নগ্নতা বাড়ছে ফেসবুকে! ক্রমশ কমছে মহিলা ইউজারের সংখ্যা - উদ্বেগ প্রকাশ ফেসবুক কর্তৃপক্ষের

ফেসবুকে ভারতীয় মহিলারা নিজেদের সুরক্ষিত মনে করতে পারছেন না। নিরাপত্তা এবং গোপনীয়তা ক্ষুন্ন হওয়ার ভয়েই তাঁরা ফেসবুক ত্যাগ করছেন।
নগ্নতা বাড়ছে ফেসবুকে! ক্রমশ কমছে মহিলা ইউজারের সংখ্যা - উদ্বেগ প্রকাশ ফেসবুক কর্তৃপক্ষের
প্রতীকী ছবি

সোশ্যাল মিডিয়া বলতে বেশিরভাগ মানুষের মনেই আগে আসে ফেসবুকের নাম। আর এদেশে সেই ফেসবুকেই এখন ভাটার টান চলছে।

২ ফেব্রুয়ারী মেটা সংস্থা যখন দৈনিক ফেসবুক ব্যবহারকারীদের একটি রিপোর্ট প্রকাশ করেছিল, প্রাথমিক ভাবে সংস্থার অর্থ সচিব সেই রিপোর্টে জানিয়েছেন এর পিছনে আসল কারণ ডেটার খরচ বৃদ্ধি। একই দিনে, মার্কিন প্রযুক্তি সংস্থার একটি অভ্যন্তরীণ কর্মচারী ফোরামে ভারতে ফেসবুকের ব্যবসার বিষয়ে নিজস্ব গবেষণার ফলাফল পোস্ট করেছে। ২০২১ সালের শেষ থেকে দুই বছর ধরে পরিচালিত এই গবেষণায় বিভিন্ন সমস্যার বিষয় উঠে এসেছে।

মার্কিন প্রযুক্তি সংস্থার দাবি, পুরুষশাসিত সমাজের মতই সোশ্যাল মিডিয়াও পুরুষশাসিত। যে কারণে, ফেসবুকে ভারতীয় মহিলারা নিজেদের সুরক্ষিত মনে করতে পারছেন না। নিরাপত্তা এবং গোপনীয়তা ক্ষুন্ন হওয়ার ভয়েই তাঁরা ফেসবুক ত্যাগ করছেন।

সংবাদসংস্থা রয়টার্স প্রকাশিত একটি সমীক্ষা পর্যবেক্ষণ করে জানা গেছে, "কন্টেন্টের নিরাপত্তা এবং অযাচিত যোগাযোগ সম্পর্কে উদ্বেগ মহিলাদের ফেসবুক ব্যবহারে বাধা হয়ে উঠেছে। ... মহিলাদের পিছনে রেখে মেটা ভারতে সফল হতে পারে না৷"

এছাড়াও, ভারতে ফেসবুক ইউজার কমে যাওয়ার ক্ষেত্রে আরও একটি বড় কারণ হল নগ্নতা। ফেসবুকের ব্যবহার সংক্রান্ত জটিলতা এবং সাক্ষরতাও বড় কারণ হিসেবে দেখা গেছে। তাছাড়া যারা ভিডিও কনটেন্ট পছন্দ করেন তাদের ক্ষেত্রে ফেসবুক ব্যবহারের প্রবণতা ক্রমশই কমছে।

গত বছর ফেসবুক ইউজারের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছিল, যখন ছয় মাসের মধ্যে প্রায় ১.৪ বিলিয়ন জনসংখ্যার দেশের কয়েক মিলিয়ন মানুষ ফেসবুক জয়েন করেছিল। উল্লেখযোগ্যভাবে যা সিস্টার অ্যাপস ইন্সটাগ্রাম এবং হোয়াটসঅ্যাপের থেকে পিছিয়ে আছে। রিপোর্টে বলা হয়েছে, ইন্টারনেট এবং অন্যান্য অ্যাপের থেকেও ফেসবুকের ব্যবহারের গতি ক্রমশ বেড়েছে।

এ প্রসঙ্গে মেটার এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, তাঁদের সংস্থা এ বিষয়ে নিয়মিত গবেষণা করে চলেছে। কিন্তু গত সাত মাসের পুরনো গবেষণাপত্র নিয়ে তিনি মাথা ঘামাতে চান না। তাঁর মতে, ভারতে আমাদের ব্যবসার অবস্থার সঠিক উপস্থাপনা হিসাবে ৭ মাসের পুরানো গবেষণাকে চিহ্নিত করা ঠিক হবে না। ফেব্রুয়ারী মাসের একটি রিপোর্টের উপর ভিত্তি করে ভারতের মত দেশে ফেসবুকের ব্যবসা নিয়ে কোনও সিদ্ধান্ত আসা উচিৎ নয়।

গবেষণায় জানা গেছে, বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ফেসবুক ইউজার রয়েছে ভারতে। গত বছর নভেম্বর পর্যন্ত ভারতে ফেসবুক ইউজার ছিলেন ৪৫ কোটি। একদিকে যখন এদেশে ব্যবসা বাড়াতে আরও আগ্রহী মেটা। ২০১৭-২০২০ এই চার বছরে লাফিয়ে বেড়েছে ফেসবুকের ইউজারের সংখ্যা।

উল্লেখ্য, সারা পৃথিবী জুড়েই ইউজারদের এনগেজমেন্ট বাড়াতে চাইছে ফেসবুক। এই পরিস্থিতিতে নতুন ফিচার আনতে চলেছে মার্ক জুকারবার্গের সংস্থা। ফিচারটির সাহায্যে একটাই অ্যাকাউন্ট থেকে সর্বোচ্চ পাঁচটি প্রোফাইল তৈরি করা যাবে।

নগ্নতা বাড়ছে ফেসবুকে! ক্রমশ কমছে মহিলা ইউজারের সংখ্যা - উদ্বেগ প্রকাশ ফেসবুক কর্তৃপক্ষের
Lucky Ali: দেশ ছেড়ে চলে যেতে বাধ্য হব! লাকি আলির ফেসবুক পোস্টে উদ্বিগ্ন ভক্তকুল

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in