নাবালিকাকে ধর্ষণ, অভিযুক্ত বিজেপি নেতার গাড়িতে আগুন ক্ষুব্ধ জনতার

ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের বেতুল জেলায়। ধর্ষণে অভিযুক্ত বিজেপি সদস্যের নাম রমেশ গুলহান। বয়স ৬৫ বছর। এক সময় বেতুল পুরসভার পুরপ্রধানের দায়িত্বও সামলেছেন অভিযুক্ত বিজেপি সদস্য।
ছবি - প্রতীকী
ছবি - প্রতীকীগ্রাফিক্স - সুমিত্রা নন্দন

১৩ বছরের নাবালিকাকে ধর্ষণের (Minor Rape) অভিযোগ উঠল মধ্যপ্রদেশের এক বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে৷ ঘটনার পরই অভিযুক্ত পলাতক৷ ধর্ষণের ঘটনা সামনে আসতেই বিজেপি শাসিত রাজ্যে উত্তেজনা ছড়িয়েছে৷ সোমবার, রাতেই অভিযুক্ত বিজেপি কর্মীকে গ্রেফতার ও কঠোর শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয়রা। তাঁরা অভিযুক্তের গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে।

জানা যাচ্ছে, ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের বেতুল জেলায়। ধর্ষণে অভিযুক্ত বিজেপি নেতার নাম রমেশ গুলহান। বয়স ৬৫ বছর। এক সময় বেতুল পুরসভার পুরপ্রধানের দায়িত্বও সামলেছে অভিযুক্ত বিজেপি সদস্য।

অভিযোগ, সোমবার রাতে ওই কিশোরীকে নিজের বাড়িতে ডেকে পাঠায় গুলহান। তার পর ফাঁকা বাড়িতে কিশোরীকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। এ বিষয়ে কাউকে কিছু না বলার জন্য কিশোরীকে সে হুমকিও দিয়ে রেখেছিল। কিন্তু নির্যাতিতা বাড়ি গিয়ে বাবা-মাকে সব কথা জানিয়ে দেয়।

এলাকায় ধর্ষণের বিষয়টি জানাজানি হতেই ক্ষোভে ফেটে পড়েন স্থানীয়রা। অভিযুক্তের বাড়ি ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখায় তাঁরা। মেয়েটির আত্মীয় স্বজন-সহ কমপক্ষে ২০০ প্রতিবেশী সেখানে জড়ো হন। বাড়ির বাইরে ভিড় দেখে পিছনের দরজা দিয়ে পালিয়ে যায় বিজেপি নেতা বলে জানা গেছে।

বেতুলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নীরজ সোনি (SP Neeraj Soni) জানান, বিক্ষোভের মাঝে গুলহান বাড়ির পিছন দিকের দরজা দিয়ে কোনও রকমে পালিয়ে যান। কিন্তু তাঁর গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয় উত্তেজিত জনতা।

তিনি বলেন, 'সেখানে ১৫০-২০০ জন লোক ছিল। বিক্ষুব্ধ জনতাকে নিয়ন্ত্রণ আনতে সামান্য শক্তি প্রয়োগ করতে হয়েছে পুলিশকে। তবে, পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।'

জানা যাচ্ছে, সোমবার রাতেই থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন নাবালিকার বাবা-মা। তাঁদের অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

ছবি - প্রতীকী
দলীয় নেতার অধীনে মহিলারা নিরাপদ নয় - অভিযোগ তুলে দল ছাড়লেন BJP নেত্রী গায়ত্রী রঘুরাম
ছবি - প্রতীকী
সুপ্রিম কোর্টে গিয়ে ধাক্কা খাওয়া আরও ১৪৩ শিক্ষকের চাকরি বাতিলের নির্দেশ হাইকোর্টের

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in