সংসদে কথা বলতে চাননি, রাজস্থানে রাজনৈতিক বিবৃতি দিচ্ছেন! মানবতার কলঙ্ক - মোদীকে আক্রমণে খাড়গে

কংগ্রেস সভাপতি বলেন, "মণিপুর নিয়ে আমরা সংসদে আলোচনা চেয়েছি। আপনি (প্রধানমন্ত্রী) পার্লামেন্টে আমাদের সাথে কথা বলতে চাননি। অথচ সিকারে মেডিক্যাল কলেজের উদ্বোধনে গিয়ে রাজনৈতিক বক্তৃতা দিচ্ছেন!"
মল্লিকার্জুন খাড়গে এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী
মল্লিকার্জুন খাড়গে এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীফাইল ছবি

বৃহস্পতিবার ভোটমুখী রাজস্থানের সিকার জেলায় বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করতে গিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। প্রধানমন্ত্রীর এই সফরকে কটাক্ষ করেছেন কংগ্রেস সভাপতি মল্লিকার্জুন খাড়গে।

মণিপুর ইস্যুতে আজও উত্তপ্ত সংসদ। মণিপুরে চলা অশান্তির প্রতিবাদ জানাতে কালো পোশাক পরে সংসদে এসেছেন বিরোধী সাংসদরা। সংসদ চত্বরে প্রতিবাদ দেখচ্ছেন তাঁরা। 'এই শোকের মুহুর্তে মণিপুরের জনগণের পাশে থাকার বার্তা দেওয়ার জন্য' এই কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন আপ রাজ্যসভার সাংসদ রাঘব চাড্ডা। এটিকে একটি 'প্রতীকী প্রতিবাদ' হিসেবে দেখছেন তিনি। প্রতিবাদে শামিল হয়েছেন রাজ্যসভায় কংগ্রেসের দলনেতা মল্লিকার্জুন খাড়গে। সেখানেই সংবাদমাধ্যমের সামনে প্রধানমন্ত্রীকে আক্রমণ করেছেন তিনি।

কংগ্রেস সভাপতি বলেন, "মণিপুর নিয়ে আমরা সংসদে আলোচনা চেয়েছি। আপনি (প্রধানমন্ত্রী) পার্লামেন্টে আমাদের সাথে কথা বলতে চাননি। অথচ সিকারে মেডিক্যাল কলেজের উদ্বোধনে গিয়ে রাজনৈতিক বক্তৃতা দিচ্ছেন!"

তিনি বলেন, "যে সরকার গত ৮৫ দিন ধরে মণিপুরের ক্রন্দনরত মানুষের যত্ন নেয়নি, সেই সরকার মানবতার কলঙ্ক। সংসদ অধিবেশন চলছে এবং প্রধানমন্ত্রী এখানে কথা না বলে গোলগোল করে ভাষণ দিচ্ছেন, এটা গণতন্ত্রকে কলঙ্কিত করছে। বিরোধী দলগুলোকে গালি দিয়ে মোদি সরকারের অপকর্মের ছাপ মোছা যাবে না।"

তিনি বলেন, "আমাদের কাছে কালো প্রতিবাদ ও শক্তির প্রতীক। কালো রং ন্যায়ের প্রতীক এবং মর্যাদার প্রতীক। শুধুমাত্র দলিত, আদিবাসী ও পিছিয়ে পড়া মানুষের বিরোধিতাকারী মানসিকতাই কালো কাপড় নিয়ে ঠাট্টা করতে পারে।"

সিকারে প্রধানমন্ত্রী বলেন, "দেশের কৃষকরা প্রধানমন্ত্রী কিষাণ সমৃদ্ধি যোজনার অধীনে মোট ১৮,০০০ কোটি টাকা পেয়েছেন। দেশে মোট ১,২৫,০০০ পিএম কিষাণ সমৃদ্ধি কেন্দ্র (PMKSKs) গঠন করা হয়েছে। এগুলো কৃষকদের উপকৃত করবে। কৃষকদের জন্য ওপেন নেটওয়ার্ক ফর ডিজিটাল কমার্স চালু করা হয়েছে। আমাদের সরকার দেশের কৃষকদের সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে দাঁড়িয়ে আছে। স্বাধীনতার এত দশক পর এমন একটি সরকার ক্ষমতায় এসেছে, যারা কৃষকের দুঃখ-বেদনা বোঝে, কৃষকের উদ্বেগ বোঝে।"

মল্লিকার্জুন খাড়গে এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী
‘ওদের নীতি-উদ্দেশ্য সমর্থন করি না’, বিজেপির সঙ্গে জোটে থেকেও বিরোধী সুর মিজোরামের মুখ্যমন্ত্রীর গলায়

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
logo
People's Reporter
www.peoplesreporter.in