এআইকেএস-এর সাংবাদিক সম্মেলন
এআইকেএস-এর সাংবাদিক সম্মেলনছবি এআইকেএস থেকে সংগৃহীত

Black Day: কেন্দ্রীয় বাজেটে কৃষকদের সঙ্গে 'প্রতারণা', ৯ ফেব্রুয়ারি 'কালা দিবস পালনের ডাক কিষাণ সভার

কেন্দ্রের এই প্রতারণার প্রতিবাদে, আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি, দেশজুড়ে কালো দিবস পালন করা হবে। বিক্ষুদ্ধ কৃষকেরা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কুশপুত্তলিকা জ্বালাবে।

২০২৩-২৪ সালের কেন্দ্রীয় বাজেটে কৃষকদের সঙ্গে 'প্রতারণা' করেছে মোদী সরকার। এই অভিযোগে দেশজুড়ে 'কালা দিবস' পালনের ডাক দিয়েছে অল ইন্ডিয়া কিষাণ সভা (AIKS)।

রবিবার, দিল্লিতে AIKS-র সহ-সভাপতি হান্নান মোল্লা জানান, 'কৃষি ও কৃষকদের জন্য সব প্রকল্পেই বরাদ্দ কমিয়েছে কেন্দ্র। যার জেরে ক্ষুব্ধ সকলে। কেন্দ্রের এই প্রতারণার প্রতিবাদে, আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি, দেশজুড়ে কালো দিবস পালন করা হবে। বিক্ষুদ্ধ কৃষকেরা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কুশপুত্তলিকা জ্বালাবে। আর, এই গণবিক্ষোভ কর্মসূচিতে যোগ দেবেন অল ইন্ডিয়া এগ্রিকালচার ওয়ার্কার্স ইউনিয়নের সঙ্গে যুক্ত কৃষকেরা।'

কেন্দ্রীয় বাজেটের তীব্র সমালোচনা করে হান্নান মোল্লা বলেন, 'স্বামীনাথন কমিশনের রিপোর্ট অনুসারে ফসলের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য (MSP) পাবেন বলে আশা করেছিলেন কৃষকরা। কিন্তু, কেন্দ্রীয় বাজেটে তাঁরা হতাশ।'

জানা যাচ্ছে, ২০২২-২৩-র বাজেটে কৃষিক্ষেত্রে বরাদ্দ ছিল ১,২৪,০০০ কোটি টাকা। কিন্তু, এবছরের বাজেটে তা কমে দাঁড়িয়েছে ১,১৫,৫৩১ কোটি টাকা।

জলবায়ু পরিবর্তন, মন্দা এবং ক্রমবর্ধমান খরচ নিয়ে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে কৃষকরা। কিন্তু, তারপরেও কৃষি ক্ষেত্রে বরাদ্দ কমিয়েছে কেন্দ্র। ২০২২-২৩-এ প্রধানমন্ত্রী ফসল বিমা যোজনায় (PMFBY) বরাদ্দ ছিল ১৫,৫০০ কোটি টাকা। এবছরে তা কমে দাঁড়িয়েছে ১৩,৬২৫ কোটি টাকা।

২০২২-২৩ সালের কেন্দ্রীয় বাজেটে সারে ভর্তুকি ছিল ২,২৫,০০০ কোটি টাকা। কিন্তু, ২০২৩-২৪-এর বাজেটে সেই ক্ষেত্রে বরাদ্দ কমিয়ে করা হয়েছে ১,৭৫,০০০ কোটি টাকা। বাজেটে কমানো হয়েছে ৫০ হাজার কোটি টাকা। আর, এই পদক্ষেপ কৃষি উৎপাদন, উৎপাদনশীলতায় বরাদ্দে এই ছাঁটাইয়ের বড় প্রভাব পড়বে বলে মনে করছেন কৃষক নেতারা।

২০২২-২৩'র সংশোধিত বাজেটে গ্রামীণ কর্মসংস্থানের জন্য বরাদ্দ ছিল ১,৫৩,৫২৫ কোটি টাকা। বিপুল ছাঁটাই করে এ বছর তা করা হয়েছে ১,০১,৪৭৪ কোটি টাকা। ১০০ দিনের কাজ বা MGNREGA-র জন্য বরাদ্দ ছিল ৮৯,০০০ কোটি টাকা। তাকে এক ধাক্কায় নামিয়ে আনা হয়েছে ৬০,০০০ কোটি টাকায়। অথচ, গ্রামে যদি নিয়ম অনুযায়ী ১০০ দিনেরই কাজ দিতে হয়, তাহলে প্রয়োজন ২.৭২ লক্ষ কোটি টাকা।

এই প্রসঙ্গে হান্নান মোল্লা বলেন, 'আমরা MNREGA, খাদ্যে ভর্তুকি, সারে ভর্তুকি, বীমা, সেচ, কৃষি, শ্রম এবং অন্যান্য সমস্ত সামাজিক ক্ষেত্রে বরাদ্দের ব্যাপক কমানোর প্রতিবাদ জানাই। ২০২৩ সালের মধ্যে কৃষকদের আয় দ্বিগুণ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। কিন্তু, তিনি তাঁর নিজের প্রতিশ্রুতির সাথে নগ্নভাবে বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন।'

আরও পড়ুন

এআইকেএস-এর সাংবাদিক সম্মেলন
অমৃতকাল নয়, কর্পোরেট বন্ধুদের জন্য মোদী সরকারের 'মিত্রকাল বাজেট': রাহুল গান্ধী
এআইকেএস-এর সাংবাদিক সম্মেলন
Union Budget: কৃষিক্ষেত্রে বরাদ্দ কমেছে - 'নিরাশাজনক বাজেট' - দাবি কৃষক নেতাদের

GOOGLE NEWS-এ Telegram-এ আমাদের ফলো করুন। YouTube -এ আমাদের চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন।

Related Stories

No stories found.
logo
People's Reporter
www.peoplesreporter.in