নবান্নে মমতার সাথে গোপন সাক্ষাৎ RSS ঘনিষ্ঠ BJP নেতার, তৃণমূলে যোগ দিতে চলেছেন স্বামী!

গত বেশ কয়েক দিন ধরেই বিজেপি, বিশেষ করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে সরব স্বামী। শিখ সম্প্রদায়দের মোদী এবং ভারত সরকার উপেক্ষা করছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাথে সুব্রহ্মনিয়াম স্বামী
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাথে সুব্রহ্মনিয়াম স্বামীছবি সৌজন্যে টুইটার

বৃহস্পতিবার নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাথে বৈঠক করলেন আরএসএস ঘনিষ্ঠ এবং রাজ্যসভার প্রাক্তন সাংসদ বিজেপি সুব্রহ্মনিয়াম স্বামী। দীর্ঘদিন ধরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং বিজেপির বিরুদ্ধে সরব তিনি। তাই তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাথে তাঁর এই সাক্ষাৎ ঘিরে দলবদলের জল্পনা শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলে।

সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবার বিকেলে নবান্নে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাথে দীর্ঘক্ষণ বৈঠক করেন সুব্রহ্মনিয়াম স্বামী। সাক্ষাতের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টও করেছেন বিজেপি নেতা। তবে কী নিয়ে এই বৈঠক তা জানা যায়নি। এই নিয়ে সুব্রহ্মনিয়াম স্বামী বা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বা তৃণমূলের তরফ থেকে কোনও মন্তব্য করা হয়নি এখনও।

গত বেশ কয়েক দিন ধরেই বিজেপি, বিশেষ করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে সরব স্বামী। প্রকাশ্যেই তাঁর বিরুদ্ধে মন্তব্য করছেন তিনি। গত ১৩ আগস্ট নিজের টুইটারে তিনি লেখেন, "২০১৭ সালে স্বাধীনতা দিবসের ভাষণে মোদী (প্রধানমন্ত্রী) বেশ কিছু প্রতিশ্রুতি দিয়ে বলেছিলেন ২০২২ সালের ১৫ আগস্টের মধ্যে এগুলো পূরণ হবে। প্রতিশ্রুতিগুলি হলো: ১) প্রতি বছর ২ কোটি চাকরি হবে; ২) সবার জন্য ঘর হবে; ৩) কৃষকদের আয় দ্বিগুণ হবে; ৪) বুলেট ট্রেন চালু হবে। এগুলো পূরণ হয়েছে কি? এবছর ১৫ আগস্টের ভাষণে আবার নতুন কী প্রতিশ্রুতি দিতে যাচ্ছেন উনি?" তাঁর এই টুইট রিটুইট করেছিলেন তৃণমূল নেতা কীর্তি আজাদ।

বিলকিস বানোর ধর্ষকদের বিজেপি শাসিত গুজরাট সরকার মুক্তি দেওয়ায়, এর নিন্দা করেছিলেন রাজ্যসভার এই প্রাক্তন সাংসদ। শিখ সম্প্রদায়দের মোদী এবং ভারত সরকার উপেক্ষা করছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। রোহিঙ্গাদের জন্য বাসস্থান গড়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেওয়ায় মোদীর নগর উন্নয়ন মন্ত্রী হরদীপ সিং পুরীকে বরখাস্ত করার দাবি তুলেছেন তিনি।

বুধবার নতুন করে গঠন করা হয়েছে বিজেপির নীতি নির্ধারক কমিটি। এই কমিটিতে জায়গা পাননি কেন্দ্রীয় সড়ক পরিবহন মন্ত্রী নীতিন গড়করি, মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান সহ অনেকেই। এই নিয়েও সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হয়েছেন প্রবীণ এই বিজেপি নেতা। তিনি লেখেন, "আগে জনতা পার্টির সময়ে এবং বিজেপির প্রথম দিকগুলিতে, দলের কার্যনির্বাহী পদের জন্য আমরা নির্বাচন করতাম। দলীয় গঠনতন্ত্রের প্রয়োজন আছে। আজ বিজেপিতে কোনো নির্বাচন নেই। প্রতিটি পদে মোদীর অনুমোদনে একজন সদস্য মনোনীত করা হয়।"

সুব্রহ্মনিয়াম স্বামীর এই সোশ্যাল মিডিয়া পোস্ট এবং আজ তৃণমূল সুপ্রিমোর সাক্ষাৎ তাঁর দলবদলের জল্পনা উসকে দিয়েছে। তবে এই প্রথম নয়, গত বছরও মুখ্যমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ করে তিনি জানিয়েছিলেন তিনি মমতার পাশেই রয়েছেন।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাথে সুব্রহ্মনিয়াম স্বামী
Azadi 75: ৫ বছর আগে দেওয়া প্রতিশ্রুতির কী হলো? - প্রধানমন্ত্রীকে খোঁচা BJP নেতার

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in