জয়েন্ট অ্যাকাউন্ট করে ATM শেয়ার করতে হবে - গৃহবধূদের অধিকার নিয়ে স্বামীদের বার্তা সুপ্রিম কোর্টের

People's Reporter: বিবাহ বিচ্ছেদের পর স্ত্রী খোরপোশ চাইছে। এমনই একটা মামলায় খোরপোশের দাবিকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন মহম্মদ আবদুল সামসাদ নামে এক ব্যক্তি।
সুপ্রিম কোর্ট
সুপ্রিম কোর্টফাইল ছবি সংগৃহীত

 বিবাহ বিচ্ছেদের পর হিন্দু মহিলাদের মতো মুসলিম মহিলারাও খোরপোশ দাবি করতে পারেন তাঁদের প্রাক্তন স্বামীদের কাছ থেকে। খোরপোশের জন্য ভারতীয় সংবিধানে যে আইন চালু রয়েছে, সেটা সব ধর্মের মহিলাদের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। খোরপোশ সংক্রান্ত একটি মামলায় এমনই জানাল সুপ্রিম কোর্ট।

বিবাহ বিচ্ছেদের পর স্ত্রী খোরপোশ চাইছে। এমনই এক মামলায় খোরপোশের দাবিকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন মহম্মদ আবদুল সামসাদ নামে এক ব্যক্তি। বুধবার সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি বিভি নাগারত্ন এবং বিচারপতি অগাস্টিন জর্জ মাসির ডিভিশন বেঞ্চে ছিল এই মামলার শুনানি। শুনানিতে মহম্মদ আবদুলের আবেদন খারিজ করে দেন দুই বিচারপতির বেঞ্চ।

শীর্ষ আদালত জানায়, "আমরা স্বামীদের তাঁদের স্ত্রীদের আর্থিক সহায়তা দেওয়ার প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরেছি। পরিবারের মধ্যে মহিলাদের জন্য অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা নিশ্চিত করার জন্য যৌথ ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট রাখা এবং এটিএম অ্যাক্সেস ভাগ করে নেওয়া দরকার।"

এরপরেই দুই বিচারপতি ভারতীয় খোরপোশ আইনের ( ১২৫ ফৌজদারি আইন) কথা উল্লেখ করেন। বিচারপতি জানান, ১২৫ নম্বর ধারা অনুযায়ী, একজন ব্যক্তি স্ত্রী, সন্তান এবং বাবা-মায়ের প্রতি কখনই তাঁর আর্থিক দায়িত্ব অস্বীকার করতে পারে না। আর এই আইন ভারতের সমস্ত বিবাহিত মহিলাদের ক্ষেত্রেই ধর্ম নির্বিশেষে প্রযোজ্য।

বেঞ্চের তরফে জানানো হয়েছে, মুসলিম মহিলা (বিবাহবিচ্ছেদের অধিকার রক্ষা) আইন ১৯৮৬ ধর্মনিরপেক্ষ আইনের চেয়ে বেশি প্রাধান্য পাবে না। এদিন বিচারপতি বলেন, ”আমরা ফৌজদারি আবেদন খারিজ করে দিচ্ছি। সেই সঙ্গে এই সিদ্ধান্তে আসছি যে ফৌজদারি আইনের ১২৫ ধারা সমস্ত বিবাহিত মহিলার ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য।”

জানা গেছে, মহম্মদ আবদুল সামসাদ নামক ওই ব্যক্তি তাঁর স্ত্রীর খোরপোশের দাবির বিরোধিতা করে প্রথমে তেলেঙ্গানা পারিবারিক আদালতে মামলা দায়ের করেন। কিন্তু সামসাদের আর্জি খারিজ করে তেলেঙ্গানা পারিবারিক আদালত রায় দেয়, সামসাদকে মাসে ২০ হাজার টাকা খোরপোশ হিসাবে দিতে হবে তাঁর স্ত্রীকে।

পরে সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে তেলেঙ্গানা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন সামসাদ। হাইকোর্টও একই রায় বহাল রাখেন। তবে খোরপোশের টাকা ১০ হাজার করা হয়। সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন তিনি। কিন্তু শীর্ষ আদালতেও ধাক্কা খেলেন তিনি।

সুপ্রিম কোর্ট
‘গত ১০ বছরে জম্মু-কাশ্মীরে কত সৈন্য মারা গেছেন?’ – কেন্দ্রের কাছে তথ্য প্রকাশের দাবি সঞ্জয় রাউতের
সুপ্রিম কোর্ট
Rahul Gandhi: রায়বেরেলিতে প্রয়াত ক্যাপ্টেন অংশুমান সিংয়ের মায়ের সঙ্গে সাক্ষাৎ রাহুলের, গেলেন AIIMS-এ

GOOGLE NEWS-এ Telegram-এ আমাদের ফলো করুন। YouTube -এ আমাদের চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন।

Related Stories

No stories found.
logo
People's Reporter
www.peoplesreporter.in