্যত প্রশ্নের মুখে কেন্দ্র। এ প্রসঙ্গে সিপিআই(এম)-এর সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি বলেন, "প্রতিশ্রুতি শুনে শুনে তরুণ সমাজ ক্লান্ত। কেন্দ্রীয় সরকার আগে নিজেদের শূন্যপদ পূরণ করুক। এই কাজ বছরের পর বছর ফেলে রাখা হয়েছে কেন?"

'প্রতিশ্রুতি শুনে শুনে তরুণ সমাজ ক্লান্ত' - ৪ বছরে রেলে ৯২ হাজার শূন্যপদ বিলোপ প্রসঙ্গে ইয়েচুরি
Rail Privatization: সিমলাগড় স্টেশনকে বেসরকারি সংস্থার হাতে তুলে দিল রেল, ক্ষুব্ধ নিত্যযাত্রীরা

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in